ঢাকা, বৃহস্পতিবার 12 April 2018, ২৯ চৈত্র ১৪২৪, ২৪ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

আইনজীবী ছাড়াই আহেদ তামিমিকে ২ ঘন্টা জিজ্ঞাসাবাদ

১১ এপ্রিল: ইসরায়েলী সেনাকে চড় মারার অভিযোগে আটক ফিলিস্তিনের ১৭ বছরের কিশোরী আহেদ তামিমিকে আইনজীবীর উপস্থিত ছাড়াই গোয়েন্দারা টানা দুই ঘন্টা জিজ্ঞাসাবাদের সময় বিভিন্ন ধরনের হুমকি দিয়েছে। ফুটেজে দেখা যায় জিজ্ঞাসাবাদের সময় তামিমি নিশ্চুপ ছিলেন। বেশ কয়েকজন ফিলিস্তিনী যুবকের নাম ধরে তাদের সঙ্গে তামিমির পরিচয় আছে কি না জানতে চাওয়া হয়। ইসরায়েলের শায়ার বেনিয়ামিন ডিটেনশন সেন্টারে গত ২৬ ডিসেম্বর আহেদ তামিমিকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় সে দেখতে কেমন, সৈকতে ঘুরতে গেলে সূর্যের আলোয় লাল হয়ে ওঠেন কি না এধরনের অহেতুক ও আপত্তিকর মন্তব্য ছুড়ে দেওয়া হয়। ইতিমধ্যে তামিমির আইনজীবী তাকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় যৌন হয়রানির অভিযোগ এনে ইসরায়েলের এ্যাটর্নি জেনারেলের কাছে লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন।

জিজ্ঞাসাবাদের সময় ইসরায়েলী কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সহযোগিতার জন্যে তামিমিকে বারবার হুমকি দেওয়া হয়। তামিমির বাবা বাসেম তামিমি সাংবাদিকদের জানান, জিজ্ঞাসাবাদের নোংরা কৌশল হিসেবেই তামিমির সঙ্গে এধরনের আচরণ করা হয়। তামিমিকে ইতিমধ্যে ৮ মাসের কারাবাস দেওয়া হয়েছে। গত ডিসেম্বরে ইসরায়েলী দুই সেনা তামিমির বাড়িতে চড়াও হলে তাদের চলে যেতে বলা হয়। এর একদিন আগে তামিমির চাচাত ভাই ইসরায়েলী সেনাদের গুলিতে মারাত্মক আহত হন।

ইসরায়েলী সেনারা তামিমির বাড়ি ছেড়ে চলে যেতে অস্বীকার করলে তাদের সঙ্গে বচসা বাঁধে এবং এক পর্যায়ে তামিমি এক ইসরায়েলী সেনাকে চড় মারতে বাধ্য হন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ চড় মারা দৃশ্য ভাইরান হলে তামিমিকে গ্রেপ্তার করে ইসরায়েলী সামরিক আইনে বিচার শুরু হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ