ঢাকা, রোববার 8 April 2018, ২৫ চৈত্র ১৪২৪, ২০ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

আন্দামান সাগরে আরও রোহিঙ্গা বোঝাই নৌকা থাকার আশঙ্কা জাতিসংঘের

৭ এপ্রিল, ওয়াশিংটন পোস্ট : আন্দামান সাগরে আরও রোহিঙ্গা বোঝাই নৌকা থাকতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর। শুক্রবার এ বিবৃতিতে সংস্থাটির এই সতর্কতা দেওয়ার দিনেই ইন্দোনেশিয়ার আচেহ প্রদেশ থেকে সাগরে ভাসতে থাকা অবস্থায় পাঁচ রোহিঙ্গাকে উদ্ধার করা হয়েছে। মার্কিন সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, অসমর্থিত সূত্রের বরাতে ইউএনএইচসিআর জানিয়েছে খাবার ও পানি সংকটে থাকা বেশ কয়েকটি রোহিঙ্গা বোঝাই নৌকা সাগরে ভাসছে।

গত বছরের ২৫ আগস্ট রাখাইনের কয়েকটি নিরাপত্তা চৌকিতে হামলার পর রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে পূর্ব-পরিকল্পিত ও কাঠামোবদ্ধ সহিংসতা জোরালো করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। হত্যা-ধর্ষণসহ বিভিন্ন ধারার সহিংসতা ও নিপীড়ন থেকে বাঁচতে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর প্রায় ৭ লাখ মানুষ।

মিয়ানমারে জাতিগত নিধনের শিকার রোহিঙ্গাদের বড় অংশটি বাংলাদেশে আশ্রয় নিলেও কারও কারও প্রচেষ্টা থাকে থাইল্যান্ড, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়াসহ বিভিন্ন দেশে পাড়ি দেওয়ার। আসন্ন বর্ষা মৌসুমে বাংলাদেশের রোহিঙ্গা শিবির থেকেও অনেকে সাগর পাড়ি দিয়ে অন্য দেশে পৌঁছানোর চেষ্টা করতে পারে বলেও সতর্ক করে দিয়েছে বিভিন্ন দাতা সংস্থা। শুক্রবার ইন্দোনেশিয়ায় পাঁচ রোহিঙ্গাকে উদ্ধারের দিনেই অসমর্থিত মিডিয়া সংবাদকে উদ্ধৃত করে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, আরও পাঁচ রোহিঙ্গার সাগরেই মৃত্যু হয়েছে। তবে নৌকাটি কোন দেশ থেকে রওনা করেছে তা জানা যায়নি।একইদিনের বিবৃতিতে জাতিসংঘের সংস্থাটি বলেছে, সাগরে ভাসতে থাকা রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা নিয়ে আমরা উদ্বিগ্ন। আশা করছি তাদের দ্রুত উদ্ধার করা হবে। সম্প্রতি আরেক বিবৃতিতে ইউএনএইচসিআর জানায় , চলতি বছরে রোহিঙ্গা বোঝাই বেশ কয়েকটি নৌকা মিয়ানমার উপকূল ছাড়তে পারে। গত মঙ্গলবার মালয়েশিয়ার উপকূল থেকে ৫৬ জন রোহিঙ্গা বোঝাই একটি নৌকা উদ্ধার করা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ