ঢাকা, সোমবার 16 April 2018, ৩ বৈশাখ ১৪২৫, ২৮ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

মাধবদী ভাসছে আইপিএল জুয়ায় ॥ অবাধে চলছে কোটি কোটি টাকার জুয়া

মোঃ আল আমিন, মাধবদী (নরসিংদী) সংবাদদাতা : আই পি এল খেলার শুরু থেকেই মাধবদীতে চলছে কোটি কোটি টাকার ক্রিকেট খেলার নামে আই পি এল জুয়া খেলা। বলে বলে, ওভারে ওভারে, উইকেট এবং হার জিত নিয়ে চলছে রাতদিন এ খেলা। শুধু খেলা চলাকালিন সময়ে নয় অনেক ব্যবসায়ী মহলে খেলা চলাকালিন সময়ে টিভি’র সামনে বসে এবং অন্য সময়ে আগাম খেলায় হার জিত নিয়ে বাজি ধরছেন লাখ লাখ টাকা। নগদ ক্যাশ এবং ব্যাংক চেকের মাধ্যমে চলছে এ জুয়া খেলা। কোন কোন মহলে কোটি কোটি টাকার খেলায় কেউ নিঃস্ব আবার কেউ জিতে নিচ্ছে কোটি কোটি টাকা। মোবাইল ফোনে মাধবদী থেকে ঢাকার কিছু প্রতিষ্ঠিত বড় বড় ব্যসায়ী, ইন্ডাষ্ট্রিয়াল ও বেশ কিছু  গ্রুপ কোম্পানীর মালিক, ম্যানেজারও অংশ নিচ্ছে এ আই পি এল জুয়ায়। 

মাধবদীর বেশ কিছু বড় বড় ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের মালিকও মেতে উঠেছে আই পি এল জুয়ায় এমন তথ্য দিয়েছে ঐ সমস্ত ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানে কর্মরত কর্মকর্তা-কর্মচারী ও দায়িত্বশীল ব্যক্তিরা। অন্যদিকে বড় দু’টি রাজনৈতিক দলের থানা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের নেতৃস্থানীয়দের অনেকেই এ জুয়ায় অংশ নিচ্ছে বলেও খবর পাওয়া যাচ্ছে। মাধবদীর গরুহাটের মাঠে, আলগী বাজার, রাইন ওকে মার্কেট, সোনার বাংলা মার্কেট, ভুঁইয়া মার্কেট, প্রধান মার্কেট সহ বিভিন্ন ক্লাব বা সংগঠনের অফিস কক্ষে পুরনো টিভি পাল্টিয়ে বড় স্কিনের টিভি সেট করে চলছে আই পি এল জুয়া। 

এছাড়া শহরের স্কুল মার্কেট, পৌরসভা মার্কেট, বাজারের মুদি মনোহরি দোকান থেকে শুরু করে বেকারীর দোকান, চায়ের ও পানের দোকান, কাপড়ের দোকান, স্বর্ণের দোকান, ঔষধের ফামের্সি, স্থানীয় কয়েকটি ক্লাবসহ এমন কি এখানকার কয়েকটি প্রাইভেট হাসপাতাল এবং নাপিতদের সেলুন ঘরেও এ ক্রিকেট জুয়া লক্ষ করা যাচ্ছে। সোনার বাংলা মার্কেটের আশপাশে বিভিন্ন ক্লাবে চলছে আই পি এল জুয়া খেলা সহ নানা অসামাজিক কার্যকলাপ। এমন তথ্য দিয়েছেন সোনার বাংলা মার্কেটের দোকান মালিক সমিতির একজন দায়িত্বশীল ব্যক্তি। খেলা চলার সময় টিভির সামনে এবং অন্য সময়ে মোবাইল স্কিনের পর্দায় দেখে চলে জুয়া খেলা অন্য সময়ে পরবর্তি খেলায় হার জিত নিয়ে চলে এ খেলা। ছোট মাধবদীর একজন প্রতিষ্ঠিত চাল ব্যবসায়ীর ছেলে মুদি দোকানী ঢাকার বড় এক গ্রুপ চ্যানেলের সাথে খেলে প্রায় কোটি টাকা হেরেছেন এ নিয়ে ঢাকার পাওনাদার প্রতিষ্ঠানের তাগাদায় পরিবারের অন্যান্যদের সাথে দ্বন্দ্বে জড়িয়ে এখন মুদি দোকান বন্ধ করে গা ঢাকা দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক তার এক ভাই। মাধবদী বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় একাধিক পরিবহণ অফিস ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চলছে বাস, ট্রাক প্রাইভেট গাড়ি, ঘর বাড়ি বাজি রেখেও এ জুয়ার জমজমাট আসর।

ইতিমধ্যেই সর্বনাশা এ আই পি এল জুয়ায় হার জিত নিয়ে অপহরণ, খুনের মতো ঘটনাও ঘটেছে। নরসিংদী সদরের এক ইউনিয়ন আওয়মী যুবলীগের সভাপতি ৭ কোটি টাকা হেরে পরিবারে অশান্তি বিরাজ করছে, আরেক ইউনিয়নের যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক অপহরণ ও হত্যার অভিযোগের পেছনেও আই পি এল জুয়া বলে শোনা যাচ্ছে। অবাধে চলা এ জুয়ার আসর বন্ধে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কর্যকরি ব্যবস্থা নেয়া জরুরী হয়ে পড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন স্থানীয় শান্তিপ্রিয় মানুষ ও ব্যবসায়ী মহল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ