ঢাকা, রোববার 1 April 2018, ১৮ চৈত্র ১৪২৪, ১৩ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রংপুরে এডভোকেট রথীশ চন্দ্র ভৌমিক রহস্যজনকভাবে নিখোঁজ

রংপুর অফিস : রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক, রংপুর আইনজীবী সমিতির সহ-সাধারণ সম্পাদক, এডভোকেট রথীশ চন্দ্র ভৌমিক বাবু সোনা  শুক্রবার সকাল থেকে রহস্যজনক ভাবে নিখোঁজ রয়েছেন। পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে শুক্রবার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে তিনি নগরীর তাজহাট বাবু পাড়ার নিজ বাড়ি থেকে এক ব্যক্তির সাথে মটরসাইকেল যোগে বের হয়ে যান। এরপর শনিবার বিকেল পর্যন্ত তার কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি।
বাবু সোনা নিখোঁজের ঘটনায় শনিবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর সাড়ে এগারোটা পর্যন্ত আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও তাজহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা নগরীর তাজহাট এলাকায় রংপুর-কুড়িগ্রাম সড়ক অবোরোধ করে রাখে। ফলে সাড়া দেশের সাথে কুড়িগ্রাম ও লালমনিহাট জেলার সড়ক যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। পরে রংপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মারুফ হোসেন বিকেলের মধ্যে তাকে উদ্ধারের আশ্বাস দিলে তারা অবোরোধ প্রত্যাহার করে নেন। রথীশ চন্দ্র ভৌমিক তাজহাট হাই স্কুলের ম্যানেজিং কমিটিরও সভাপতি। তিনি  জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ পরিষদের ট্রাস্টি, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক,  হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের রংপুর বিভাগের আহ্বায়ক।
নিখোঁজ রথীশ চন্দ্র ভৌমিকের ছোট ভাই সাংবাদিক সুশান্ত ভৌমিক জানান, শুক্রবার রাত ১১টার দিকে পরিবারের পক্ষ থেকে পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে। নিখোঁজের পর থেকে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। তিনি জানান, আমার ভাই ট্রাইব্যুনালের বিশেষ পিপি ছিলেন। তিনি চাঞ্চল্যকর কয়েটি মামলা পরিচালনা করেছেন। তার পরিচালনায় একাধিক মামলায় বেশ কয়েকজন জঙ্গীর ফাঁসিও দিয়েছে আদালত। তিনি অভিযোগ করে সাংবাদিকদের জানান, তার ভাইকে কোন জঙ্গী সংগঠন অপহরণ করতে পারেন। তার ভাইকে দ্রুত উদ্ধারের জন্য তিনি সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছেন । রংপুর কোতোয়ালী থানার ওসি বাবুল মিয়া জানান, এডভোকেট রথীশ চন্দ্র ভৌমিকের সন্ধানে পুলিশ, র‌্যাব ও পিবিআই অভিযান চালাচ্ছে। তার মোবাইল ফোন ট্রাকিং করে দেখা হচ্ছে বলে জানান তিনি। র‌্যাব-১৩ রংপুর জোনের কমান্ডিং অফিসার মেজর আরমিন রাব্বি জানিয়েছেন, আমরা তাকে খুঁজে বের করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। তাকে উদ্ধারে সক্ষম হব বলে আশা করছি। বিষয়টি বেশ গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে।
রথীশ চন্দ্র্র ভৌমিক বাবু সোনা নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় পুলিশ বেশ কয়েকজন সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে আটক করেছে। তবে সংখ্যা জানাতে অস্বীকার করেছে। 
উল্লেখ্য, জাপানি নাগরিক হোসি কুনিও ও মাজারের খাদেম রহমত আলী হত্যা মামলার প্রধান সরকারি আইনজীবী ছিলেন বাবু সোনা। জাপানি নাগরিক হোসি কুনিও ও খাদেম হত্যা মামলা চলার সময় জঙ্গীরা তাকে হুমকি দিয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন রথীশ চন্দ্র ভৌমিক। বিষয়টি পুলিশকে সে সময় জানানো হলেও পুলিশের পক্ষ থেকে কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয়নি বলে তার পরিবারের অভিযোগ।
এদিকে রথীশ চন্দ্র ভৌমিকর মুক্তির দাবিতে নগর জুড়ে বিক্ষোভ সমাবেশ  ও অবরোধ করছে আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, যুবলীগসহ বেশ কিছু সংগঠন। তারা জানিয়েছে, পুলিশ শনিবার বিকেলের মধ্যে তাকে উদ্ধার করার আশ্বস দিয়েছে। এর মধ্যে তাকে উদ্ধার করতে না পারলে বৃহত্তর রংপুরে আন্দোলনের হুমকি দেন তারা।
শনিবার দুপুরে রংপুর প্রেসক্লাবে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ, খৃষ্টান ঐক্য পরিষোদ ও বাংলাদেশ পূজা উদয়াপন পরিষদ রংপুর জেলা ও মহানগর আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে সভাপতি বনমালি পাল তাদের লিখিত বক্তব্যে বলেন, কোন জঙ্গী সংগঠন এই ঘটনার সাথে জড়িত থাকতে পারে।  আগামী নির্বাচনে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করতে তারা এঘটনা ঘটাতে পারে। বাবু সোনাকে জীবিত উদ্ধারের জন্য তারা প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানান। এর আগে প্রেসক্লাবের সামনে এক সমাবেশে মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কান্তি ম-ল বলেন বিষয়টি জেলা প্রশাসনের সক্রিয় নজরদারিতে রয়েছে । সরকার শিগগিরই তাকে উদ্ধারের ব্যাবস্থা করবে।
সাংবাদিক সম্মেলনে বলা হয়, তারা আজ রোববার নগরীতে মানববন্ধন এবং জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে স্মারকলিপি প্রদানের কর্মসূচি  নিয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ, খৃষ্টান ঐক্য পরিষোদ ও বালাদেশ পূজা উদয়াপন পরিষদ রংপুর জেলা ও মহানগর শাখার নেতা অজয় প্রসাদ বাবন, শুভ রঞ্জন দেব, সুব্রত সরকার, বাবলু চন্দ্র প্রমুখ। একই দাবিতে বিকেলে রংপুর টাউন হল চত্বরে সংবাদ সম্মেলন করেছে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট রংপুর শাখা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ