ঢাকা, বুধবার 11 April 2018, ২৮ চৈত্র ১৪২৪, ২৩ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

নিরাপদ সড়কের দাবীতে সীতাকুণ্ডে ৪০ কিলোমিটারের মানববন্ধন

সীতাকুণ্ডে দীর্ঘ মানববন্ধনের দৃশ্য

সীতাকুণ্ড (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি : ‘সড়ক হউক সকলের জন্য নিরাপদময়’-এ শ্লোগান নিয়ে সড়ক দুর্ঘটনা রোধে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ এবং নিরাপদ সড়কের দাবিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ডে মানববন্ধন করেছে যায়যায়দিন ফ্রেন্ডস ফোরাম বন্ধুরা। আশঙ্কাজনকভাবে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ড অংশে দুর্ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় এ প্রতিবাদী মানববন্ধনের উদ্যোগ নিয়েছেন সীতাকুণ্ডের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সংগঠন এবং সর্বস্তরের জনতা। মানববন্ধনে ফ্রেন্ডস ফোরামের  পাশাপাশি সীতাকুণ্ডের অধিকাংশ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী,স্থানীয় দুই শতাধিক সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ক্রীড়া, সেবামূলক সংগঠন, ৯টি ইউনিয়ন পরিষদ, ১টি পৌরসভার প্রতিনিধিসহ নানা শ্রেণিপেশার হাজারো মানুষ অংশগ্রহন করেন। গত শনিবার সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত এক ঘন্টাব্যাপী নগরীর সিটি গেট থেকে সীতাকু-ের বড় দারোগাহাট পর্যন্ত ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পশ্চিম পাশে দীর্ঘ ৪০ কিলোমিটারের এ মানববন্ধনে অংশগ্রহন করেন তারা।মানববন্ধনের আয়োজনকারী চট্টগ্রাম সীতাকুণ্ড সমিতির সভাপতি লায়ন মো. গিয়াস উদ্দিন জানান,“ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে সম্প্রতি সড়ক দুর্ঘটনা আশঙ্কাজনকহারে বেড়ে যাওয়ায় সীতাকুণ্ডের সর্বস্তরের জনতা এ প্রতিবাদী মানববন্ধনে অংশগ্রহন করেছেন। অদক্ষ ও লাইসেন্স বিহীন চালকেরা বেপরোয়াভাবে বাস চলাচলের কারণে সড়ক দুর্ঘটনা ক্রমশ বাড়ছে। যা আতঙ্কের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। সড়কে উল্টোপথে বাস চলাচল ও ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচল বন্ধে কার্যকরী উদ্যোগ গ্রহণ এবং নিরাপদ সড়ক নিশ্চিতে জনসাধারনের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কার্যকরী ভূমিকা রাখার প্রতিও জোর দেন তিনি।”মানববন্ধন বাস্তবায়ন পরিষদ এর আহ্বায়ক ও কুমিরা ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোরশেদ হোসেন চৌধুরী বলেন, সড়ক-দুর্ঘটনা ঘটবেই-কখনো তা বন্ধ করা যাবে না। তবে এটা যতবেশি কমিয়ে আনা যায়- সে ব্যাপারে জনসচেতনতা সৃষ্টি ও সরকারি-বেসরকারি পদক্ষেপ নিতে আমরা আজ শিক্ষাথী শিক্ষকসহ সর্বস্তরের মানুষ নিয়ে মানবন্ধনে অংশগ্রহন করেছি।

সীতাকুণ্ড অনলাইন জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশান সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম জানান,অদক্ষ চালকের কারনে মহাসড়কের সীতাকুণ্ড অংশে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটছে। এছাড়া উল্টোপথে গাড়ি আসা,মহাসড়কের সর্বত্র মানুষের চলাচলের জায়গায় অবৈধ দোকান ঘর গড়ে তুলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি এবং মহাসড়কের উপর এলোপাথারি গাড়ি দাঁড় করিয়ে রাখার ফলে প্রতিনিয়ত সড়ক দূর্ঘটনা সংগঠিত হচ্ছে। মহাসড়কে অবৈধ দখলদার উচ্ছেদ,অদক্ষ চালকদের শাস্তির আত্ততায় আনতে প্রশাসন তৎপর হলে দূর্ঘটনা প্রতিরোধ করা সম্ভব।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম সীতাকুণ্ড সমিতির সভাপতি লায়ন মো.গিয়াস উদ্দিন,সহ-সভাপতি নাছির উদ্দিন মানিক,হাজ্বি ইউসুফ শাহ,যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক কাজী আলী আকবর জাসেদ। এছাড়াও মহাসড়কের বিভিন্ন স্থানে মানববন্ধনে অংশ নেন, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের সদস্য আ.ম.ম দিলশাদ, কৃষকলীগের কেন্দ্রিয় কমিটির সদস্য নুরুল মোস্তফা কামাল চৌধুরী, সীতাকুণ্ড সাংস্কৃতিক পরিষদের সভাপতি সুরাইয়া বাকের,সীতাকুণ্ড জাতীয় পাটির সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আলম, উপজেলা আ.লীগের অর্থ সম্পাদক মোহাম্মদ আলাউদ্দিন, খেলাঘরের শিশু সংগঠক মোরশেদুল আলম চৌধুরী, সীতাকুণ্ড বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন, মানববন্ধন বাস্তবায়ন সমন্বয়কারী খোরশেদ আলম, প্রধান শিক্ষক লোকমান মিয়াসহ বিভিন্ন বিদ্যালয়ের প্রধানশিক্ষকগণসহ বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ। এছাড়াও সীতাকুণ্ড সমিতি চট্টগ্রামের সার্বিক সহযোগিতায় বিশাল এ মানববন্ধনে সকাল থেকে ফৌজদারহাট কেএম উচ্চ বিদ্যালয়, চট্টগ্রামস্থ সীতাকুণ্ড সমিতি, সীতাকুণ্ড অনলাইন জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন, স্মাইল বাংলাদেশ, মেঘমাল্লার খেলাঘর আসর, সীতাকুণ্ড সাংস্কৃতিক পরিষদ, সীতাকুণ্ড পৌর বাজার কমিটি, ভ্রাতৃ সংঘ, ইপসা, শীতলপুর এলাকায় শীতলপুর বহুমুখি উচ্চ বিদ্যালয়, শীতলপুর মাদ্রাসা, হাফিজ জুট মিলস সবুজ শিক্ষায়তন, যুবাইদিয়া মহিলা আলিম মাদ্রাসা, বারআউলিয়া আইডিয়াল কিন্ডারগার্টেন, বার আউলিয়া উচ্চ বিদ্যালয়, আইআইইউসির সামনে জেলা পরিষদের সদস্য আ.ম.ম দিলাশাদের নেতৃত্বে ঘোড়ামারা এলাকাবাসী, কুমিরায় কুমিরা বালিকা বিদ্যালয়, সিসিসি উচ্চ বিদ্যালয়,বাড়বকুণ্ড উচ্চ বিদ্যালয়,মসজিদ্দা উচ্চ বিদ্যালয়, দক্ষিণ মছজিদ্দা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ইকরা আদর্শ ইসলামী পাঠাগার, সীতাকুণ্ডে বিবর্তন ক্লাব, লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগাং লিবার্টি ও লিও ক্লাব অব চিটাগাং লিবার্টিসহ শতাধিক সংগঠন অংশগ্রহণ করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ