ঢাকা, শুক্রবার 30 March 2018, ১৬ চৈত্র ১৪২৪, ১১ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ওয়ার্নারের ক্ষমা প্রার্থনা

একাধিকবার অস্ট্রেলিয়ার বর্ষসেরা ক্রিকেটারের মর্যাদা পাওয়া পাঁচজনের দুইজন স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নার। দুইবার করে অ্যালান বোর্ডার মেডেল গলায় ঝুলিয়ে দেশের ক্রিকেটকে তারা নিয়ে গেছেন উচ্চ শিখরে, আবার তারাই ডোবালেন দেশকে বল টেম্পারিংয়ে জড়িত থেকে। ভক্তদের আস্থাও হারালেন তারা! তবে এমন কৃতকর্মের জন্য ভক্তদের কাছে ক্ষমা চাইলেন ওয়ার্নার। বল টেম্পারিংয়ের কেন্দ্রীয় চরিত্র হিসেবে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া চিহ্নিত করেছেন ওয়ার্নারকে। তাকেসহ স্মিথকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে বোর্ড। আর ক্যামেরন ব্যানক্রফটকে ৯ মাসের জন্য। বুধবার দেশে ফেরার বিমান ধরেছেন তারা। দেশের মাটিতে পা রাখার আগেই ‘ক্রিকেট ও তার ভক্তদের মর্মাহত’ করায় ক্ষমা চেয়ে বিবৃতি দিলেন ওয়ার্নার। তিনি বলেছেন, ‘অস্ট্রেলিয়া ও সারা বিশ্বের ক্রিকেট ভক্তদের উদ্দেশ্যে বলছি: আমি এখন সিডনির পথে। আমি ভুল করেছি, যেটা ক্রিকেটকে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে। আমি ব্যক্তিগতভাবে ক্ষমা চাচ্ছি এবং আমি এর দায় নিচ্ছি। আমি জানি এটা এই খেলা ও ভক্তদের মর্মাহত করেছে।’ কেপটাউন টেস্টে বল টেম্পারিংয়ের পর প্রথম বিবৃতিতে ওয়ার্নার আরও বলেছেন, ‘আমাদের সবার ভালোবাসার ক্রিকেটকে আমি কলঙ্কিত করেছি। আমাকে এখন সময় নিতে হবে এবং আমার পরিবার, বন্ধু ও বিশ্বস্ত উপদেষ্টাদের সঙ্গে সময় কাটাতে হবে। কয়েক দিনের মধ্যে আমার কাছ থেকে আরও কথা শুনতে পারবেন।’ ইন্টারনেট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ