ঢাকা, রোববার 8 April 2018, ২৫ চৈত্র ১৪২৪, ২০ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সরিষাবাড়ীতে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর সংখ্যা বেশী হওয়ায় বিএনপির অবস্থান সুদৃঢ়

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) সংবাদদাতা ডা. মিজানুর রহমান : জামালপুর জেলার সরিষাবাড়ী উপজেলার পৌরসভা ও আটটি ইউনিয়ন এবং জামালপুর সদর উপজেলার দুটি ইউনিয়ন নিয়ে জাতীয় সংসদের ১৪১ নম্বর নির্বাচনী এলাকা। অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক বিবেচনায় জামালপুর-৪ আসনটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং বহুল আলোচিত। এ আসনটি কখনো আওয়ামী লীগের, কখনো বিএনপির এবং জাতীয় পার্টির কবজায় ছিল। তবে সর্বশেষ সংসদ নির্বাচনে আসনটি পেয়ে যায় জাতীয় পার্টি।

আগামী সংসদ নির্বাচনে এ আসনে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চান অন্তত আটজন। অপরদিকে বিএনপির সম্ভাব্য প্রার্থী তালিকায় আছেন একজন। জাতীয় পার্টির বর্তমান সংসদ সদস্য মামুনুর রশিদ জোয়ার্দার ছাড়াও আরো এক নেতা এ আসন থেকে দলের মনোনয়ন চান। জায়ামাত, বিএনএফও এ আসনে প্রার্থী দেবে বলে দলীয় সূত্রে জানা যায়।

আওয়ামী লীগ : এ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্যবিষয়ক সম্পাদক ডা. মুরাদ হাসানও আগামী নির্বাচনে দলের মনোনয়ন চান। সংসদ সদস্য থাকাকালে তিনি এলাকায় অনেক উন্নয়ন করেছেন। রাজনীতিতে সক্রিয় থাকার পাশাপাশি তিনি দুর্যোগের সময় এলাকার দরিদ্রদের জন্য বিনা মূল্যে চিকিৎসাসেবা দিয়ে যাচ্ছেন। তার পিতা মুক্তিযুদ্ধের শীর্ষস্থানীয় সংগঠক প্রয়াত এডভোকেট মতিয়র রহমান তালুকদার জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন। সে কারণে জেলায় ডা. মুরাদ হাসানের জনপ্রিয়তা রয়েছে।

সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় পানিসম্পদবিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মাহবুবুর রহমান হেলালও মনোনয়ন প্রত্যাশায় দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন। তার পিতা মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক আব্দুল মালেক পাকিস্তান আমলে ১৯৭০ সালে এবং স্বাধীনতার পর ১৯৭৩ সালে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। তিনি একাধারে ৪৭ বছর সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন। এক সাক্ষা॥কারে মাহবুবুর রহমান হেলাল বলেন, দল আমাকে মনোনয়ন দিলে এ আসনে আওয়ামী লীগের জয় নিশ্চিত করতে পারব। পাশাপাশি দলীয় আদর্শ সমুন্নত রাখা, বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা বজায় রেখে বেকারত্ব দূরীকরণ এবং সন্ত্রাস, মাদক ও দুর্নীতিমুক্ত এলাকা গড়ে তুলতে সক্ষম হব বলে আশা রাখছি।

আওয়ামী লীগের আরেক সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে সক্রিয় রয়েছেন সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি তেজগাঁও কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুর রশিদ। অধ্যক্ষ রশিদ বলেন, সরিষাবাড়ী উপজেলায় আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত থাকার পাশাপাশি আমি দলের তেজগাঁও থানা শাখার সভাপতির দায়িত্ব পালন করছি। এ ছাড়া বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও শিক্ষক সংগঠনে দায়িত্ব পালন করছেন বলে তিনি জানান।

স্থানীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছানোয়ার হোসেন বাদশা দীর্ঘ ৪০ বছরের রাজনীতিতে সব সময় এলাকায় অবস্থান করেছেন। তিনি বলেন, দলীয় নেতাকর্মীদের সুখে-দুঃখে আমি বরাবরই পাশে দাঁড়িয়েছি। দলের অভ্যন্তরীণ বিরোধ নিরসনে সর্বদাই চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আমি বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ করেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করতে চাই।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সম্ভাব্য প্রার্থীদের মধ্যে ছানোয়ার হোসেন  বাদশা, ডা. মুরাদ হাসান, অধ্যক্ষ আব্দুর রশিদ ও ইঞ্জিনিয়ার মাহবুবুর রহমান হেলাল এলাকায় ব্যাপক গণসংযোগ চালিয়ে যাচ্ছেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, এলাকায় অবস্থান কর্তৃত্ব বজায় রাখতে অধ্যক্ষ আব্দুর রশিদ ও ডা. মুরাদ হাসানের সমর্থকদের মধ্যে তুমুল বিরোধ চলছে। 

এই চারজন ছাড়াও আওয়ামী লীগের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের তালিকায় আছেন সাবেক ধর্মপ্রতিমন্ত্রী মাওলানা নুরুল ইসলাম, যিনি বিএনপির সাবেক মহাসচিব ও এলজিইডি মন্ত্রী ব্যারিস্টার আব্দুস সালাম তালুকদারকে পরাজিত করে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে পরবর্তীতে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী হিসেবে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া আরো দু’জন সংসদ সদস্য পদে নির্বাচনে অংশ গ্রহণের পূর্বাভাস জানা যায়, তারা হলেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি অধ্যক্ষ লুৎফর রহমান, আমেরিকাপ্রবাসী আব্দুস সামাদ আজাদ তারা ও জিল্লুর রহমান।

বিএনপি : সরিষাবাড়ীতে বিএনপির সাবেক এলজিইডি মন্ত্রী মহাসচিব মরহুম ব্যারিস্টার আব্দুস সালাম তালুকদারের ব্যক্তিগত সুনাম এবং তার পারিবারিক ঐতিহ্যই হচ্ছে দলটির স্থানীয় রাজনীতির শক্ত ভিত। ২০০১ সালে সালাম তালুকদারের উত্তরসূরি হিসেবে তার ভাতিজা মেজর জেনারেল (অব.) আন্ওয়ারুল কবির তালুকদার বিএনপির টিকিটে নির্বাচিত হন। তিনি অর্থ প্রতিমন্ত্রী এবং পরে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী হিসেবেও সততার সাথে দায়িত্ব পালন করেন।  

তারই ছোট ভাই বর্তমানে জামালপুর জেলা বিএনপির সভাপতি ও সরিষাবাড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান। ফরিদুল কবির তালুকদার শামীম একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির একমাত্র প্রার্থী। তার কোনো দলীয় প্রতিদ্বন্দ্বী নেই। ২০০৮ সালের নির্বাচনে তিনি আওয়ামী লীগ প্রার্থী ডা. মুরাদ হাসানের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে স্বল্পসংখ্যক ভোটের ব্যবধানে হেরে গিয়েছিলেন। আগামী নির্বাচনে তিনি বিএনপির এই আসনটি পুনরুদ্ধারে সচেষ্ট রয়েছেন। উল্লেখ্য, আওয়ামী লীগের প্রার্থীর সংখ্যা বেশী হওয়ায় তার এ নির্বাচনে বিজয়ের সম্ভবনা অনেক বেশী বলে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়।

জাতীয় পার্টি : একাদশ সংসদ নির্বাচনে মামুনুর রশিদ আবার প্রার্থী হবেন বলে জাতীয় পার্টি সূত্রে জানা গেছে। দলটির নেতাকর্মীরা জানায়, সংসদ সদস্য হওয়ার পর মামুনুর রশিদ জোয়ার্দার এলাকায় যাতায়াত এক প্রকার ছেড়েই দিয়েছেন। দলের নেতাকর্মীরাও সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেছে। এ ছাড়া সরিষাবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতারা পৃথক সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করে বলেছেন, এ আসনের বর্তমান এমপি মামুনুর রশিদ জোয়ার্দারের ছোট ভাই সরিষাবাড়ী পৌর বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক জোয়ার্দার ছায়া এমপি হিসেবে সব দায়িত্ব পালন করে আসছেন। 

অন্যদিকে জাতীয় পার্টির আরেক সম্ভাব্য প্রার্থী জাতীয় ছাত্রসমাজের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) ছাত্রসমাজের সভাপতি মোখলেছুর রহমান। তিনি বলেন, আসন্ন নির্বাচনে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন পেতে চেষ্টা করছি। মেধা ও তারুণ্যনির্ভর নেতৃত্বের মাধ্যমে মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত সমাজ গড়তে আমি সর্বস্তরের মানুষের পাশে আছি এবং জাতীয় পার্টিকে চাঙ্গা করতে সর্বদাই চেষ্টা করছি।

বিএনএফ : দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট (বিএনএফ) প্রার্থী জেলা পর্যায়ের জাতীয় দৈনিকের সাংবাদিক মোস্তফা বাবুল একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে জানিয়েছেন। মোস্তফা বাবুল বলেন, এবার তিনি হতে পারেন কোনো একটি জোটের প্রার্থী। তবে কোন জোট থেকে মনোনয়ন চাইবেন, তা নিশ্চিত করে বলেননি।

অন্যান্য : এ ছাড়া বাংলাদেশ জামায়াত ইসলামী কাকে মনোনয়ন দেবে তা নিশ্চিত না হওয়ায় এ আসনে এখনো কেউ প্রচার কার্যে নামেনি। তবে কেন্দ্র থেকে মনোনয়নের পর মাঠে নামবেন বলে দলীয় সূত্রে জানা যায়। এছাড়া জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) থেকে আমীর উদ্দিন এবং জাসদ থেকে এমএল ফারুক নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন বলে প্রচার চালিয়ে আসছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ