ঢাকা, শুক্রবার 30 March 2018, ১৬ চৈত্র ১৪২৪, ১১ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রোহিঙ্গা শিবিরে ডিফথেরিয়া

স্টাফ রিপোর্টার : কক্সবাজারে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের মধ্য থেকে ৩৮ জন ডিফথেরিয়ায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন। শতভাগ নিশ্চিত আক্রান্তের সংখ্যা ১৮২ জন। এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ন্যাশনাল হেলথ ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুমের ইনচার্জ ডা. আয়েশা আক্তার।

গত বছরের নবেম্বর থেকে ডিপথেরিয়ার প্রকোপ দেখা দেয় রোহিঙ্গা শিবিরগুলোয়। সেসময় দৃশ্যমান উপসর্গের ভিত্তিতে রোগী সনাক্ত করতো স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

সম্প্রতি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরাধীন রোগতত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা কেন্দ্র (আইইডিসিআর) সন্দেহভাজনদের দেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করে। এতেই ডিফথেরিয়ায় ৩৮ জনের মৃত্যু এবং ১৮২জন আক্রান্তের বিষয়টি ধরা পড়ে।

একইসঙ্গে সন্দেহভাজন ডিফথেরিয়া রোগী হিসেবে প্রায় ছয় হাজার রোহিঙ্গাকে সনাক্ত করা হয়েছে। তাদের নমুনাও পরীক্ষা-নীরিক্ষার কথা রয়েছে।

প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক অধ্যাপক মীরজাদি সেবরিনা ফ্লোরা বিদেশে থাকায় যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক প্রতিষ্ঠানের একজন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা এ প্রতিবেদককে জানান, পরীক্ষার মাধ্যমে দেখা হয়েছে, রোগটির আধিপত্য কেমন। যা পাওয়া গেছে, তা উদ্বেগজনক। কেননা, বাংলাদেশ থেকে এ রোগ বহু আগেই নির্মূল হয়ে গেছে। তাদের থেকে বাংলাদেশীরা এতে আক্রান্তের আশঙ্কা আছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ন্যাশনাল হেলথ ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্ট সেন্টার অ্যান্ড কন্ট্রোল রুমের ইনচার্জ ডা. আয়েশা আক্তার জানান, এরই মধ্যে প্রথম রাউন্ডে দুই লাখ ৫৬ হাজার, দ্বিতীয় রাউন্ডে ৩ লাখ ১৬ হাজার রোহিঙ্গাকে ডিফথেরিয়ার প্রতিষেধক দেয়া হয়েছে। তৃতীয় রাউন্ড চলছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ