ঢাকা, শনিবার 24 March 2018, ১০ চৈত্র ১৪২৪, ৫ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মিরপুরে ডিবি পরিদর্শক হত্যার প্রধান সন্দেহভাজন হাসান বন্দুক যুদ্ধে নিহত

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকার মিরপুরের পীরেরবাগ গোয়েন্দা পুলিশ-ডিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ এক যুবক নিহত হয়েছেন। নিহত যুবকের সঙ্গে ডিবি পরিদর্শক জালাল উদ্দিন হত্যার প্রধান সন্দেহভাজন হাসানের ছবির মিল রয়েছে। বৃহস্পতিবার রাত ২টার দিকে পীরেরবাগ ৬০ ফুট রাস্তার ভাঙা ব্রিজ শাপলা হাউজিং এলাকায় বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন মিরপুর থানার এসআই আখলিমা আক্তার।
তিনি বলেন, ডিবি পুলিশের একটি দল ওই এলাকায় অভিযানে গেলে আগে থেকে সেখানে অবস্থান নিয়ে থাকা সন্ত্রাসীরা গুলী করে। পুলিশও তখন পাল্টা গুলী চালায়। এর পর সেখানে প্রায় ২৫ বছর বয়সী এক যুবককে গুলীবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান এসআই আকলিমা।
তিনি জানান, ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ তিনটি পিস্তল উদ্ধার করেছে। এর মধ্যে দুটি পিস্তল গত জানুয়ারিতে দুই পুলিশ সদস্যের বাড়ি থেকে চুরি করা হয়েছিল।
নিহত ওই যুবক পরিদর্শক জালাল হত্যাকা-ের প্রধান সন্দেহভাজন হাসান বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করার কথা জানিয়েছেন ডিবি পুলিশের উপ-কমিশনার (পশ্চিম) মো. মোখলেছুর রহমান। তিনি বলেন, পুলিশের কাছে হাসানের যে ছবি আছে, তার সঙ্গে নিহতের চেহারার মিল পাওয়া গেছে। তবে স্বজনরা এসে লাশ শনাক্ত করলে পুরোপুরি নিশ্চিত হওয়া যাবে।
চলতি বছরের ১১ জানুয়ারি পুলিশ সার্জেন্ট মামুনুর রশিদ ও মো. সোহেল রানার দুটি অস্ত্র চুরি হয়। ওই অস্ত্র উদ্ধারে ১৯ মার্চ রাত সাড়ে ১১টার দিকে মিরপুর থানাধীন মধ্য পীরেরবাগ আবদুল খালেক রোডের ১০৫/১ নম্বর বাসাটি ডিবি পুলিশ চারদিক থেকে ঘিরে ফেলে। সন্ত্রাসীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ইটপাটকেল নিক্ষেপ ও বেশ কয়েক রাউন্ড গুলী করে। আত্মরক্ষায় পুলিশও পাল্টা গুলী ছোড়ে। এর পর ডিবির টিম সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশকে খবর দিলে মিরপুর থানার পুলিশও অভিযানে যোগ দেয়। একপর্যায়ে সন্ত্রাসীরা গুলীবর্ষণ বন্ধ করলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ফের বাড়িটি ঘিরে ফেলে। একপর্যায়ে বাড়ির দক্ষিণ পাশের চিপাগলিতে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকা পুলিশ পরিদর্শক জালাল উদ্দিনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। জালাল উদ্দিনের মাথায় দুটি গুলী লাগে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ