ঢাকা, মঙ্গলবার 17 April 2018, ৪ বৈশাখ ১৪২৫, ২৯ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি তালুকদার আব্দুল খালেকের মনোনয়নপত্র বাতিলের দাবি

খুলনা অফিস : হলফনামায় তথ্য গোপনের অভিযোগে খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী তালুকদার আব্দুল খালেকের মনোনয়ন বাতিল পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য রিটার্নিং অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে। গতকাল  সোমবার দুপুরে কেসিসি নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী নজরুল ইসলাম মঞ্জু এ অভিযোগ দাখিল করেছেন।
লিখিত অভিযোগে বলা হয়েছে, তালুকদার আব্দুল খালেক সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার এন্ড কমার্স ব্যাংক লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদের ভাইস প্রেসিডেন্ট। নর্থ ওয়েস্টার্ণ ইউনির্ভাসিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান। ইস্টার্ণ পলিমার লিমিটেডের পরিচালক ও সর্বময় নিয়ন্ত্রণকারী। এখান থেকে তিনি নিয়মিত বিপুল পরিমাণ অর্থ আয় করেন। তালুকদার আব্দুল খালেক তার নির্বাচনী হলফনামায় এসব তথ্য গোপন করেছেন। এমনকি ইস্টার্ণ পলিমার লিমিটেডের  নেয়া ঋণ তথ্যও তিনি হলফনামায় উল্লেখ করেননি। এছাড়া দলীয় নমিনেশন পত্রে তার ভোটার নাম্বারও উল্লেখ করা হয়নি।
লিখিত অভিযোগে আরো বলা হয়েছে, স্থানীয় সরকার নির্বাচন বিধিমালা ২০১০ এর ১২ ধারা অনুযায়ী মনোনয়নপত্রের সাথে হলফনামা দাখিল করার বিধান রয়েছে। ওই হলফনামায় তথ্য গোপন করলে কিংবা মিথ্যা তথ্য প্রদান করলে তার প্রার্থীতা বাতিলের বিধান রয়েছে। অভিযোগ তদন্তপূর্বক মনোনয়ন বাতিল এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে। অভিযোগ গ্রহণ করেছেন সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মো. হুমায়ুন কবির।
ময়র পদে ৫ ও ২০৯ জন কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ : খুলনা সিটি করপোরেশন ( কেসিসি) নির্বাচনে ২০৯ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বৈধ বলে  ঘোষণা করা হয়েছে। দুই দিনব্যাপী কাউন্সিলর প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই শেষে গতকাল সোমবার বিকেল ৫টায় সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৭০ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৩৯ জনের মনোনয়নপত্র বৈধ বলে ঘোষণা করা হয়।
রিটার্নিং অফিসার ও আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ইউনুচ আলী জানান, কাউন্সিলর পদে ২৩৭ জন মনোনয়নপত্র জমা দেন। এর মধ্যে ৪৮ জন ছিলেন সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদের প্রার্থী। যাচাই-বাছাইয়ে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৯ জন ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৯ জনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে।
এদিকে রোববার মনোনয়পত্র বাচাইয়ের প্রথম দিন মেয়র পদে ৫ প্রার্থীকেই বৈধ ঘোষণা করা হয়। তারা হলেন-আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী দলের মহানগর সভাপতি ও সাবেক মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, বিএনপি মনোনীত প্রার্থী দলের মহানগর সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক এমপি নজরুল ইসলাম মঞ্জু, জাতীয় পার্টি মনোনীত শফিকুর রহমান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত অধ্যক্ষ মাওলানা মুজ্জাম্মিল হক এবং বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি-সিপিবি মনোনীত দলের মহানগর সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান বাবু।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ