ঢাকা, সোমবার 2 April 2018, ১৯ চৈত্র ১৪২৪, ১৪ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

জকি ফুটবল টুর্নামেন্টে স্বাগতিক হংকংকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ

স্পোর্টস রিপোর্টার : হংকংয়ে জকি ক্লাব গার্লস আমন্ত্রণমূলক আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্ট অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৫ মহিলা ফুটবল দল। গতকাল শেষ ম্যাচে স্বাগতিক হংকং অনূর্ধ্ব-১৫ মহিলা ফুটবল দলকে ৬-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে চারজাতি ফুটবল টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ। লিগ পদ্ধতির এই টুর্নামেন্টে তিন ম্যাচের ৩টিতেই জিতে পূর্ণ ৯ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট  টেবিলের শীর্ষে থেকে শিরোপা জয় নিশ্চিত করে গোলাম রাব্বানী ছোটনের শিষ্যরা। শেষ ম্যাচে হংকংয়ের সঙ্গে ড্র করলেই শিরোপা নিশ্চিত হতো বাংলাদেশের। কিন্তু মারিয়া-আঁখিরা স্বাগতিকদের ৬-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে শিরোপা জিতে নিয়েছে। তহুরা খাতুনের হ্যাটট্রিক বড় ব্যবধানে জয় পেতে সাহায্য করেছে লাল-সবুজ দলকে। হংকংয়ের সিউ সাই ওয়ান স্পোর্টস মাঠে গতকাল ফেভারিট হিসেবে মাঠে নেমেছিল বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষ হংকংকে নিজেদের মাঠে ম্যাচের শুরু থেকে কোনঠাসা করে রাখে গোলাম রব্বানী ছোটনের দল। তহুরা খাতুন ৪ মিনিটে দলকে প্রথম গোল করে এগিয়ে  নেন। ৪০ মিনিটে তার দ্বিতীয় গোলের আগে সাজেদা খাতুন আরও একটি গোল করেন ৩৯ মিনিটে। প্রথমার্ধে তিন গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় বাংলাদেশ। শেষ ৪৫ মিনিটও দাপট ছিল অব্যাহত। শামসুন্নাহার ৬৭ ও আনুচিং মারমা ৭২ মিনিটে গোল করে স্কোর লাইন করেন ৫-০।  আর ফরোয়ার্ড তহুরা খাতুন ৭৪ মিনিটে দলের হয়ে শেষ পেরেকটি ঠুকে দিয়ে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন। এ নিয়ে এই ফরোয়ার্ড এবারের আসরে দেখা পেলেন ৮টি গোলের। যা দলের হয়ে সর্বোচ্চ। জকি কাপে মালয়েশিয়াকে ১০-১ ও ইরানকে ৮-১ গোলে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। শেষ ম্যাচে হংকংকে উড়িয়ে জয়ের ধারা অব্যাহত রাখার পাশাপাশি ট্রফিও জিতে নিল! এ নিয়ে মেয়েদের ঝুলিতে পাঁচটি চ্যাম্পিয়নশিপ শিরোপা যোগ হল। চার জাতির এই আসর ছিল লিগ পদ্ধতির। বাংলাদেশ, মালয়েশিয়া, ইরান ও হংকং প্রত্যেকে একে অপেরর মুখোমুখি হয়েছে একবার করে। ৩ ম্যাচে পূর্ন ৯ পয়েন্ট নিয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ। গেল ডিসেম্বরে অনূর্ধ্ব-১৫ সাফেও অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ। সেই একই দলকে হংকংয়ের এই আসরে পাঠিয়েছিল বাফুফে। ২০১৫ সালে নেপালে এএফসি কাপ অনূর্ধ্ব-১৪ মেয়েদের ফুটবলে আঞ্চলিক পর্বে প্রথমবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল বাংলাদেশ। ২০১৬ সালে তাজিকিস্তানেও এই ধারা অব্যাহত ছিল। ২০১৬ সালের শেষের দিকে ঢাকায় এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ ফুটবলে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল। ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবলে ভারতকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় বাংলাদেশ। আর এবার স্বাগতিক হংকংয়ের আমন্ত্রণমূলক কোন আন্তর্জাতিক আসরে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করলো বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ দল :

গোলরক্ষক : মাহমুদ আক্তার ও রূপনা চাকমা।

রক্ষণভাগ : আখি খাতুন, নিলুফার ইয়াসমিন নীলা, আনাই মগিনি, নাজমা, দীপা খাতুন, রুমি আক্তার, রুনা আক্তার।

মিডফিল্ড : মারিয়া মান্ডা, মনিকা চাকমা, লাবনি আক্তার, তহুরা খাতুন, মুন্নি আক্তার, শামসুন্নাহার,  সোহাগী কিসকু।

ফরোয়ার্ড : ঋতুপর্ণা চাকমা, সাজেদা খাতুন, অনুচিং মোগিনি ও শামসুন্নাহার।

 কোচ :  গোলাম রাব্বানী ছোটন।

সহকারী কোচ : মাহবুবুর রহমান লিটু ও মাহমুদা আক্তার।

ম্যানেজার : আমিরুল ইসলাম

টিম অফিসিয়াল : ইমরান  হোসেন তুষার।

টেকনিক্যাল এন্ড স্ট্রাটেজিক ডিরেক্টর : পল থমাস স্মলি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ