ঢাকা, সোমবার 9 April 2018, ২৬ চৈত্র ১৪২৪, ২১ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বিএনপির সিলেট বিভাগীয় সমাবেশ আগামীকাল

 

সিলেট ব্যুরো : আগামীকাল মঙ্গলবার সিলেটের ঐতিহাসিক রেজিস্টারি মাঠে অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির সিলেট বিভাগীয় সমাবেশ।  দলীয় নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ ও দলের চেয়ারপার্সন তিনবারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি এবং আন্দোলন বেগবান করার লক্ষ্যে এই এ সমাবেশের আয়োজন করেছে সিলেট জেলা ও মহানগর বিএনপি। ওইদিন বেলা ২টায় বিভাগীয় সমাবেশে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রধান অতিথি থাকবেন বলে জানিয়েছেন দলের স্থানীয় নেতৃবৃন্দ। এছাড়াও স্থায়ী কমিটির বেশ কয়েকজন সদস্যও এখানে বক্তব্য রাখবেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে। সমাবেশ ঘিরে দলের পক্ষ থেকে ব্যাপক শোডাউনের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। সমাবেশের সকল ধরণের প্রস্তুতি প্রায় শেষ। এরই মধ্যে সিলেট জেলা ও মহানগর আলাদাভাবে শেষ করেছে তাদের প্রতিনিধি সভা। এছাড়া প্রতিটি ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে এবং উপজেলায়ও আলাদা আলাদাভাবে প্রস্তুতি সভা সম্পন্ন করেছে স্থানীয় বিএনপি। এর বাইরে বিভিন্ন জায়গায় চলছে গণসংযোগ। সমাবেশকে কেন্দ্র করে নেতাকর্মীসহ সর্বস্তরের জনসাধারণের উৎসাহ ও আগ্রহ বিএনপির প্রতি দেশের মানুষের আস্থা ও ভালোবাসার প্রতিফলন হিসেবেই দেখছেন দলের নেতারা। আর এতে করে সমাবেশের দিন তাদের প্রত্যাশার চাইতেও অনেকগুণ বেশি জনসমাগম ঘটবে বলে তারা মনে করছেন। তারা জানান, সমাবেশের বিষয়ে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশকে অবহিত করা হয়েছে। 

এদিকে সম্মেলনকে স্বার্থক করে তুলতে ইতোমধ্যে বিভাগের বিভিন্ন উপজেলা চষে বেড়াচ্ছেন বিএনপির স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় নেতারা। দলের ভাইস চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহজাহান কয়েকদিন ধরেই সিলেটে অবস্থান করছেন। তাকে কেন্দ্র করে শুরু হয়েছে বিস্তর প্রচার প্রচারণা। সমাবেশের দিন সিলেট নগরীতে ব্যাপক লোক সমাগমের টার্গেট নিয়ে দিন রাত মাঠে কাজ করা হচ্ছে। গতকাল রোববার নগরীর মদিনা মর্কেট, আম্বরখানা, সুবিদবাজার, শাহী ঈদগাহ, কুমারপাড়া, শিবগঞ্জ, টিলাগড়, মিরাবাজারা, উপশহর, দক্ষিণ সুরমাসহ নগরীর বিভিন্ন এলাকায় লিফলেট বিতরণ করা হয়েছে। আজ সোমবার সকাল ১১টায় নগরীর কোর্ট পয়েন্ট এলাকায় মোহাম্মদ শাহজাহানের নেতৃত্বে লিফলেট বিতরণ করা হবে। এ ব্যাপারে সিলেট মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসেইন জানান, সমাবেশের ব্যাপারে সিলেটে মেট্রোপলিটন পুলিশকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। আমরা প্রথমে সিটি পয়েন্টে সমাবেশ করতে চেয়েছিলাম। তবে এখানে তাদের আপত্তি থাকায় আমরা রেজিস্টারি মাঠে সমাবেশ করার সিদ্ধান্ত নেই। সমাবেশের ব্যাপারে প্রশাসনে দৃষ্টিভঙ্গি এখনো ইতবাচক। তিনি জানান, এই সমাবেশে ব্যাপক জনাসমাগম ঘটবে। পুণ্যভূমি সিলেটের এ সমাবেশকে ঘিরে দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে উৎসা উদ্দীপনা বিরাজ করছে। আর এর প্রতিফলন ঘটবে আগামীকাল মঙ্গলবার এমনটা ভাবছেন দলের স্থানীয় শীর্ষ নেতৃবৃন্দ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ