ঢাকা, বৃহস্পতিবার 12 April 2018, ২৯ চৈত্র ১৪২৪, ২৪ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মহেশপুরে এক অসহায় নারীর উপর নির্যাতন

মহেশপুর (ঝিনাইদহ) সংবাদদাতা: ঝিনাইদহের মহেশপুরের সলেমানপুর গ্রামে এক অসহায় নারীর উপর অমানুষিক নির্যাতন, সে এখন মহেশপুর হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে।
হাসপাতাল ও পারিবারিক সূত্রে প্রকাশ, গত ৬ই এপ্রিল সন্ধ্যায় উপজেলার সলেমানপুর গ্রামের বাবুর আলীর স্ত্রী সালেহা খাতুন(৩৬)কে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতরভাবে আহত করেছে প্রতিপক্ষরা। সে মহেশপুর হাসাপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। অসহায় দরিদ্র পরিবার অর্থের অভাবে চিকিৎসা করতে পারছে না। থানায় অভিযোগ দিলেও এখনও কার্যকরি ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়নি। একটি মহল বিষয়টি ধামা চাপা দেওয়ার জন্য পাঁয়তারা চালাচ্ছে। 
অভিযোগকারী বাবুর আলী জানায়, সলেমানপুর মৌজার ৯৬৩ ও ৯৬৪ নং দাগে নিজস্ব ক্রয়কৃত জমিতে তারা বসবাস করে। কিন্তু একটি প্রভাবশালী মহল ঐ জমি জোরপূর্বক বেআইনীভাবে দখল করার জন্য অপচেষ্টা চালায়।
গত শুক্রবার বাবুর আলী বাড়ীতে না থাকার সুযোগে একই গ্রামের ইসলামের ছেলে কালু, মুল্লুকের ছেলে রবিউল সহ ৫/৬ মিলে আচমকাভাবে তার স্ত্রী সালেহা বেগমের উপর হামলা করে। তারা দরিদ্র বিধায় বিচারের জন্য দ্বারে দ্বারে ঘুরলেও কেউ কোন ব্যবস্থা নেয়নি।
মহেশপুর থানার এস.আই আলিমুজ্জামান জানায়, তারা এ সংক্রান্ত একটি অভিযোগ পেয়েছে এবং তা তদন্ত করা হচ্ছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নির্যাতিত মহিলা মহেশপুর হাসাপাতালে ভর্তি ছিল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ