ঢাকা, বুধবার 11 April 2018, ২৮ চৈত্র ১৪২৪, ২৩ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

চট্টগ্রামে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস-২০১৮ পালিত

চট্টগ্রাম ব্যুরো : সার্বজনীন স্বাস্থ্য সেবা : সবার জন্য সর্বত্র, এই প্রতিপাদ্য বিষয়ের আলোকে গত ৭ই এপ্রিল বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে ইসলামী ব্যাংক হাসপাতাল আগ্রাবাদ, চট্টগ্রামের উদ্যোগে র‌্যালি, আলোচনা সভা ও ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়। 

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাঃ এ.এস.এম মোশতাক আহমেদ, অধ্যক্ষ, চট্টগ্রাম মা ও শিশু মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডা: বাবুল ওসমান চৌধুরী, কনসালটেন্ট (প্যাথলজি), ইসলামী ব্যাংক হাসপাতাল আগ্রাবাদ চট্টগ্রাম এবং আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ডা ঃ এস এম রফিকুল ইসলাম, সুপারিনটেনডেন্ট, ইসলামী ব্যাংক হসাপাতাল আগ্রাবাদ চট্টগ্রাম।

এদিকে ৭ এপ্রিল  শনিবার সিভিল সার্জন কার্যালয় চট্টগ্রাম ও অন্যান্য উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা সমূহের উদ্যোগে বিশ্ব স্বাস্থ্য দিবস উপলক্ষে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। র‌্যালিটি উদ্বোধন করেন  সিভিল সার্জন, চট্টগ্রাম ডা. মোহাম্মদ আজিজুর রহমান সিদ্দিকী। র‌্যালিটি চট্টগ্রাম শহরের বিভিন্ন গুরত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিন শেষে সিভিল সার্জন চট্টগ্রাম কার্যালয়ে এসে সমাপ্ত হয়। সিভিল সার্জন এর সভাপতিত্বে র‌্যালি পরবর্তী আলোচনা সভাটি অনুষ্ঠিত হয় সিভিল সার্জন কার্যালয়ের অডিটরিয়ামে।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডা. অসীম কুমার নাথ, তত্ত্বাবধায়ক ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডা. উখ্যে উইন, উপপরিচালক (পরিবার পরিকল্পনা) চট্টগ্রাম, ডা. মো¯তফা সৈয়দ, এসআইএমও, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, জনাব স্বপ্না তালুকদার, সমন্বয়ক মমতা, ডা. মোহাম্মদ হুমায়ন কবীর,ডেপুটি সিভিল সার্জন এবং ডা. ওয়াজেদ চৌধুরী অভি,এমওসিএস। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ইপসার ফারহানা ইদ্রিস,  মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডা. মোঃ নুরুল হায়দার, এমওডিসি, ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ডা. মো¯তফা মঈন উদ্দিন,ইমপ্যাক্ট ফেলো, আইইডিসিআর। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন যে, বিশ্বব্যাপী চিকিৎসা ব্যয় বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং উলেখযোগ্য সংখ্যক মানুষ দারিদ্র সীমার নিচে নেমে আসছে। এই সমস্যা মোকাবেলায় বিশ্বব্যাপী সকলের জন্য স্বল্প মূল্যে মানসম্মত স্বাস্থ্য সেবা প্রদানের জন্য সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা ধারণার উদ্ভব হয়েছে। 

সভাপতি তার বক্তব্য বলেন, পৃথিবীর মোট জনসংখ্যার অর্ধেকেরও বেশী মানুষ অতি প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য সেবা হতে বঞ্চিত। ২০৩০ সালের মধ্যে টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের জন্য সর্বজনীন স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা লক্ষ্যে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় অত্যাবশকীয় সেবা প্যাকেজ অšতভুক্ত করেছে। তিনি স্বাস্থ্য খাতে সরকারের অর্জিত সাফল্যের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখে কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য সরকারী উদ্যোগের পাশাপাশি বেসরকারি খাত সহ সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জনান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ