ঢাকা, শনিবার 24 March 2018, ১০ চৈত্র ১৪২৪, ৫ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

শিক্ষা ক্ষেত্রে যুগান্তকারী পরিবর্তন এসেছে : ভূমি প্রতিমন্ত্রী

লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা : ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপি বলেছেন, আলোকিত জনগোষ্ঠী গড়তে বাংলাদেশে শিক্ষার গুণগত মান উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে শিক্ষা ক্ষেত্রে বাংলাদেশে যুগান্তকারী পরিবর্তন এসেছে।
ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপি গত বৃহস্পতিবার লোহাগাড়া উপজেলার পুটিবিলা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫০ বৎসর পূর্তি উপলক্ষে সুবর্ণ জয়ন্তী অনুষ্ঠানে যথাক্রমে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।
অনুষ্ঠানে প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী এমপি বলেন, শিক্ষার গুণগত মান বৃদ্ধির জন্য আধুনিক ও সময়োপযোগী কারিকুলাম অনুসারে পাঠ্যপুস্তক তৈরি করা হচ্ছে। দক্ষ মানবসম্পদ গড়ার লক্ষ্যে ইতোমধ্যে নতুন কারিকুলামে পাঠ্য বই তৈরি করে প্রাথমিক, মাধ্যমিক, মাদরাসা ও কারিগরিসহ সকল ধারার শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিয়া খাতুন। বিশেষ অতিথি ছিলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাঈনুউদ্দিন হাসান চৌধুরী। স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি, বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য মিসেস রিজিয়া রেজা চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাহবুব রহমান, এসি-ল্যান্ড শামীমা আক্তার, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক নুরুল আবছার চৌধুরী, কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দিলরুবা জামান শেলি, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক রাজিয়া মোস্তফা চৌধুরী, কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগের সদস্য বেবি বড়ুয়া, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সদস্য আনোয়ার কামাল, মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, লোহাগাড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী দিলুয়ারা ইউছুপ, আওয়ামী লীগ নেতা এইচ.এম গণি সম্রাট, সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক সাইদুর রহমান দুলাল, পুটিবিলা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হাজি মুহাম্মদ ইউনুছ, কলাউজান ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াহেদ, চুনতি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন জনু, সাতকানিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নেজাম উদ্দিন, মাদার্শা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আ.ন.ম সেলিম চৌধুরী, এওচিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম মানিক, লোহাগাড়া উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক জহির উদ্দিন, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু তাহের, সাতকানিয়া উপজেলা যুবলীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম, সাতকানিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক হারেজ মোহাম্মদ, লোহাগাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মিজানুর রহমান মিজান, মোর্শেদুল আলম নিবিল প্রমুখ।

চট্টগ্রামে বিশ্ব অপটোমেট্রি দিবস-২০১৮ উদ্যাপন
চট্টগ্রাম অফিস : “দৃষ্টি সবার অধিকার” এই সেøাগানকে সামনে রেখে প্রতিবারের মত বিশ্ব অপটোমেট্রি দিবস-২০১৮ উদ্যাপন করেছে ইনস্টিটিউট অব কমিউনিটি অফথালমোলোজি (আইসিও) চট্টগ্রাম চক্ষু হাসপাতাল ক্যাম্পাস। এ উপলক্ষে  ২৩ মার্চ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টায় অনুষ্ঠিত বর্ণাঢ্য র‌্যালির উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম চক্ষু হাসপাতালের ম্যানেজিং ট্রাস্টি অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন। এ সময় তিনি বলেন, প্রতিবছর সারাবিশ্বে অপটোমেট্রি দিবস উদ্যাপন হয়। একজন চিকিৎসকের সাথে একাধিক অপটোমেট্রি থাকার কথা থাকলেও  দেশে তার সংখ্যা একেবারে সীমিত। এ দেশে যে পরিমাণ চক্ষু চিকিৎসক রয়েছে সেই তুলনায় অপটোমেট্রি নেই বললেই চলে।
  চক্ষু বিশেযজ্ঞ অধ্যাপক ডা. রবিউল হোসেন বলেন, এখানে অপটোমেট্রি গ্রেজুয়েশন ও পিএইচডি কোর্স শুরু হয়েছে আগ থেকে। একমাত্র এই হাসপাতালে দেশের  প্রথম কোর্সটি চালুর পর দিন দিন চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই অপটোমেট্রি বিভাগকে আরো সম্প্রসারিত করে উন্নত শিক্ষার মাধ্যমে অপটোমেট্রিরা যাতে সারা  দেশে এমনকী বহিরবিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে তার জন্য নিরলস প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। তিনি শিক্ষার্থীদের পেশাগত উৎকর্ষতা অর্জনের জন্য বিভিন্ন দিক নির্দেশনাও দেন।
 তিনি বলেন, এখানো দেশে বিশাল জনগোষ্ঠী চক্ষু চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত। বিগত ৪০ বছর ধরে শহর থেকে শুরু করে গ্রামঞ্চলে মানসম্মত উন্নত চক্ষু চিকিৎসা সেবার পরিধি বৃদ্ধিতে চট্টগ্রাম চক্ষু হাসপাতাল কাজ করে যাচ্ছে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন, হাসপাতালের মেডিকেল ডিরেক্টর ডা. কামরুল ইসলাম, আইসিও এর পরিচালক ডা. খুরশীদ আলম, এতাডেমিক কোডিনেটর অধ্যাপক ডা. মনিরুজ্জামান ওসমানী, আইসিও’র শিক্ষক অপটোমেট্রি প্রভাষক ও কোর্স কডিনেটর জুয়েল দাশগুপ্ত, টিচিং এসিস্ট্রেনড এস.এম আব্দুল্লাহ আল মামুন, জুনিয়র রিসার্স অফিসার তানজিলা সুলতানা, অপটোমেট্রি ফেকাল্ট্র্রি এস.এম তৌহিদুজ্জামান, প্রসাশনিক ও হিসাব কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন, জুনিয়র কর্মকর্তা মো. সাইফুর রহমানসহ প্রতিষ্ঠানের ডাক্তার, কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শিক্ষার্থীবৃন্দ। এছাড়া হাসপাতালের চিকিৎসকরা এ দিন বাঁশখালী উপজেলার পুকুরিয়া চা বাগানে কর্মরত গরিব কর্মচারীদের সন্তানদের বিনামূল্যে চক্ষু চিকিৎসা সেবা ও ওষুধ বিতরণ করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ