ঢাকা, শুক্রবার 16 March 2018, ২ চৈত্র ১৪২৪, ২৭ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

 সোয়া লাখ ইয়াবাসহ গ্রেফতার ৪  ধানমন্ডির ফ্ল্যাটে ইয়াবার আখড়া কক্সবাজারের ব্যবসায়ীর

 

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর ধানমন্ডিতে ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে ঢাকা কলেজ পড়ুয়া ছোট ভাইয়ের মাধ্যমে ইয়াবা সেবন ও বিক্রির আখড়া গড়ে তুলেছিলেন কক্সবাজারের এক ব্যবসায়ী। মো. আলম (৪০) ও তার ছোট ভাই জসিম উদ্দিনসহ (২৩) চারজনকে বুধবার সন্ধ্যায় সোয়া লাখ ইয়াবাসহ ওই ফ্ল্যাট থেকে গ্রেপ্তারের কথা জানিয়েছে র‌্যাব। জসিম ঢাকা কলেজের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের তৃতীয় বর্ষের ছাত্র বলে র‌্যাব-২ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আনোয়ার উজ জামান জানিয়েছেন।

গতকাল বৃহস্পতিবার কারওয়ানবাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, পশ্চিম ধানমন্ডির ১৯ নম্বর সড়কে ‘স্বপ্ননীড়’ নামের ১৫৩/এ নম্বর ভবনের দ্বিতীয় তলার একটি ফ্ল্যাট থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। ওই ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে থাকতেন আলম। “ছোট ভাই জসিমকে পাশেই একই সড়কের ২০৮/এ ভবনের একটি ফ্ল্যাট ভাড়া করে দিয়ে সেখানেই ইয়াবা সেবন ও বিক্রি করত তারা।” আলমের ফ্ল্যাট থেকে গ্রেপ্তার অপর দুজন মো. সালাউদ্দিন (২৭) ও মো. মিজানুর রহমানের (৩৩)  বাড়িও কক্সবাজারে।

র‌্যাব কর্মকর্তা আনোয়ার বলেন, আলমের লেখাপড়া তৃতীয় শ্রেণি পর্যন্ত। বেশ আগেই কক্সবাজারে কটেজ ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েন তিনি। পরে নতুন-পুরাতন গাড়ির ব্যবসা শুরু করেন। মাঝে চিংড়ি পোনা আর জমি কেনাবেচায়ও জড়িয়েছিলেন। “এক পর্যায়ে সে ইয়াবায় আসক্ত হয়ে পড়ে। ইয়াবা কিনতে গিয়ে ব্যবসায়ীদের সাথে পরিচয়ের সূত্রে সে ব্যবসায় জড়িয়ে যায় এবং বড় বড় চালান আনা-নেওয়া করে। মিয়ানমার থেকে ইয়াবা আনার পর তার কটেজে রাখত এবং তার নিজের গাড়ির মাধ্যমে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ছড়িয়ে দিত।”

 ছোট ভাই জসিমের বন্ধুদের মাধ্যমে আলম ঢাকায় ইয়াবা বিক্রির একটি চক্র গড়ে তোলেন বলে জানান তিনি। “গ্রেপ্তার অপর দুইজন আলমের সহযোগী। তাদের মধ্যে মিজানুর গাড়িচালক এবং সালাউদ্দিন গাড়ির মিস্ত্রী। তারা আলমের সাথে যোগসাজশ করে এই ব্যবসা চালিয়ে আসছিল।”

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ