ঢাকা, মঙ্গলবার 17 April 2018, ৪ বৈশাখ ১৪২৫, ২৯ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

চুয়াডাঙ্গায় হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন

চুয়াডাঙ্গা সদর সংবাদদাতা: চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার গোবিন্দহুদা গ্রামে একটি হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। চুয়াডাঙ্গা অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিজ্ঞ বিচারক জাকির হোসেন খান আসামীদের উপস্থিতিতে এ রায় ঘোষনা করেন।
মামলার বিবরণে জানা যায়, গত ১৬ জানুয়ারি’ ২০১৪ সকাল ৯টায় অভিযুক্ত আসামীরা জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে গোবিন্দহুদা গ্রামের দুখু মন্ডলের ছেলে মহাসিনের (৪০) বাড়িতে ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে হামলা চালায়। ওই সময় তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার মাথায় কোপ মারে। সে মাটিতে পড়ে গেলে হামলাকারীরা তাকে পিটিয়ে আহত করে ফেলে রেখে যায়। এরপর গ্রামের লোকজন মারাত্মক আহত অবস্থায় মহাসিনকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে তিনি মারা যান। তারপর মহাসিনের স্ত্রী নিলুফা বেগম বাদী হয়ে দামুড়হুদা মডেল থানায় ১৪ জনকে অভিযুক্ত করে ১৭ জানুয়ারি’২০১৪ তারিখে মামলা করে। মামলা নম্বর-১৩/২০১৪। এই মামলায় অভিযুক্তরা হলো, গোবিন্দহুদা গ্রামের নুর বক্স ওরফে ঝড়ু মন্ডলের ছেলে জয়নুর,পিন্টু, ওয়াজ, ছোট বুড়ো, খাজা, একই গ্রামের মওলা বক্সের ছেলে কুদ্দুস ও রাজ্জাক, কুদ্দুসের ছেলে মাসুম, ওয়াজের ছেলে খোকন, জহিরের ছেলে কালাম, মন্টুর ছেলে রুপম, লুৎফরের ছেলে মোয়াজ্জেম ও মোসলেম, মোসলেমের ছেলে লতিফ। এরপর মামলার তদন্ত শেষে ১৪ জনকে আসামী করে দামুড়হুদা মডেল থানার এসআই আমিনুল ইসলাম গত ২০ জানুয়ারি’২০১৫ আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করে। এ মামলায় ১৩ জন সাক্ষীর সাক্ষ প্রমান সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় বিজ্ঞ বিচারক জাকির হোসেন খান, গোবিন্দহুদা গ্রামের নুর বক্স ওরফে ঝড়ু মন্ডলের ছেলে জয়নুর, ওয়াজ, ছোট বুড়ো, মওলা বক্সের ছেলে কুদ্দুস এবং মোসলেমের ছেলে লতিফকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড এবং প্রত্যেককে ৫ হাজার টাকা অর্থদন্ডে দন্ডিত করেন।
মামলায় রাষ্ট্র পক্ষের কৌশলী ছিলেন এডভোকেট তালিম হোসেন ও আসামী পক্ষে কৌশলী ছিলেন এডভোকেট আব্দুল কুদ্দুস, বাদী পক্ষে ছিলেন এডভোকেট আব্দুস সামাদ ও সেলিম উদ্দিন খান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ