ঢাকা, রোববার 8 April 2018, ২৫ চৈত্র ১৪২৪, ২০ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সুন্দরগঞ্জের চরাঞ্চলে আলুর বাম্পার ফলন

গাইবান্ধা সংবাদদাতা: সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় চরাঞ্চলে আলুর বাম্পার ফলন হলেও দরপতন হওয়ায় আলু চাষীরা হতাশায় ভুগছেন। জানা গেছে, বন্যার ক্ষয়ক্ষতি পুষিয়ে নেয়ার লক্ষ্যে ও গত বছর আলুর ভালো দাম পাওয়ায় চরাঞ্চলের কৃষকরা অধিক পরিমান জমিতে আলু চাষ করেছেন। আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় ও সঠিক সময়ে সার, কীটনাশক ব্যবহার করায় ও উপজেলা কৃষি বিভাগের সার্বিক পরামর্শ পাওয়ায় তুলনামুলক ভাবে আলুর বাম্পার ফলন হয়েছে। তিনি জানায়, আলুর বাজারে যে দরপতন দেখা দিয়েছে তাতে করে আমার ৩০ বিঘা জমিতে উৎপাদন খরচের অর্ধেকই উঠছে না। আমি আলু নিয়ে বিপাকে পড়েছি। উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানা গেছে, এবছর এ উপজেলায় ৭’শ ৬০ হেক্টর জমিতে আলু চাষ হয়েছে। যা গত বছরের তুলনায় চরাঞ্চলে বেশি। এব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবীদ রাশেদুল ইসলাম জানান, আলুর বাম্পার ফলন হলেও বাজারে দরপতন ঘটায় চাষীরা লোকসানের মুখে পড়েছেন। তবে আলুগুলো সংরক্ষণ করতে পারলে হয়তো আলু চাষী

তিনি জানায়, আলুর বাজারে যে দরপতন দেখা দিয়েছে তাতে করে আমার ৩০ বিঘা জমিতে উৎপাদন খরচের অর্ধেকই উঠছে না। আমি আলু নিয়ে বিপাকে পড়েছি। উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানা গেছে, এবছর এ উপজেলায় ৭’শ ৬০ হেক্টর জমিতে আলু চাষ হয়েছে। যা গত বছরের তুলনায় চরাঞ্চলে বেশি। এব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবীদ রাশেদুল ইসলাম জানান, আলুর বাম্পার ফলন হলেও বাজারে দরপতন ঘটায় চাষীরা লোকসানের মুখে পড়েছেন। তবে আলুগুলো সংরক্ষণ করতে পারলে হয়তো আলু চাষী

তিনি জানায়, আলুর বাজারে যে দরপতন দেখা দিয়েছে তাতে করে আমার ৩০ বিঘা জমিতে উৎপাদন খরচের অর্ধেকই উঠছে না। আমি আলু নিয়ে বিপাকে পড়েছি। উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানা গেছে, এবছর এ উপজেলায় ৭’শ ৬০ হেক্টর জমিতে আলু চাষ হয়েছে। যা গত বছরের তুলনায় চরাঞ্চলে বেশি। এব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবীদ রাশেদুল ইসলাম জানান, আলুর বাম্পার ফলন হলেও বাজারে দরপতন ঘটায় চাষীরা লোকসানের মুখে পড়েছেন। তবে আলুগুলো সংরক্ষণ করতে পারলে হয়তো আলু চাষী তিনি জানায়, আলুর বাজারে যে দরপতন দেখা দিয়েছে তাতে করে আমার ৩০ বিঘা জমিতে উৎপাদন খরচের অর্ধেকই উঠছে না। আমি আলু নিয়ে বিপাকে পড়েছি। উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানা গেছে, এবছর এ উপজেলায় ৭’শ ৬০ হেক্টর জমিতে আলু চাষ হয়েছে। যা গত বছরের তুলনায় চরাঞ্চলে বেশি। এব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবীদ রাশেদুল ইসলাম জানান, আলুর বাম্পার ফলন হলেও বাজারে দরপতন ঘটায় চাষীরা লোকসানের মুখে পড়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ