ঢাকা, শনিবার 17 March 2018, ৩ চৈত্র ১৪২৪, ২৮ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ঢাকা দক্ষিণে মশার উৎপাত নেই ॥ দেখে যান -সাঈদ খোকন

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় মশার উপদ্রব কম দাবি করে তা যাচাইয়ে সাংবাদিকদের ডাকলেন মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিনে স্বচ্ছ ঢাকা কর্মসূচি সামনে রেখে গতকাল শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ আহ্বান জানান।
সাঈদ খোকন বলেন, “আমি বলতে চাই, তুলনামূলকভাবে দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় মশার উপদ্রব কম। ডিএসসিসির বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে পুরানো ঢাকা। পুরানো ঢাকায় মশার উপদ্রব খুব কম, খুব কম এবং খুব কম।” মশা নিয়ে ঢাকার বাসিন্দাদের অভিযোগের শেষ নেই। নগরবাসীর এসব অভিযোগের মধ্যে দক্ষিণের মেয়র বিভিন্ন সময় সাংবাদিকদের কাছে একই ধরনের বক্তব্য দিয়েছেন।
নিজের দাবি যাচাইয়ে সাংবাদিকদের আমন্ত্রণ জানিয়ে মেয়র বলেন, “আমার কথা বিশ্বাস না হলে আপনারা একদিন আসুন। আমরা কোথাও বসে চা খাই। সেখানে যদি মশা আপনাদের বেশি উৎপাত করে তখন আমাকে বলবেন, আমি ভুল বলেছি কি না।” তবে জুরাইন, মানিকনগর এবং ধানমন্ডিতে মশার উপদ্রব রয়েছে স্বীকার করলেও তা ‘অসহনীয় পর্যায়ে না’ বলে দাবি করেন সাঈদ খোকন। এবার চিকুনগুনিয়া যেন বিস্তার করতে না পারে সেজন্য প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাসও দেন তিনি।
মেয়র জানান, পরিচ্ছন্ন নগরী গড়তে একটি হটলাইন চালু করা হয়েছে। ০৯৬১১০০০৯৯৯ নম্বরে ফোন করে তার বাড়ির আঙিনা বা অন্য কোথাও বর্জ্য দেখলে ফোন করা মাত্রই ডিএসসিসির পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা সেখানে পৌঁছে যাবে। নগরবাসী আগামী সাতদিন এ সেবা পাবেন বলে জানান সাঈদ খোকন।
সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর এবং ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন ও জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে আয়োজিত স্বচ্ছ ঢাকা অনুষ্ঠান সফল করতে সবার সহযোগিতা চান মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন। তিনি জানান, স্বচ্ছ দিবস উপলক্ষে কাল শনিবার সকাল ৮টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত নগর ভবনের ব্যাংক ফ্লোরে শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। বেলা ১১টায় নগর থেকে র‌্যালি বের হবে। এটি গোলাপশাহ মাজার, জিরো পয়েন্ট, পল্টন মোড়, জাতীয় প্রেস ক্লাব হয়ে আবার নগর ভবনে এসে শেষ হবে। যেসব প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তি তাদের এলাকায় পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করবেন তাদের প্রাতিষ্ঠানিক পর্যায়ে পুরস্কৃত করা হবে বলে জানান মেয়র। “যে সামাজিক, সাংস্কৃতিক বা ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নিজ এলাকাকে সুচারুভাবে পরিচ্ছন্ন করতে পারবে সে প্রতিষ্ঠানকে আমরা পুরস্কৃত করব।”
সাদা পরিচ্ছন্নতার ও শুদ্ধতার প্রতীক উল্লেখ করে ডিএসসিসি মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেন, ‘আমরা বছরের নির্ধারিত একটি দিন সাদা শার্ট দিবস পালন করতে চাই। নগরবাসীর মতামতের ভিত্তিতে বছরের যেকোনও একদিন দিবসটি ঘোষণা করা হবে। আপাতত জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে আগামী ১৮ই মার্চ সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ‘স্বচ্ছ ঢাকা’ কর্মসূচির প্রচারণা এবং স্বচ্ছ ও শুভ্র মন  তৈরির লক্ষ্যে আমাদের কাউন্সিলর, কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা সাদা শার্ট বা পোশাক পরবেন।’
মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, ‘আমরা চাই রাজধানীকে একটি পরিচ্ছন্ন নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানানোর উপায় হিসেবে আমরা স্বচ্ছ ঢাকা পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি ঘোষণা করেছি। এরইমধ্যে নাগরিকদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনার ভিত্তিতে পরিচ্ছন্ন নগরী গড়ার উদ্যোগের কথা জানিয়েছি। এই শহরের প্রতিটি মানুষ চায় একটা স্বচ্ছ জীবন, স্বচ্ছ শহর, সুস্থ ও সুন্দর জীবন। সেই স্বচ্ছ ও পরিচ্ছন্ন শহরের পূর্ব শর্ত পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা।’
মেয়র আরও বলেন, ‘শুধু নগরী পরিচ্ছন্ন করলেই চলবে না। আমাদের মন ও পরিধেয় বস্ত্র পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। শুভ্র মন ও স্বচ্ছতা আনতে ১৮ মার্চ ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র, কাউন্সিলর, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সাদা শার্ট পরবে। এরপর নাগরিকবাসীর মতামত নিয়ে দিনক্ষণ ঠিক করে সাদা শার্ট দিবস ঘোষণা করবো’।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ