ঢাকা, সোমবার 9 April 2018, ২৬ চৈত্র ১৪২৪, ২১ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মনোনয়নপত্র উত্তোলন-জমার উৎসব ॥ ভোটারদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ

গাজীপুর সংবাদদাতা : গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচনকে ঘিরে প্রার্থী ও ভোটারসহ স্থানীয়দের মাঝে ইতোমধ্যে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা ও আগ্রহের সৃষ্টি হয়েছে। আগামী ১৫ মে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। নির্বাচনে অংশ নিতে মনোনয়নপত্র উত্তোলন ও জমাদানে মেয়র ও কাউন্সিলর পদের প্রার্থী এবং তাদের সমর্থকরা রোববারেও রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে ভিড় করেছেন। এদিন (রোববার) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত মেয়র পদে ৫ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন এবং কাউন্সিলর পদের একজন প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। এনিয়ে এ পর্যন্ত মেয়র পদে ১৪ জন এবং ৫৭টি ওয়ার্ডে সাধারণ আসনে কাউন্সিলর পদে ৩২৪ জন ও সংরক্ষিত আসনে কাউন্সিলর পদে ৮৭ জনসহ মোট ৪২৫ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র ও ভোটার তালিকার সিডি সংগ্রহ করেছেন।

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তার সহায়ক কর্মকর্তা মো. রেজাউল ইসলাম জানান, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের আসন্ন নির্বাচনে অংশগ্রহণের জন্য রোববার বিকেল পর্যন্ত আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জামায়াত, ও জাসদসহ বিভিন্ন দল ও সংগঠনের ১৪ প্রার্থী মেয়র পদে তাদের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। এদের মধ্যে সাবেক সংসদ সদস্য এবং গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের বর্তমান মেয়র ও তার পুত্রও ইতোমধ্যে তাদের মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন। রোববার বিকেল পর্যন্ত বিএনপি নেতা মো. সালাহ উদ্দিন সরকার, ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন বাংলাদেশ, গাজীপুর জেলা কমিটির সভাপতি অধ্যক্ষ মো. নাসির উদ্দিন এবং তরিকত ফেডারেশন বাংলাদেশের জেষ্ঠ্য যুগ্ম মহাসচিব (জয়েন্ট সেক্রেটারি) সৈয়দ আবু মসনবী হায়দার, কমিউনিস্ট পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য নেতা কাজী রুহুল আমিন ও বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) নেতা মো. কাইয়ুম মেয়র পদে নিজ নিজ মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন। 

এর আগে বৃস্পতিবার বিকেল পর্যন্ত বিএনপির ভাইস প্রেসিডেন্ট ও গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের বর্তমান মেয়র এমএ মান্নান ও তার পুত্র মুঞ্জুরুল করিম রনি, সাবেক সংসদ সদস্য বিএনপি’র নির্বাহী কমিটির সদস্য হাসান উদ্দিন সরকার, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এডভোকেট ওয়াজ উদ্দিন মিয়া, কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় দফতর বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য মো. আফছার উদ্দিন, জাসদের গাজীপুর মহানগর কমিটির সভাপতি মো. রাশেদুল হাসান রানা, গাজীপুর উন্নয়ন পরিষদ সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়ে গাজীপুর মহানগর জামায়াতের আমীর অধ্যক্ষ মো. সানাউল্যাহ, জেলা বিএনপির সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক ও সাবেক কাশিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত হোসেন সরকার এবং ইসলামী ঐক্য জোটের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মো. ফজলুর রহমান মেয়র পদে তাদের মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন। এছাড়া গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের এ নির্বাচনে রোববার বিকেল পর্যন্ত মেয়র পদে ১৪ জন এবং ৫৭টি ওয়ার্ডে সাধারণ আসনে কাউন্সিলর পদে ৩২৪ জন ও সংরক্ষিত আসনে কাউন্সিলর পদে ৮৭ জনসহ মোট ৪২৫ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র ও ভোটার তালিকার সিডি সংগ্রহ করেছেন। 

এদিকে, রোববার দুপুরে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ১৫নং ওয়ার্ডের সাধারণ কাউন্সিলর পদের প্রার্থী মো. ফয়সাল আহমেদ সরকার প্রথম সহকারি রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. মিজবাহ উদ্দিনের কাছে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। ফয়সাল আহমদ সরকারের বড় ভাই সুলতান আহমেদ সরকার জানান, এবার নির্বাচনে এলাকাবাসীর মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ ও উদ্দীপনা লক্ষ্য করা গেছে। মনোনয়নপত্র তুলতে প্রার্থী ও সমর্থদের বেশ ভিড় জমে উঠেছে। 

 জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. তারিফুজ্জামান জানান, গত ৩১ মার্চ গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র উত্তোলন ও জমা দেয়ার শেষ সময় হলো ১২ এপ্রিল, প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই হবে ১৫-১৬ এপ্রিল এবং প্রার্থীতা (মনোনয়নপত্র) প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২৩ এপ্রিল। ২৪ এপ্রিল প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে এবং ১৫ মে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এবার গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ৫৭টি সাধারণ ও ১৯টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে মোট ভোটার সংখ্যা ১১ লাখ ৬৪ হাজার ৪২৫ জন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ