ঢাকা, সোমবার 26 March 2018, ১২ চৈত্র ১৪২৪, ৭ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

অভিনব পন্থায় স্যালো মেশিনের মধ্যে ১১ হাজার পিস ইয়াবা জব্দ

খুলনা অফিস : কেএমপি গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) ও খুলনা সদর থানা পুলিশের পৃথক অভিযানে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা ও বিদেশী মদ-বিয়ারসহ দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পৃথক এ দু’টি ঘটনায়  সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
শনিবার দিবাগত রাতে নগর গোয়েন্দা অফিসে কেএমপির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার সরদার রকিবুল ইসলাম এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেন, যে কোন মূল্যে আমরা খুলনাকে মাদকমুক্ত করতে চাই। সেজন্য স্থানীয় সাংবাদিক ও জনপ্রতিনিধিসহ সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা কামনা করেন।
গোয়েন্দা বিভাগের সূত্র মতে, গত তিনদিন ধরে নানা কৌশলে এই চক্রটির গতিবিধি নজরদারী করা হচ্ছিল। তারই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার ও শনিবার নজরদারী থাকার পর ওই মাদক ব্যবসায়ী চক্রের সদস্য কবির হাওলাদারকে আটক করতে সক্ষম হন।
কেএমপির গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার এ এম কামরুল ইসলাম (পিপিএম) বলেন, কেএমপির পুলিশ কমিশনার মো. হুমায়ুন কবিরের তত্ত্বাবধানে একটি টিম সোনাডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ডে অবস্থান করেন। এ সময় বাগেরহাট জেলার শরণখোলা থানার রসুলপুর গ্রামের বাসিন্দা ফুল মিয়ার ছেলে কবির হাওলাদার একটি ট্রান্সপোর্ট থেকে দু’টি পুরাতন স্যালো মিশন নিয়ে সোনাডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ডে গিয়ে বাসে করে যাবার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। ওই সময় তাকে স্যালো মেশিনসহ আটক করা হয়। স্যালো মেশিনের ভেতরে কৌশলে প্যাকেট করে রাখা ১১ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত কবির হাওলাদার বর্তমানে হরিণটানা গল্লামারী তাবলীগ মসজিদের পেছনে বসবাস করে। ওই চক্রের অন্যান্য সদস্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।
অপরদিকে খুলনা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ এম এম মিজানুর রহমান জানান, শনিবার রাত ৯টার দিকে শহরের হাজী মহসীন  রোডে ইজি বাইক তল্লাশি করে মদ-বিয়ারসহ তাকে গ্রেফতার করা হয়। জব্দ মদ-বিয়ারের মধ্যে রয়েছে ৫ বোতল বিদেশী মদ, ৬ বোতল দেশী মদ ও ১৯টি বিয়ারের ক্যান।
র‌্যাবের অভিযানে ১৮ জুয়াড়ি গ্রেফতার : নগরীর দৌলতপুরে র‌্যাব-৬ অভিযান চালিয়ে ৩৪ জন সন্দেহভাজন জুয়াড়িকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতাকৃত জুয়াড়িদের মধ্যে ১৮ জনের বিরুদ্ধে দৌলতপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে টাকা ও জুয়া খেলা পরিচালনায় ব্যবহৃত সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়েছে।
দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা হুমায়ুন কবীর জানান, নগরীর দৌলতপুর রেলওয়ে স্টেশনের পূর্ব পাশে শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে র‌্যাব-৬ অভিযান চালিয়ে ৩৪ জনকে গ্রেফতার করে। এরপর যাচাই বাছাই করে ১৮ জন জুয়াড়ির বিরুদ্ধে র‌্যাবের ডিএডি মো. বদিউজ্জামান দৌলতপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ঘটনাস্থল থেকে ২৭ সেট প্লেয়ার কার্ড, জুয়া খেলার ৫৬ হাজার ৭৭৫ টাকা, একটি বিছনার চাদর, প্লাস্টিকের তৈরি র‌্যাকসিন ও দু’টি টিনের তৈরি বাক্স উদ্ধার করে।
আসামীরা হলো-পলাশ ব্যাপারি, সাদ্দাম হোসেন, মো. আনছার মোল্যা, মো. রেজাউল সরদার, মো. জাহাঙ্গীর আলম, সোহেল মোল্যা, মো. আলমগীর হোসেন, আল-আমীন, নূরুজ্জামান আলী, আরিফ ব্যাপারি, আব্দুর রবউল্লাহ, সেলিম মাতব্বর, মো. শাহিন শেখ, জব্বার গাজী, ইলিয়াস মুন্সি, ইসমাঈল হাওলাদার, সুজন মোল্যা, ফারুক ব্যাপারি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ