ঢাকা, শুক্রবার 16 March 2018, ২ চৈত্র ১৪২৪, ২৭ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ডোমারে অগ্নিকাণ্ডে ৭টি পরিবারের ২০টি ঘর পুড়ে গেছে

 

নীলফামারী সংবাদদাতা : নীলফামারীর ডোমারে এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৭টি পরিবারের সবকিছু পড়ে ছাঁই হয়ে গেছে। এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটেছে, বৃহস্পতিবার ভোর রাতে ডোমার উপজেলার মৌজা পাঙ্গা গ্রামের জলদানপাড়া এলাকায়। এলাকাবাসী জানায়, বৃহস্পতিবার ভোর রাতে ওই এলাকার মাহাদ্দিনের ছেলে মোকছেদ আলীর বাড়ির পল্লী বিদুতের শর্ট সার্কিট হতে আগুনের সূত্রপাত হয়ে মুহূর্তেই তা চারিদিকে ছড়িয়ে পড়ে। এতে ৭টি পরিবারের ২০টি  ঘরে রক্ষিত নগদ টাকা, আসবাবপত্র, গরু, ছাগল, হাস, মুরগীসহ সব কিছু পুড়ে ছাঁই হয়ে যায়। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৩০ লক্ষ টাকা বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। খবর পেয়ে ডোমার ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

৯ দিনেও সন্ধান মেলেনি

ডুয়েট ছাত্র মোস্তফার

প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (ডুয়েট) ছাত্র নীলফামারীর গোলাম মোস্তফার (২২) দীর্ঘ ৯ দিনেও সন্ধান মেলেনি। গত ৬ই মার্চ মেস থেকে ফজরের নামাজ আদায় করতে গিয়ে সে আর ফিরে আসেনি। তার কোনো হদিস না পাওয়ায় পরিবারের লোকজন চরম উৎকণ্ঠায় ভুগছেন। জানা গেছে, নীলফামারী সদর উপজেলার উত্তর আরাজী চড়াইখোলা গ্রামের মোহাম্মদ আলীর পুত্র গোলাম মোস্তফা ডুয়েট-এর ২০১৬-১৭ শিক্ষা বর্ষের ছাত্র। তার রোল নং ১৬৫০৩৫। সে ডুয়েট সংলগ্ন সালেহা কুটির মেসে থেকেই লেখাপড়া করতো। ঘটনার দিনে ফজরের নামায আদায় করতে গিয়ে সে আর মেসে ফিরে আসেনি। মোস্তফার ভাই ছাদেকুল ইসলাম জানান, মেসের অন্যান্য সহপাঠিদের কাছ থেকে খবর পেয়ে সম্ভাব্য সকল স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও তার কোন সন্ধান না পেয়ে ১২ মার্চ জয়দেবপুর থানায় একটি ডায়রি করা হয়েছে (নং ৯৩৬)। নামাযে যাওয়ার সময় মোস্তফা তার মোবাইলটি টেবিলে রেখে যাওয়ায় তার সাথে আর যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। কোথায় কি অবস্থায় রয়েছে এ দুশ্চিন্তায় উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন পরিবারের লোকজন।

৬ জুয়াড়ি গ্রেফতার

নীলফামারীর ডিমলায় জুয়া খেলার সময় ৬ জনকে  গ্রেফতার করেছে ডিমলা থানা পুলিশ। বুধবার গভীর রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার সদরের কাউসা বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃতরা হলো  দক্ষিণ তীতপাড়া গ্রামের মিজানুর রহমান (৩০), বাবুরহাট গ্রামের রবিউল ইসলাম রুবেল (২৮), জাহিদ (২৬), শিমুল (৩৫), রফিকুল (৩৫) ও আমিনুর রহমান (২৮)। ডিমলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, গ্রেফতারকৃতদের বৃহস্পতিবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ