ঢাকা, সোমবার 19 March 2018, ৫ চৈত্র ১৪২৪, ৩০ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

শাহজাদপুরে পল্লী বিদ্যুতের অসহনীয় লোডশেডিং

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) সংবাদদাতা: সাম্প্রতিক সময়ে উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নে বিদ্যুতের লোড শেডিং চরম আকার ধারণ করেছে। অসহনীয় এই লোড শেডিংয়ের কারণে চলতি ইরি- বোরো চাষাবাদ ব্যাহত হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। লো-ভোল্টোজের কারণে সময়মত সেচ দিতে না পারায় ইরি’র ফলন ভাল না হওয়ার আশঙ্কাই বেশি। উপজেলার প্রায় ২১ হাজার হেক্টর জমিতে ইরি-বোরো চাষাবাদ করার লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে এগুলেও এই লোড শেডিং চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্থ্য করছে। যার কারণে কৃষকেরা চরম দুশ্চিন্তায় ও হতাশা প্রকাশ করেছে। তাছাড়া সরকার সঠিকভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে না পারলেও  বিুদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করায় চরম ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে গ্রাহক কৃষকদের মধ্যে।  সিরাজগঞ্জ পললী বিদ্যুৎ সমিতি শাহজাদপুর সাব স্টেশনের মাধ্যমে বিদ্যুৎ সরবকরাহ করা হলেও প্রত্যন্ত অঞ্চলের লাইনগুলোতে দিনের অধিকাংশ সময় বিদ্র্যুৎ থাকছেনা। যে টুকু সময় বিদ্যুৎ থাকে তার সরবরাহ নিরবছিন্ন নয়।
এতে করে জমিতে পানি দেবার পর কিছুক্ষণ বাদেই মটর বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। কখনও কখনও লো ভোল্টেজ দিয়েই গভীর নলকূপ গুলৈা চালু করা হলেও কিছুক্ষণের মধ্যেই তা আবার বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। তাই দ্রুত বিদ্যুৎ সমস্যার সমাধান করতে না পারলে এসব এলাকার ইরি-বোরো চাষাবাদের পাশপাশি তাঁত কারখানার পাওয়ারলুম সার্ভিস বন্ধ হয়ে যেতে পারে শাহজাদপুর উপজেলার তাঁত শিল্প এখন অনেকটাই বিদ্যুৎ নির্ভর হয়ে পরতে শুরু করেছে। বিদ্যুতের লোড শেডিং তাঁতের কাপড় উৎপাদনকেও চরমভাবে ব্যাহত করছে। এ ব্যাপারে সিরাজগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি শাহজাদপুর জোনের ডিজিএম  জানান, এ বছর উল্লেখযোগ্য সংখ্যক নতুন সংযোগ দেয়া হয়েছে। যার কারণে বিদ্যুতের ঘাটতি আছে । শ্রীঘ্রই লোডশোডিং কমবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।  সময়মত কারখানা গুলো থেকে কাপড় উৎপাদন না হওয়ায় তাঁত মালিকদের মধ্যেও চরম ক্ষোভের সঞ্চার দেখা দিয়েছে। তাই দ্রুত বৈদ্যুতিক সমস্যা সমাধান এখন জরুরী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ