ঢাকা, বৃহস্পতিবার 5 April 2018, ২২ চৈত্র ১৪২৪, ১৭ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

খালেদা জিয়ার কারামুক্তি  নিয়ে ষড়যন্ত্র করলে বিএনপি  হাত গুটিয়ে বসে থাকবেনা ----- রিজভী

স্টাফ রিপোর্টার: দলের চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে তার প্রাপ্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হচ্ছে অভিযোগ করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর অভিযোগ, খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসকদেরকে সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে বাধা দেওয়া হচ্ছে। তিনি বলেন, তার প্রকৃত শারীরিক অবস্থা এখন কেমন, তা জানতে পারছি না আমরা। তাকে হাইকোর্ট জামিন দিয়েছেন, কিন্তু সরকার প্রধানের নির্দেশে তা স্থগিত করা মানবধিকারের চরম লঙ্ঘন। অবিলম্বে আমরা তার মুক্তি চাই। গতকাল বুধবার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন ।

খালেদা জিয়ার বয়স এখন ৭৩ বছর– এ তথ্য জানিয়ে রিজভী বলেন, চুরিবিদ্যাই আওয়ামী লীগের একমাত্র অর্জন। এসবের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী হওয়ায় খালেদা জিয়াকে মিথ্যা, জালিয়াতি ও জাল নথির মাধ্যমে বানোয়াট মামলায় সাজা দিয়ে কারাবন্দী করে রাখা হয়েছে। সরকারের উদ্দেশে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, দেশনেত্রীর কারামুক্তি নিয়ে নিষ্ঠুর ষড়যন্ত্র বন্ধ করুন। আর যদি না করেন তাহলে কেউ হাত গুটিয়ে বসে থাকবে না।

জিডিপি প্রবৃদ্ধির সরকারি ঘোষণাকে চাপাবাজি বলে মনে করেন রিজভী। তার ভাষ্য, বর্তমান সরকারের সীমাহীন লুটপাটের কারণে আর্থিক খাত ধ্বংস হয়ে গেছে। ব্যাংকে স্বাভাবিক লেনদেনে নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ কমতে কমতে এখন সর্বনিম্ন পর্যায়ে। বিদেশী রেমিটেন্সে ধস নেমেছে। দুঃশাসনের কবলে পড়ে দেশী-বিদেশী বিনিয়োগে স্থবিরতা বিরাজ করছে। উন্নয়নের নামে দেশজুড়ে হরিলুট চলছে।

রিজভী বলেন, সারাদেশের সড়ক-মহাসড়ক, ব্রিজ-কালভার্টের বেহাল দশা। খুলনা-যশোর মহাসড়কের খানাখন্দ বেহাল দশায় সংস্কারের দাবিতে ১৫ জেলায় পরিবহন ধর্মঘট চলছে। তিনি বলেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম, ঢাকা-উত্তরাঞ্চল সড়কে যানজটে পড়ে মানুষের দুর্ভোগের সীমা নেই। গ্লোবাল কম্পিটিটিভ ইনডেক্স বলছে, এশিয়ার মধ্যে নেপালের পরেই সবচেয়ে খারাপ রাস্তা বাংলাদেশে। অন্যান্য দেশের তুলনায় দ্বিগুণ-তিন গুণ অর্থ ব্যয়ে রাস্তা নির্মাণ করা হলেও কয়েক বছরের মাথায় ভয়াবহ দুর্গতি হচ্ছে রাস্তাগুলোর। দ্রুত পুননির্মাণের প্রয়োজন পড়ছে। অর্থাৎ আবারও নতুন বাজেট, নতুন ভাগ-বাটোয়ারা ও নতুন চুরির সুযোগ সৃষ্টি করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ভরাডুবি হবে তাই পরিকল্পিতভাবে বেগম খালেদা জিয়াকে বন্দী করে রাখা হয়েছে। কিন্তু বেগম জিয়াকে বন্দী রেখে, নেতা-কর্মীদের ওপর জুলুম নির্যাতন করে স্বৈরাচারী সরকারের শেষ রক্ষা হবে না। আবারও আমরা দ্ব্যর্থহীন কন্ঠে বলতে চাই-বেগম খালেদা জিয়াকে ছাড়া দেশে জাতীয় নির্বাচন হবে না, হতে দেয়া হবে না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ