ঢাকা, বুধবার 18 April 2018, ৫ বৈশাখ ১৪২৫, ১ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

অনূর্ধ্ব-১৮ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ ২৬ এপ্রিল থেকে

স্পোর্টস রিপোর্টার : অবশেষে  আগামী ২৬ এপ্রিল থেকে মাঠে গড়াচ্ছে ওয়ালটন অনূর্ধ্ব-১৮ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ। প্রিমিয়ার লীগের ১২টি দলই অংশ নিচ্ছে এবারের টুর্নামেন্টে। চার গ্রুপে তিনটি করে দল বিভক্ত হয়ে দু’টি করে ম্যাচ খেলবে। প্রত্যেক গ্রুপের  শীর্ষ দু’টি  দল কোয়ার্টার ফাইনাল খেলবে। এখান থেকে সেরা চারটি দল সেমিফাইনাল খেলবে। এ- গ্রুপে সাইফ স্পোর্টিং, ব্রাদার্স ইউনিয়ন ও শেখ রাসেল, বি-গ্রুপে শেখ জামাল, রহমতগঞ্জ ও বিজেএমসি, সি-গ্রুপে চট্টগ্রাম আবাহনী, মোহামেডান স্পোর্টিং ও আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ এবং ডি-গ্রুপে রয়েছে ঢাকা আবাহনী, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও ফরাশগঞ্জ। গতকাল বিকেলে  বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনে (বাফুফে) প্রধান পৃষ্ঠপোষক ওয়ালটনের সঙ্গে চুক্তি সই এবং ড্র অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে বাফুফের সিনিয়র সহ-সভাপতি আবদুস সালাম মুর্শেদী, পৃষ্ঠপোষক ওয়ালটনের অপারেটিভ ডিরক্টের এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার ডন, বাফুফের সদস্য আবদুর রহিম, সত্যজিৎ দাস রুপু ও জাকির হোসেন চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন। ‘বাফুফের বর্ষপঞ্জির শেষ টুর্নামেন্ট অনূর্ধ্ব-১৮ চ্যাম্পিয়নশিপ। যা ২০১৭-১৮ মৌসুমের জন্য ঘোষনা করা হয়েছে। অনূর্ধ্ব-১৮ বছরের ফুটবলারদের জন্যই এই টুর্নামেন্ট। তাই ক্লাবগুলোর কাছে আবেদন থাকবে বেশি বয়সের খেলোয়াড়দের না নিতে। এতে করে তারাও উপকৃত হবেন। এই টুর্নামেন্টের মাধ্যমে তারা পঞ্চাশ লাখ থেকে এক কোটি টাকা পর্যন্ত সাশ্রয় করতে পারবে’, কথাগুলো বলেন সালাম মুর্শেদী। সবগুলো খেলাই বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে। তবে বৃষ্টির কারণে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের মাঠ খেলার অনুপযুক্ত হলে খেলা অন্য মাঠে নিয়ে যাওয়া হতে পারে। প্রত্যেকটি দল চারজন করে খেলোয়াড় পরিবর্তন করতে পারবে। অধিকাংশ ফুটবলারদের খেলার সুযোগ করে দিতেই এই নিয়ম করা হয়েছে। আগামীবছর থেকে মৌসুমের শুরুতেই এ  আসর  আয়োজন করা হবে, যাতে সেখান থেকে ক্লাবগুলো এক-একাধিক খেলোয়াড় নিতে পাারে। এরআগের দুই টুর্নামেন্টে শেখ রাসেল অংশ না নিলেও, এবার তারা অংশ নিচ্ছে। 

পাতানো ম্যাচ নিয়ে সালাম মুর্শেদী বলেন, এই টুর্নামেন্টে কেউ ম্যাচ ছেড়ে দিলে আমাদের তদন্ত কমিটি যাচাই বাছাই করে সিদ্ধান্ত নেবে। তাছাড়া লীগের অভিযুক্ত পাতানো ম্যাচ নিয়ে তদন্ত হয়েছে। যথাসময়ে মিডিয়ার সামনে সত্যিটা তুলে ধরা হবে। তিনি যোগ করেন,রোজার আগেই আমরা খেলা শেষ করতে চাচ্ছি। সেপ্টেম্বরে  ঢাকায় সাফ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ রয়েছে। এরপর অক্টোবরের শুরুর দিকে আসিয়ান ও মধ্যপ্রাচ্যের কিছু দেশ নিয়ে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে। টুর্নামেন্টের বাজেট ধরা হয়েছে ৫০ লাখ টাকা। যার মধ্যে খেলা শেষে এএফসি থেকে ৪০ হাজার মার্কিন ডলার পাওয়া যাবে। বাজেটের বাকি অর্থ টাইটেল পৃষ্ঠপোষক ওয়ালটন এবং সহকারী পৃষ্ঠপোষক প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড, প্রগতি ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড ও ট্রিজার সিকিউরিটিজ দিচ্ছে।অংশগ্রহনকারী দলগুলো পাবে দুইলাখ করে অংশগ্রহন ফি পাবে।  চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স-আপ দল ট্রফির পাশপাশি পাচ ও তিন লাখ টাকার প্রাইজমানি পাবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ