ঢাকা, রোববার 1 April 2018, ১৮ চৈত্র ১৪২৪, ১৩ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

স্মিথ-ওয়ার্নারদের প্রতি সমবেদনা বাড়ছে

স্পোর্টস ডেস্ক : বল টেম্পারিং সব সময়ই ক্রিকেটের চেতনাবিরোধী কাজ হিসেবে চিহ্নিত হয়ে আসছে। তবে স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরুন ব্যানক্রফট যে শাস্তি পেয়েছেন সেটি বিরল। এর আগে একই অপরধার করে সামান্য শাস্তিতেই পার পেয়েছেন সবাই। এ কারণে আরো বেশি সমবেদনা পাচ্ছেন স্মিথ-ওয়ার্নাররা। স্মিথের জন্য সহানুভূতি আছে অনেক ক্রিকেট ব্যক্তিত্বেরই। চোখের জলে ভেজা সংবাদ সম্মেলনের পর অনেকেই স্মিথের পাশে। শাস্তিটাও বেশি হয়ে গেছে বলছেন কেউ কেউ। শত বছরের পুরোনো অ্যাশেজ শুরুর আগে দুই দেশের সংবাদমাধ্যম অনুসরণ করলে বোঝা যায়, ক্রিকেট নিয়ে অস্ট্রেলিয়া-ইংল্যান্ডের রেষারেষী কী প্রবল। কিন্তু বিস্ময়কর হলেও সত্য, স্টিভেন স্মিথের সহমর্মিতায় ইংলিশরা। গত বৃহস্পতিবার দ্য টাইমস পত্রিকার খেলার পাতার একটা শিরোনাম: ‘প্রিয় অস্ট্রেলিয়া, অনেক হয়েছে। এটা শুধু বল টেম্পারিংই ছিল, খুন নয়!’ আসলেই তো। কেপটাউন টেস্টের বল টেম্পারিং কেলেঙ্কারির পর স্মিথের সঙ্গে যা যা হয়েছে, মনে হতে পারে তিনি বুঝি খুনই করেছেন। স্মিথ -ওয়ার্নার চোখের জলে ভেজা সংবাদ সম্মেলনের পর এখন অনেকেই তাদের পাশে দাঁড়িয়েছেন। যেভাবে অধিনায়ক স্মিথ হিসেবে পুরো ঘটনার দায় নিজের কাঁধে নিয়েছেন, অনুশোচনা-অনুতাপের কথা বলেছেন। সেটাই ক্রিকেট ইতিহাসে বিড়ল ঘটনা! স্মিথ ওয়ার্নার আসলে শুধু নিজেরাই কাঁদেননি, অনেককেই কাঁদিয়েছেন। সে কান্না ইংলিশ সংবাদমাধ্যমের পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ান সংবাদমাধ্যমকেও স্পর্শ করেছে। দুই দিন আগেও যেখানে তার বিষোদগার চলছিল সমানে, সেখানে এখন সমবেদনার সুর। দ্য অস্ট্রেলিয়ান-এর এক কলামেই লেখা হয়, ‘আমরা স্টিভেন ডেভেরক্স স্মিথকে নিয়ে গর্বিত। মাঝে কিছু সময়ের জন্য আমাদের মনে হয়েছিল আমরা ভুল। আমরা ক্রোধান্বিত ছিলাম, প্রতারিত বোধ করছিলাম, হতবুদ্ধি হয়ে গিয়েছিলাম। কিন্তু যাদের তিনি হতাশায় ডুবিয়েছিলেন, তাকে দেখে আবারও মনে হয়েছে, আমরা তাকে নিয়ে গর্ব করে ভুল করিনি।’ স্মিথদের শাস্তিটা যে বেশি হয়ে গেছে, সেটা আগেই বলেছেন কিংবদন্তি স্পিনার শেন ওয়ার্ন। অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটকে যারা ঘৃণা করে, তারাই এ ঘটনাটাকে এত বড় করে তুলেছে বলে দাবি করেছেন তিনি। সাবেক ইংলিশ ব্যাটসম্যান মার্ক বুচার, বলেন ‘স্মিথের সংবাদ সম্মেলনটা দেখলাম। আশা করি, এখন সবাই “ন্যায্য বিচার” পেয়ে খুশি!’ ভারতেরই স্পিনার হরভজন সিং তো স্মিথ-ওয়ার্নারদের দেয়া ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার এ শাস্তিকে ‘হাস্যকর’ মনে করেন। তাদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন শচীন টেন্ডুলকার ও রোহিত শর্মারা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ