ঢাকা, বৃহস্পতিবার 5 April 2018, ২২ চৈত্র ১৪২৪, ১৭ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রূপগঞ্জে শিক্ষার্থীসহ একই পরিবারের তিনজনকে লাঠিপেটা, ভাংচুর

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা: নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে স্কুল শিক্ষার্থীকে ইভটিজিং এর প্রতিবাদ করায় ইভটিজার মনিরসহ তার লোকজন একই পরিবারের তিনজনকে লাঠিপেটা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এছাড়া বাড়িঘর ভাংচুর ও শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালিয়েছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

সোমবার সকালে উপজেলার চনপাড়া পূর্ণবাসন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত ইয়াছমিন বেগম জানান, একই এলাকার মনির হোসেন বেশ কিছুদিন ধরে তার মেয়ে আখিকে (১২) স্কুলে আসা যাওয়ার সময় বিভিন্ন ধরনের কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছে। ইয়াছমিন বেগম বিষয়টি এলাকা গণ্যমান্য ব্যাক্তিদের জানান। এলাকার গণ্যমান্য ব্যাক্তিদের জানানোয় ক্ষিপ্ত হয়ে ইভটিজার মনির হোসেন, হাছিনা, পপিসহ অজ্ঞাত ৪/৫ দেশীয় অস্ত্র শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে ইয়াছমিনের বাড়িতে প্রবেশ করে বাড়িঘর ভাংচুর শুরু করেন। 

ভাংচুরে বাঁধা প্রদান করায় মনির হোসেনসহ তার লোকজন ইয়াছমিন বেগম, স্বামী সাজিবুর রহমান ও মেয়ে আখিকে এলোপাথারিভাবে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন। এক পর্যায়ে হামলাকারীরা ইয়াছমিন বেগমকে শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালায়। এসময় হামলাকারীরা বাড়িঘর ভাংচুর করে ১ লাখ ৩৫ হাজার টাকার ক্ষতিসাধন করেন। 

পরে তাদের ডাক-চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। 

এ ব্যাপারে ইয়াছমিন বেগম বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। 

এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মনির জানান, এ ধরনের একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ