ঢাকা, শুক্রবার 30 March 2018, ১৬ চৈত্র ১৪২৪, ১১ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মানবপাচার প্রতিরোধে ৮টি প্রস্তাবনা  পিসিটিএসসিএনের

 

স্টাফ রিপোর্টার : মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমনের বিষয়ে কর্মরত প্রতিষ্ঠানসমূহে (সংস্থা, তহবিল ও বিশেষ ট্রাইব্যুনাল) শিশুদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে। গতকাল  বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে এ আহ্বান জানায় প্রিভেনশন অব চাইল্ড ট্রাফিকিং থ্রু স্ট্রেনথিং কমিউনিটি অ্যান্ড নেটওয়ার্কিং (পিসিটিএসসিএন)।

সাংবাদিক সম্মেলনে মূল বক্তব্য পাঠ করেন গবেষণা ও উন্নয়ন প্রতিষ্ঠান ইনসিডিন বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক এ কে এম মাসুদ আলী। এ সময় তিনি মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমনে সরকারি কার্যক্রমের মধ্যে শিশুদের বিষয়টিকে বিবেচনায় নিয়ে ৮টি প্রস্তাবনা তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, পাচার প্রতিরোধ ও প্রতিকারের অঙ্গীকার নিয়ে সরকার ইতোমধ্যে মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন আইন ও বিধিমালা প্রণয়ন করেছে। এছাড়াও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কর্তৃক মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমনে জাতীয় কর্ম পরিকল্পনা গৃহীত হয়ে আাসছে, যার ধারাবাহিকতায় ২০১৮-২২ সালের কর্ম পরিকল্পনা প্রণয়নের প্রস্তুতি চলছে।

তার দেওয়া প্রস্তুাবগুলো হচ্ছে: ১. মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমনে জাতীয় কর্মপরিকল্পনা ২০১৮-২২ এ শিশুদের বিষয়টিকে পৃথকভাবে সংযুক্ত করা; মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমনে জাতীয় কর্মপরিকল্পনার অগ্রগতি তদারকিতে শিশুদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা; মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমন বিধিমালা ২০১৭ এ বর্ণিত মানব পাচার দমন সংস্থা, তহবিল ও বিশেষ ট্রাইব্যুনালকে কার্যকর করার প্রক্রিয়ায় শিশুদের অন্তর্ভুক্ত করা; শিশুর প্রতি সব ধরনের সহিংসতা প্রতিরোধে জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক বিধান অনুযায়ী বহুমাত্রিক পদক্ষেপ গ্রহণ করা; পাচারের শিকার ও পাচার থেকে উদ্ধারকৃত শিশুদের জন্য টেকসই পুনর্বাসন প্রক্রিয়া পরিচালিত করা; সচেতনতামূলক সরকারি ও বেসরকারি প্রচারাভিযানসমূহের উন্নততর সমন্বয় করা এবং সহিংসতার ঝুঁকি হ্রাসে শিশু পাচার, শিশুশ্রম, শিশু বিবাহ, শিশুর শারীরিক, মানসিক ও যৌন নির্যাতন এবং শিশুর প্রতি সহিংসতার কুফল, সুরক্ষা ও প্রতিরোধ সম্পর্কে গণসংযোগ ও তথ্য প্রচার করা; জেলা আইনগত সহায়তা প্রদান কমিটির অধীনে শিশুর প্রতি সহিংসতা সংক্রান্ত মামলার জন্য একটি তহবিল বরাদ্দ ও সেবার ক্ষেত্রে গুরুত্ব প্রদান করা এবং ৮) মানবপাচার প্রতিরোধ ও দমনে জাতীয় কর্মপরিকল্পনার পাশাপাশি নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ জাতীয় কর্মপরিকল্পনা, শিশুশ্রম নীতি বাস্তবায়ন পরিকল্পনা, শিশু নির্যাতর প্রতিরোধ ও দমন জাতীয় কর্মপরিকল্পনা, বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ জাতীয় কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, শ্রম কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাঝে পরিকল্পিত সমন্বয় কাঠামো গড়ে তোলা।

সাংবাদিক সম্মেলনে কনসোর্টিয়ামের পক্ষে আয়োজক সংস্থা কমিউনিটি পার্টিসিপেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের (সিপিডি) নির্বাহী পরিচালক মোসলেমা বারী, বিএনডব্লিউএলএ-এর সাধারণ সম্পাদক সীমা জহুর, নারী মৈত্রীর নির্বাহী পরিচালক শাহীন আক্তার ডলিসহ কনসোর্টিয়ামের অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ