ঢাকা, রোববার 8 April 2018, ২৫ চৈত্র ১৪২৪, ২০ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

দেশে উন্নয়ন নয় দুর্নীতির গণজোয়ার চলছে

চট্টগ্রাম ব্যুরো : জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান সাবেক  রাষ্ট্রপতি  হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, আজকে দেশের মানুষ শান্তিতে নেই, এই অরাজক পরিস্থিতি থেকে মুক্তি চাই। গরিব, দুঃখি, মেহনতি মানুষ খুব কষ্টে দিনাতিপাত করছে।

তিনি বলেন, চালের দাম ৬০-৭০ টাকা, মানুষের ক্রয়ের সামর্থ নাই। আমার আমলে দেশের মানুষ শান্তিতে ছিল, খুন-রাহাজানি ছিল না- চাঁদাবাজি ছিলনা। আমার সময় ইয়াবা ছিল না। এখন চায়ের দোকানেও ইয়াবা পাওয়া যায়। দেশের নতুন প্রজন্ম ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে, তাদেরকে বাঁচাতে হবে।

এরশাদ বলেন, আজকে দেশে নাকি উন্নয়নের গণজোয়ার চলছে, বর্তমানে উন্নয়ন হচ্ছে না- দুর্নীতির গণজোয়ার চলছে। আপনারা দেখুন ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম আসতে আগে পাঁচ ঘণ্টা লাগতো, এখন লাগে পনের ঘণ্টা সময়। যদি উন্নয়ন হয় এতো খানা-খন্দক, রাস্তা-ঘাট ভাঙা কেন।

তিনি গতকাল শনিবার চট্টগ্রামের লালদীঘি ময়দানে জাতীয় পার্টি ও বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের নেতৃত্বাধীন সম্মিলিত জাতীয় জোটের আয়োজনে  মহাসমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রদানকালে একথাগুলো বলেন। 

 মহাসমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সম্মিলিত জাতীয় জোট নেতা ও বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চেয়ারম্যান আল্লামা এম এ মান্নান। মহাসমাবেশে বক্তব্য দেন- জাতীয় পার্টির মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার এম.পি, বন ও পরিবেশ মন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এম.পি, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু এম.পি, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট মহাসচিব মাওলানা এম এ মতিন, সাবেক মেয়র ও জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম মাহমুদুল ইসলাম চৌধুরী,   জাতীয় পার্টি চট্টগ্রাম নগর আহ্বায়ক সোলায়মান আলম শেঠ, জাপা প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক মাসুদা এম রশিদ এম.পি, বিএনএ চেয়ারম্যান সেকান্দর আলী মনি, জাপা প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়, মেজর (অব:) খালেদ আক্তার, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের মহাসমাবেশ সমন্বয় কমিটির আহ্বায়ক ও জোটের কেন্দ্রীয় লিয়াজোঁ কমিটির সদস্য স উ ম আবদুস সামাদ, ইসলামী ফ্রন্টের প্রেসিডিয়াম সদস্য আল্লামা মছিহুদ্দৌলা,   জাপা ভাইস চেয়ারম্যান হাজী মো: ইলিয়াছ এম.পি, মাহজাবীন মোর্শেদ এম.পি, ইসলামী ফ্রন্ট যুগ্ম-মহাসচিব অধ্যক্ষ জাফর মঈনুদ্দীন,  প্রমুখ।  

এরশাদ বলেন, আমাকে দেশের কিছু মানুষ স্বৈরাচারী বলেন, অথচ বর্তমান সরকারকে আন্তর্জাতিকভাবে স্বৈরাচারী ঘোষণা করা হয়েছে। আজকে লালদীঘি ময়দানে মোমবাতির গণজোয়ার দেখে আমি উজ্জ্বীবিত হয়েছি। ইনশাল্লাহ্ মোমবাতির আলো নিয়ে জাতীয় পার্টি-ইসলামী ফ্রন্ট রাষ্ট্র ক্ষমতায় যাবে। 

 তিনি ইসলামী ফ্রন্ট চেয়ারম্যান আল্লামা এম এ মান্নান, মহাসচিব এম এ মতিন ও জিয়াউদ্দিন বাবলু এম.পির হাত ধরে  আগামীতে তাদেরকে সংসদে পাঠানোর জন্য জনতাকে হাত তুলে ওয়াদাবদ্ধ করেন। আমার সময় যে উন্নয়নের গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছিল সেটি চট্টগ্রামে আবার হবে ইনশাল্লাহ্।

সভাপতির বক্তব্যে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট চেয়ারম্যান আল্লামা এম এ মান্নান বলেন, জাতির মেরুদন্ড শিক্ষাব্যবস্থাকে দুর্বল করে দিতে আজ নানামুখী দুরভিসন্ধি চলছে। অযোগ্য, অথর্ব মূলধারার  থেকে বিচ্ছিন্ন কওমি শিক্ষাব্যবস্থার সনদের সরকারি স্বীকৃতি একটি আত্মঘাতি সিদ্ধান্ত। তা অচিরেই টের পাওয়া যাবে।

সম্মিলিত জাতীয় জোটের প্রধান মুখপাত্র ও জাতীয় পার্টির মহাসচিব এ.বি.এম রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, চট্টলবাসী প্রমাণ করেছে, তারা পরিবর্তন চায়। পরিবর্তনের জন্য সম্মিলিত জাতীয় জোট।    

সম্মিলিত জাতীয় জোটের শীর্ষ নেতা ও বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট মহাসচিব মাওলানা এম এ মতিন   বলেন, দেশে আজ গণতন্ত্র চর্চা বাধাগ্রস্ত হচ্ছে। প্রতিহিংসার রাজনীতি ও বিভেদের রাজনীতির বলি হচ্ছে দেশবাসী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ