ঢাকা, মঙ্গলবার 17 April 2018, ৪ বৈশাখ ১৪২৫, ২৯ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ

দিনাজপুর জেলার নবাবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান  মো. নূরে আলম সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে গত ১৪ এপ্রিল প্রথম আলো পত্রিকায় প্রকাশিত খবরের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন নবাবগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান  মো. নূরে আলম সিদ্দিকী।
গতকাল সোমবার দেয়া বিবৃতিতে তিনি বলেন গত ৩ এপ্রিল উপজেলার ইউনিয়ন চেয়ারম্যানগণ রংপুর বিভাগীয় কমিশনারের নিকট যে সব অভিযোগ দিয়েছেন তা সবই ভিত্তিহীন, মিথ্যা ও বানোয়াট। তিনি বলেন, বয়স্কভাতা, বিধবা ভাতা ও প্রতিবন্ধি ভাতা প্রদানের জন্য ইউনিয়ন পরিষদের কমিটির অনুমোদনের পরে তা উপজেলা সমাজসেবা অফিসারের কার্যালয়ে জমা হয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার হয়ে বিধি মোতাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যানের অনুমোদনের জন্য তালিকা জমা হবে।
উল্লেখ্য, বয়স্কভাতা, বিধবা ভাতা ও প্রতিবন্ধি ভাতা প্রদানের জন্য উপকারভোগী যাচাই-বাছাইয়ের জন্য প্রত্যেকটা ইউনিয়নে মাইকিং করে উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান, উপজেলা সমাজসেবা অফিসার এবং সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নের চেয়ারম্যানসহ দু:স্থ্য ও অসহায় ব্যক্তিদের তালিকা করা হলেও পরবর্তীতে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানগণ আর্থিক লেন-দেন এর মাধ্যমে প্রকাশ্যে মাইকিং করে বাছাইকৃত তালিকা বাদ দিয়ে এবং ইউনিয়ন কমিটি কর্তৃক অনুমোদন না করিয়ে আর্থিক লেন-দেনের মাধ্যমে স্বচ্ছল ব্যক্তিদের তালিকা অনুমোদনের জন্য উপজেলা চেয়ারম্যানকে চাপ দেন। যেসব তালিকা এখন পর্যন্ত ইউনিয়ন কমিটি কর্তৃক অনুমোদন হয়নি,  সেখানে উপজেলা চেয়ারম্যানের অনুমোদন করা প্রশ্নই উঠে না। উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমাকে হেয় করার জন্য প্রথম আলো পত্রিকায় পুরো সংবাদটি মিথ্যা ও বানোয়াটভাবে প্রকাশিত করা হয়েছে। তিনি ভিত্তিহীন, মিথ্যা ও বানোয়াট সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ