ঢাকা, শনিবার 17 March 2018, ৩ চৈত্র ১৪২৪, ২৮ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সন্ত্রাস মাদক ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ করতে সম্মিলিত প্রয়াস প্রয়োজন

খুলনা অফিস : বাংলাদেশ পুলিশের মহা-পরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, সন্ত্রাস মাদক ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ করতে সম্মিলিত প্রয়াস প্রয়োজন। সম্মিলিত প্রয়াস ছাড়া পুলিশের একার পক্ষে প্রতিরোধ করা কঠিন হয়ে পড়বে। এ জন্য দেশের সকল সচেতন অভিভাবকদের এগিয়ে আসতে হবে। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকের বিরুদ্ধে অভিভাবকরা তাদের সন্তান ও স্ব স্ব এলাকায় জনসচেতনতা  তৈরী করতে পারলে সকল ধরনের অপরাধ দমন করা সহজ হবে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ লাইন্স মাঠে সন্ত্রাস, মাদক ও জঙ্গিবাদ বিরোধী সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারী এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, দেশ এখন সকল দিক থেকে এগিয়ে যাচ্ছে। উন্নয়নের মহাসড়কে থাকা দেশকে আমাদের সকলে মিলে আরও এগিয়ে নিতে হবে। সেক্ষেত্রে পুলিশ ও জনতা ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে পারলে দেশ থেকে সন্ত্রাস, মাদক ও জঙ্গিবাদ নির্মূল কোনো কঠিন কাজ হবে না। মনে রাখতে হবে পুলিশ এখন আগের যে কোন সময়ের চেয়ে জনবান্ধব।
এর আগে আইজিপি জাবেদ পাটোয়ারী সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বলেন, তেজগাঁও থানা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন মিলন পুলিশ হেফাজতে মারা গেছে এ অভিযোগ সঠিক নয়। তিনি বলেন, ছাত্রদল নেতাকে কারাগারে কোনো নির্যাতন করা হয়েছে কি না তা’ তদন্ত করে দেখা হবে। তদন্ত অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। পুলিশ একটি সুশৃংখল বাহিনী, এ বাহিনীর কোন অন্যায় অবহেলা মেনে নেয়া হবে না।
আইজিপি আরও বলেন, মাদক দেশের জন্য একটি বড় চ্যালেঞ্জ। এটিকে মোকাবেল করতে হবে সমন্বিতভাবে। আর এজন্য পুলিশের পাশাপাশি সকল শ্রেণি পেশার মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে। সম্মিলত প্রয়াস ছাড়া মাদক নির্মূল কোনোভাবেই সম্ভব না। খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার মো. হুমায়ুন কবিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সুধী সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি, তালুকদার আব্দুল খালেক এমপি, মুহাম্মদ মিজানুর রহমান মিজান এমপি, খুলনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ, খুলনা রেঞ্জ ডিআইজি মো. দিদার আহম্মেদ, খুলনা বিভাগীয় কমিশনার মো. লোকমান হোসেন মিয়া, জেলা প্রশাসক মো. আমিন উল আহসান, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ জেলা কমান্ডার সরদার মাহবুবার রাহমান, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের মহানগর কমান্ডার অধ্যাপক আলমগীর কবীর, খুলনা জেলা কমিউনিটি পুলিশ ফোরামের সভাপতি ও খুলনা প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি মকবুল হোসেন মিন্টু ও সাধারণ সম্পাদক ফুলতলা উপজেলা চেয়ারম্যান শেখ মো. আকরাম হোসেন, খুলনা মহানগর কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সভাপতি ডা. এ কে এম কামরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক, বিজেএ’র চেয়ারম্যান শেখ সৈয়দ আলী, সোনাডাঙ্গা থানা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সভাপতি, খুলনা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সহ-সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বুলু বিশ্বাস, মহানগর মহিলা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সভানেত্রী পারভীন আক্তার, সোনাডাঙ্গা থানা মহিলা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সভানেত্রী রোজী ইসলাম নদী প্রমুখ। সমগ্র সমাবেশ পরিচালনা করেন খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া ও কমিউনিটি পুলিশ) সোনালী সেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ