ঢাকা, মঙ্গলবার 17 April 2018, ৪ বৈশাখ ১৪২৫, ২৯ রজব ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

গোমস্তাপুরে এসিল্যান্ডের স্বাক্ষর জাল ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা বরখাস্ত

গোমস্তাপুর (চাঁপাইনবাবগঞ্জ) সংবাদদাতা: চাঁপাইনবাবগঞ্জের গোমস্তাপুরে সহকারী কমিশনার (ভূমি) আসিফ আহমেদের স্বাক্ষর জাল করে প্রায় শতাধিক নামজারি (খারিজ) করার অভিযোগে পার্বতীপুর ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা শুকুরুদ্দিনকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। অভিযোগে জানা গেছে, গত বছরের ১ জানুয়ারী  আকস্মিকভাবে ওই ভূমি অফিস পরিদর্শনে গিয়ে তৎকালীন সহকারী কমিশনার (ভূমি) আসিফ আহমদ ও বর্তমান কানুনগো হাবিবুর রহমান নামজারী (খারিজ)  সংক্রান্ত বিষয়ে কিছু অনিয়ম লক্ষ্য করেন। প্রায় ১ বছর পর গত বছরের ১৪ ডিসেম্বর পূণরায় ওই ভূমি অফিস পরিদর্শনে গিয়ে আরও কিছু খারিজ সংক্রান্ত  অনিয়ম ধরা পড়ে। পরে বিষয়টি কানুনগো তদন্তপূর্বক সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে প্রতিবেদন দাখিল করেন। কানুনগোর তদন্ত প্রতিবেদন পেয়ে তৎকালীন সহকারী কমিশনার (ভূমি) আসিফ আহমদ তাকে বরখাস্তের জন্য উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকট সুপারিশ করেন। এর প্রেক্ষিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ অভিযুক্ত ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা শুকুরুদ্দিনকে শোকজ নোটিশ প্রদান করে। শোকজ নোটিশের জবাব আশানুরূপ না হওয়ায় তাকে গত ৩ এপ্রিল জেলা প্রশাসক তাকে সাময়িক বরখাস্তের আদেশ প্রদান করেন। তার বিরুদ্ধে গত ১৪ ফেব্রুয়ারী ও ১৩ মার্চ দু’টি বিভাগীয় মামলা দায়ের করা হয়েছে। যা গোমস্তাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিহাব রায়হান তদন্ত করবেন বলে জানা গেছে। তার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগগুলোর  প্রাথমিক তদন্ত কর্মকর্তা কানুনগো হাবিবুর রহমান জানান, এখন পর্যন্ত  ওই ভূমি অফিসে এসি ল্যান্ডের স্বাক্ষর  জাল করে খারিজ করা ১শ ৭টি নামজারি চিহ্নিত করা হয়েছে। তার হাতে করা আরও কিছু খারিজ কেস খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এছাড়া তার এ অপকর্মগুলোতে সহায়তার অভিযোগে অফিস পিয়ন আব্দুল হান্নানকে শাস্তিমূলক বদলী করা হয়েছে। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত ভূমি কর্মকর্তা শুকুরুদ্দিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি তার বিরুদ্ধে দায়ের করা  বিভাগীয় মামলা ও বরখাস্তের বিষয়টি স্বীকার করেন। এদিকে এসি ল্যান্ডের জাল স্বাক্ষরে নামজারি পাওয়া ভূক্তভোগীরা সম্প্রতি তার বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ এনে দূর্নীতি দমন কমিশন (দুদকে) অভিযোগ দায়ের করেছেন।
বর্তমান সহকারী কমিশনার (ভূমি) মিন্টু বিশ্বাস জানান,এ ঘটনার সূত্র ধরে অন্যান্য ইউনিয়ন ভূমি অফিসগুলোর নামজারি  কার্যক্রম খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ব্যাপারে তদন্তকারী কর্মকর্তা ইউএনও শিহাব রায়হানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ইতিমধ্যে তদন্ত কাজ শুরু হয়েছে, যথা সময়েই তদন্তপূর্বক  প্রতিবেদন জমা দেওয়া হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ