ঢাকা, শনিবার 7 April 2018, ২৪ চৈত্র ১৪২৪, ১৯ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মেয়াদের আগেই সংসদ ভেঙে দিলেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী

সংগ্রাম ডেস্ক : ক্ষমতার পাঁচ বছর মেয়াদ শেষ হওয়ার দুই মাস আগেই সংসদ ভেঙে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক। জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে গতকাল শুক্রবার রাষ্ট্র পরিচালিত টেলিভিশনে এই ঘোষণা দেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স বলছে, এক বিবৃতে নাজিব জানিয়েছেন, তিনি সংসদ ভাঙার অনুমোদনের জন্য রাজা সুলতান মুহাম্মদের সঙ্গে দেখা করেছেন। তিনি বলেন, ‘আগামীকাল শনিবার থেকে সংসদ ভেঙে দেওয়ার জন্য নিন্দেশ দিয়েছেন রাজা।’

সংসদ বিলুপ্তির ৬০ দিনের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে হবে। দেশটির নির্বাচন কমিশন এক সপ্তাহের মধ্যেই নির্বাচনের দিন ঘোষণা দেবেন।

এর আগে ২০১৫ সালে সৌদি রাজপরিবারের কাছ থেকে পাওয়া ৬৮ কোটি ১০ লাখ ডলার ব্যক্তি খাতে খরচের অভিযোগ উঠেছিল প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের বিরুদ্ধে। সেই সময় তাঁর পদত্যাগের জোর দাবি ওঠে। সেই অভিযোগ থেকে যদিও তিনি রেহাই পেয়েছিলেন।

সে সময় অ্যাটর্নি জেনারেলকে উদ্ধৃত করে আলজাজিরার খবরে বলা হয়, ‘প্রাপ্ত তথ্য-উপাত্ত নিয়ে সন্তুষ্ট। এ থেকে দেখা যায়, অর্থগুলো উপঢৌকন বা ঘুষ হিসেবে দেওয়া হয়নি।’ তিনি বলেন, ‘এ অর্থ প্রধানমন্ত্রী নাজিবকে কেন দেওয়া হয়েছিল, তার কোনো কারণ খুঁজে পাওয়া যায়নি। এটা হয়েছে রাজপরিবার এবং তাঁর মধ্যকার সম্পর্কের কারণে,’ যোগ করেন অ্যাটর্নি জেনারেল।

১৯৫৭ সালে মালয়েশিয়া স্বাধীন হওয়ার পর থেকেই রাজনৈতিক জোট ইউনাইটেড মালয় ন্যাশনাল অর্গানাইজেশন (ইউআমএনও) ক্ষমতায় রয়েছে। এখন সেই জোটের নেতৃত্বে রয়েছেন নাজিব রাজাক।

এদিকে নাজিব রাজাককে তাঁর রাজনৈতিক মিত্র ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদের সঙ্গে নির্বাচনে লড়তে হবে। তবে অনেকেই প্রত্যাশা করছেন, নাজিব ক্ষমতা ধরে রাখতে পারবেন। এর কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে, মাহাথির মোহাম্মদের জোট ও প্যান মালয়েশিয়া ইসলামিক পার্টির (পাস) মধ্যে ভোট ভাগাভাগি হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ