ঢাকা, শুক্রবার 30 March 2018, ১৬ চৈত্র ১৪২৪, ১১ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

অপরাধের তুলনায় শাস্তি বেশি হয়েছে স্মিথদের- শেন ওয়ার্ন

বল টেম্পারিংয়ে জড়িত থাকায় স্টিভেন স্মিথ ও ডেভিড ওয়ার্নারের এক বছরের এবং ক্যামেরন ব্যানক্রফটের ৯ মাসের নিষেধাজ্ঞা বাড়াবাড়ি হয়েছে মনে করেন স্পিন বোলিং গ্রেট শেন ওয়ার্ন। তার মতে অস্ট্রেলিয়ান বিরোধী গোষ্ঠীদের আবেগের বিস্ফোরণে শাস্তির মাত্রা অপরাধের তুলনায় বেশি হয়েছে।

কেপটাউনে ‘পূর্বপরিকল্পিত প্রতারণা’ ওয়ার্নকে ‘হতবাক ও বিরক্ত’ করেছে। এমন অপরাধ ক্ষমার অযোগ্য উল্লেখ করেছেন ডোপ টেস্টে পজিটিভ হওয়ায় ২০০৩ সালে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ থাকা সাবেক এই স্পিনার। তবে শাস্তিটা বেশি হয়ে গেছে মনে করেন তিনি। দ্য হেরাল্ড সান এ এক কলামে বৃহস্পতিবার এসব লিখেছেন ওয়ার্ন। ৪৮ বছর বয়সী বলেছেন, ‘সারা বিশ্বে আবেগের বিস্ফোরণ ঘটেছে এবং অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের খেলা যারা অপছন্দ করে তারা প্রত্যেকে এই সুযোগ নিয়েছে। এমন কিছু দেশ আছে যারা অস্ট্রেলিয়াকে পছন্দ করে না এবং দলের অনেককেই তারা অপছন্দ করে। তাদের জমে থাকার ঘৃণার বিস্ফোরণ হয়েছে এবং এই আবেগের ঝড় উঠেছে।’ বল টেম্পারিংয়ের এত বড় ঘটনা এই প্রথম নয়। ২০১৬ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক ফাফ দু প্লেসির বিরুদ্ধে দুইবার বল টেম্পারিংয়ের অভিযোগ উঠেছিল। তাছাড়া এর সঙ্গে জড়িতদের তালিকায় আছে অনেক বড় বড় নাম। ওইসব ঘটনা উল্লেখ করে ওয়ার্ন বলেছেন, ‘পূর্বপরিকল্পিত প্রতারণার কথা বলা হচ্ছে। কিন্তু বল টেম্পারিংয়ের মাত্রা আছে নাকি এটা কেবলই বল টেম্পারিং? বল উজ্জ্বল করার জন্য আপনার পকেটে মিন্ট রেখে মাঠে নামা কি পূর্বপরিকল্পিত প্রতারণা নাকি শুধু বল টেম্পারিং? বলে সানস্ক্রিণ রাখা তাহলে কী? হয় আপনি বল বিকৃতি করছেন কিংবা নয়। এ কারণে আমি মনে করি না অপরাধের তুলনায় শাস্তিটা মানানসই হয়েছে।’ ইন্টারনেট। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ