ঢাকা, শনিবার 14 April 2018, ১ বৈশাখ ১৪২৫, ২৬ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মার্সেল নিয়ে এলো টারবো কুলিং এসি

চৈত্রের শেষ। আসছে বোশেখ। পড়ছে অসহনীয় গরম। গরমে অতীষ্ঠ ক্রেতারা ঢুঁ মারছেন এসির দোকানে। কিন্তু সাধ থাকলেও চড়া দাম এবং অতিরিক্ত বিদ্যুৎ খরচের ভয়ে অনেকেই এসি কেনা নিয়ে দ্বিধায় পড়ছেন। এমন অবস্থায় দেশীয় ব্র্যান্ড মার্সেল বাজারে ছেড়েছে টারবু কুলিং এয়ারকন্ডিশনার। এনেছে সাশ্রয়ী মূল্যেরব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইন্টেলিজেন্ট ইনর্ভাটার প্রযুক্তির এসি। যা সাধারণ এসির তুলনায় ৬০ শতাংশ পর্যন্ত বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী। 

গ্লোবাল ওয়ার্মিংয়ের প্রভাবের সঙ্গে এল-নিনোর দাপটে বাংলাদেশে চলতি বছরটি উষ্ণতম বছর হতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া দফতর। ৫০ বছরের রেকর্ড ভাঙ্গা হাড় কাপানো শীতের পর এ বছর আগেভাগেই গরম চলে আসায় অসহনীয় উষ্ণতার আশঙ্কা করছেন পরিবেশবিদরা। ফলে গরমের শুরুতেই অনেকেই এসি কিনছেন। গরমে স্বস্তির সঙ্গে নিশ্চিত করছেন জীবন যাপনের সুখ। 

মার্সেল এসির চিফ অপারেটিং অফিসার প্রকৌশলী ইসহাক রনি জানান, নতুন আসা এসিতে ব্যবহৃত হয়েছে ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার প্রযুক্তি। যা ব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয় করে। মার্সেল এসিতে আরো ব্যবহার করা হচ্ছে গোল্ডেন কালার ফিন প্রযুক্তি। যা নিশ্চিত করে এসির দীর্ঘস্থায়ীত্ব। সংযোজন করা হয়েছে আয়নাইজার প্রযুক্তি। যা রুমের বাতাসকে রাখে ধুলা-ময়লা ও ব্যাকটেরিয়ামুক্ত। 

প্রকৌশলীরা জানান, মার্সেলের ইনভার্টার প্রযুক্তির এসির কম্প্রেসরে রয়েছে টার্বোমুড। যা রুমের তাপমাত্রা দ্রুত কমিয়ে আনে। রুম তাড়াতাড়ি ঠান্ডা হয়। এই প্রযুক্তিতে রুমের তাপমাত্রা অনুযায়ী কম্প্রেসরের গতি নিয়ন্ত্রিত হয় পিসিবি বা মাদারবোর্ডে স্থাপিত মাইক্রোপ্রসেসরের বিশেষ প্রোগ্রামিং এর দ্বারা। অর্থাৎ রুমের তাপমাত্রা কমার পাশাপাশি কম্প্রেসরের গতিও কমে আসে। ফলে ব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয় হয়। 

এ ছাড়া, মার্সেল এসির কম্প্রেসরে ব্যবহৃত হচ্ছে বিশ্বস্বীকৃত সম্পূর্ণ পরিবেশবান্ধব আর৪১০এ রেফ্রিজারেন্ট। এসব কারণে মার্সেল ইনভার্টার এসিতে একদিকে ৬০ শতাংশ পর্যন্ত বিদ্যুৎ সাশ্রয় হয়; অন্যদিকে কম্প্রেসরের স্থায়িত্বও দ্বিগুণের বেশি বেড়ে যায়। যার ফলে ইনভার্টার এসির কম্প্রেসরে ৮ বছরের গ্যারান্টি দেয়া সম্ভব হচ্ছে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ