ঢাকা, বুধবার 11 April 2018, ২৮ চৈত্র ১৪২৪, ২৩ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

চট্টগ্রাম শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনে ৫ হাজার ৬১৬ কোটি টাকার প্রকল্প বাস্তবায়নে সেনাবাহিনী

চট্টগ্রাম ব্যুরো : চট্টগ্রাম শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনে নেয়া মেগা প্রকল্প বাস্তবায়নে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মধ্যে সমঝোতা (এমওইউ) স্বাক্ষর সম্পন্ন হয়েছে। নগরের জলাবদ্ধতা নিরসনকল্পে খাল পুনঃখনন, সম্প্রসারণ, সংস্কার ও উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়নে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) সাথে সেনাবাহিনীর সোমবার সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর হয়। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পক্ষে ৩৪ ইঞ্জিনিয়ারিং কনস্ট্রাকশন বিগ্রেডের উপ-মহাপরিচালক লেফটেনেন্ট কর্নেল শাহরিয়ার আহমেদ ও সিডিএর পক্ষে তত্ত্বাবধায়ক  প্রকৌশলী হাসান বিন শামস এ মেগা প্রকল্পের সমঝোতা (এমওইউ) সই করেন। 

অনুষ্ঠানে এর আগে জলাবদ্ধতা নিরসনে নেয়া মেগা প্রকল্পে শতভাগ সহযোগিতা করার আশ্বাস দিয়ে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের (চসিক) মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, প্রকল্পটি বাস্তবায়নে আন্তরিক সহযোগিতা করবো। যে ধরনের সহযোগিতা চাওয়া হবে, সেই ভাবেই চসিকের পক্ষ থেকে সহযোগিতা করা হবে।

 মেয়র বলেন, চট্টগ্রামের জন্য আজকের দিনটি ব্যতিক্রম। নগরবাসীকে পানিবদ্ধতা থেকে মুক্তি দিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী এ মেগা প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এ প্রকল্প বাস্তবায়নে নগরবাসী সহযোগিতা করতে হবে। তিনি বলেন, সামনের বর্ষা মওসুম। এই বর্ষা মওসুমে আশা করলেও হবে না। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে এখন কাজ শুরু হবে। এর সুফল পেতে সময় লাগবে। প্রকল্প বাস্তবায়নে নগরবাসীকে সচেতন হতে হবে বলেন মন্তব্য করেন মেয়র।

চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনায় জলাবদ্ধতা থেকে চট্টগ্রামবাসীকে মুক্তি দিতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী এগিয়ে এসেছে। চট্টগ্রাম শহরকে জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি দিতে সিডিএ মেগা প্রকল্প হাতে নিয়েছে। প্রকল্প বাস্তবায়নের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নিজেই খোঁজখবর নেন। যাচাই-বাছাই করে প্রকল্প বাস্তবায়নের নির্দেশনা দিয়েছেন। সিডিএ চেয়ারম্যান বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় প্রকল্প বাস্তবায়নে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সহযোগিতা চাওয়া হয়। সেই প্রেক্ষিতে সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ারিং কোর এগিয়ে এসেছেন। ৫ হাজার ৬১৬ কোটি টাকার এ মেগা প্রকল্প বাস্তবায়নে তিনি চসিক মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনসহ চসিকের কাউন্সিলরদের সহযোগিতা চান। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল আলম চৌধুরী, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এমএ সালাম, আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমানসহ আরো অনেকে। এছাড়াও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তাসহ নানা শ্রেণি- পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

গত ৯ অগাস্ট ‘চট্টগ্রাম শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনকল্পে খাল পুনঃখনন, সম্প্রসারণ, সংস্কার ও উন্নয়ন’ নামে ৫ হাজার ৬১৬ কোটি টাকার একটি প্রকল্প একনেকে অনুমোদন পায়। চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) উদ্যোগে নেয়া এ প্রকল্প বাস্তবায়নে স্থানীয় সরকার, গণপূর্ত ও পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় এবং চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের সমন্বয়ে একটি কমিটি গঠনেরও নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী। ওই প্রকল্পের আওতায় খালের মাটি খনন, কাদা অপসারণ, নালা সংস্কার ও নির্মাণসহ বৈদ্যুতিক বাতি স্থাপনের মত কাজও সিডিএ বাস্তায়ন করবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ