ঢাকা, সোমবার 19 March 2018, ৫ চৈত্র ১৪২৪, ৩০ জমদিউস সানি ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

খুলনা জেলা বিএনপি নেতা নজরুল ইসলামকে সাদা পোশাকে তুলে নেয়ার অভিযোগ

খুলনা অফিস : খুলনা  জেলা বিএনপি’র সহ-ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ও সাবেক ইউপি মেম্বার নজরুল ইসলাম নিখোঁজ হয়েছেন। শনিবার দিবাগত রাত সাড়ে ৭টার দিকে ডুমুরিয়ার আটলিয়া গ্রামের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম হোসেনের বাড়ির সামনে ফাঁকা স্থানে তার ব্যবহৃত টুপি ও মোটরসাইকেল উদ্ধার করেছে পুলিশ। তবে তার এখনো কোন সন্ধান মেলেনি।   

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, শনিবার রাতে তিনি ডুমুরিয়া মঙ্গলকোট এলাকা থেকে মোটরসাইকেলে ১৮ মাইল এলাকার বাড়িতে ফিরছিলেন। পথিমধ্যে আটলিয়া গ্রামের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম হোসেনের বাড়ির সামনে ফাঁকা স্থান থেকে নিখোঁজ হন তিনি। তাকে দু’টি মোটরসাইকেলে দুর্বৃত্তরা তুলে নিয়ে গেছে বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন। তিনি সর্বশেষ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দলীয় ব্যানারে চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। তার স্ত্রী ও দুই ছেলে রয়েছে। এদিকে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন স্থানীয় মাগুরঘোনা পুলিশ ফাঁড়ি । 

নিখোঁজ নজরুল ইসলামের স্ত্রী তানজিলা বেগম জানান, শনিবার আছর বাদ ডাক্তার বাড়ি যাওয়ার কথা বলে  মোটরসাইকেলে করে বাড়ি থেকে বের হয়। তবে মাগরিব পেরিয়ে গেলেও তিনি না ফেরায় মোবাইলে করলে তা বন্ধ পাওয়া যায়। ধারণা করা হয়েছিল নেটওয়ার্ক নেই। পরে শোনা যায় তার ব্যবহৃত টুপি ও  মোটরসাইকেলটি আটলিয়া গ্রামে পরিত্যক্ত অবস্থায় পাওয়া গেছে। তবে তার খোঁজ মেলেনি। কি কারণে নিখোঁজ নাকি কেউ তুলে নিয়ে গেছে, সে বিষয়ে এখনও জানতে পারেননি পরিবার। তিনি বলেন, এ বিষয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। 

বিএনপি’র কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও মহানগর সভাপতি নজরুল ইসলাম বলেন, রাতে আটলিয়া গ্রামে দলের জেলা শাখার সহ-ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলামকে সাদা পোশাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। এ ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান তিনি। একই সাথে তাকে দ্রুত উদ্ধার এবং ঘটনার সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করে শাস্তির দাবি জানান।  

এ ব্যাপারে ডুমুরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ হাবিল হোসেন বলেন, ঘটনাস্থল থেকে নিখোঁজ নজরুল ইসলামের ব্যবহৃত টুপি ও  মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে। তবে তাকে কেউ তুলে নিয়ে গেছে কিনা সেটি জানা যায়নি। নিখোঁজের সন্ধানে চেষ্টা চলছে।

অপরদিকে খুলনা জেলা বিএনপির সভাপতি এডভোকেট এসএম শফিকুল আলম মনা গতকাল রোববার প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেন, খুলনা জেলা বিএনপির সহ ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক, মাগুরাঘোনা ইউনিয়ন ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ও ওই ইউনিয়নে বিএনপি মনোনীত সাবেক চেয়ারম্যান প্রার্থী মো. নজরুল ইসলাম মোড়ল শনিবার মাগরিবের পর থেকে নিখোঁজ রয়েছেন। বিকেলে তিনি ডাক্তার দেখানোর উদ্দেশ্যে বেতাগ্রামের বাড়ি থেকে আঠারো মাইল বাজারে যান। সেখান থেকে মোটর সাইকেল ভাড়ায় নিয়ে কেশবপুর মঙ্গলকোট বাজারে ডা. জগদীশের চেম্বারে রওনা হন। ডাক্তার দেখিয়ে ফেরার পথে মাগরিবের কিছু সময় পরে স্থানীয় কতিপয় ব্যক্তি তার ভাড়া করা মোটর সাইকেল, চাবি ও নজরুলের মাথার টুপি আটলিয়া থেকে বেতাগ্রাম যাওয়ার রাস্তার ওপর পরিত্যাক্ত অবস্থায় দেখতে পান। 

ভাড়ার মোটর সাইকেলের মালিক আব্দুল হালিমকে বিষয়টি জানালে তিনি বলেন, নজরুল তার কাছ থেকে মোটর সাইকেল ভাড়া করে নিয়ে গেছে। এরপর নজরুলের মোবাইল নাম্বারে ফোন দেয়া হলে নাম্বারটি বন্ধ পাওয়া যায়। সম্ভাব্য সব জায়গায় খোঁজাখুঁজি করে তার সন্ধান না পেয়ে থানা পুলিশের কাছে যাওয়া হয়। রাতে নজরুলের স্ত্রী তানজিলা বেগম ডুমুরিয়া থানায় একটি জিডি করেন। জিডি নাম্বার ৯০৪, তারিখ- ১৭/০৩/১৮। নজরুলের ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বার ট্রাকিং করে তার সর্বশেষ অবস্থান মঙ্গলকোটে পাওয়া গেছে বলে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপি সভাপতি খান আলী মুনসুরকে জানিয়েছেন থানার ওসি। 

তিনি আরো উল্লেখ করেন, তাকে খুঁজে বের করা পুলিশ প্রশাসন ও আইন শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর কর্তব্য। পরিবারের একজন কর্মক্ষম, তরুণ, প্রাণউচ্ছল সদস্যকে আকষ্মিকভাবে হারিয়ে সবাই মুষড়ে পড়েছে। নজরুল ছাত্র জীবন থেকেই বিএনপির রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত। তিনি কখনো, কোনদিনও কোন আইন বিরোধী বা সমাজবিরোধী কাজের সাথে জড়িত ছিলন না। তিনি একজন মাদরাসা শিক্ষক। এলাকায় অত্যন্ত জনপ্রিয়। গত ইউপি নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ হলে তার বিজয় ঠেকিয়ে রাখা সম্ভব হতনা। বিএনপি ঘোষিত রাজনৈতিক আন্দোলন কর্মসূচিতে অংশ নিতে গিয়ে সরকারের রোষাণলে পড়েন তিনি মামলার আসামী হয়ে জেল খেটেছেন। কিন্ত এই মুহূর্তে তার নামে কোন মামলায় ওয়ারেন্ট নেই। সারাদেশের একের পর এক বিরোধী মতাদর্শের রাজনৈতিক নেতাকর্মী ধারবাহিকভাবে গুম অপহরণের শিকার হওয়ার প্রেক্ষিতে নজরুলের জীবনের নিরাপত্তা নিয়ে আমরা মারাত্মকভাবে উদ্বিগ্ন ও শংকিত। অবিলম্বে আমাদের নেতা নজরুল ইসলাম মোড়লকে ফেরৎ চাই।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ