ঢাকা, মঙ্গলবার 10 April 2018, ২৭ চৈত্র ১৪২৪, ২২ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রামগঞ্জে ক্ষতিগ্রস্ত ভূমি মালিকদের ক্ষতিপূরণ আদায়ে মানববন্ধন

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) সংবাদদাতা: ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপ-কেন্দ্র স্থাপনের জন্য এনার্জি প্যাক বাংলাদেশ লিঃ এর অধিগ্রহনকৃত প্রকৃত ভূমির মালিকদের ক্ষতিপূরন আদায় ও তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন ক্ষতিগ্রস্থ ভূমি মালিকগণ। আজ বুধবার দুপুরে রামগঞ্জ পৌর সোনাপুর কলচমা গ্রামে নির্মানাধীন ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপ-কেন্দ্রের সামনে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। পরে রামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট দাবী সম্বলিত স্মারকলিপি পেশ করেন স্থানীয় ভূমি মালিকগণ। জানা যায়, ২০১৩-২০১৪ ইং সনে ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপ-কেন্দ্র স্থাপনের লক্ষ্যে পাওয়ার গ্রীড কোম্পানী অব বাংলাদেশ (এনার্জি প্যাক বাংলাদেশ লিঃ) ৫.০৩ একর জমি অধিগ্রহন করে। প্রায় ১শ কোটি টাকার অধিক ব্যয়ে ১৩২/৩৩ কেভি গ্রীড উপ-কেন্দ্র নির্মাণের কাজ শুরু হয়। এসময় জমিদাতাদের সাথে ভিটি ৬০, জমি ৩৩ ও পুকুরের জমি ৯৮হাজার টাকা প্রতি শতাংশ করে অধিগ্রহণ করা হয়, এবং বেশ কিছু জমির মালিককে অর্ধেক টাকা পরিশোধও করা হয়। নির্মাণাধীন পাওয়ার গ্রীডের কাজ সম্পূর্ণ হওয়ার কয়েকমাস বাকী সে মুহুর্তে একই এলাকার লুৎফর রহমান প্রকাশ এল রহমান, মানিক হোসেন, সিরাজ মিয়া ও জহির ব্যপারী লক্ষ্মীপুর জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে তাদের অধিগ্রহনকৃত ভূমিতে তাদের মালিকানা দাবী করে একটি মামলা দায়ের করে। 

উল্লেখিত বিষয়ে জটিলতা সৃষ্টি হওয়ায় জমির প্রকৃত মালিক ফারুক হোসেন, আমির হোসেন, মোস্তফা মিয়া, মফিজ ব্যাপারী, মোঃ হোসেন, বজলুল হক, কাশেম ব্যাপারী ও আক্কাছ ব্যাপারীসহ অনেকের বাকী টাকা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ মামলার নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত আটকে রাখার ঘোষণা দেয়। এতে করে স্থানীয় ভূমির মালিকগণ চোখেমুখে অন্ধকার দেখে। রামগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের টেবিলে কয়েকদফা বসলেও কোন সমাধান হয়নি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ