ঢাকা, বুধবার 18 April 2018, ৫ বৈশাখ ১৪২৫, ১ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

গাজীপুরে মেয়র প্রার্থীদের দিনব্যাপী গণসংযোগ

টঙ্গী সংবাদদাতা : গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপি মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা হাসান উদ্দিন সরকারের টঙ্গীর আউচপাড়ার বাসভবনে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে এক নির্বাচনী প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সিটি করপোরেশনের সাবেক বাসন, কোনাবাড়ি ও কাশিমপুর ইউনিয়ন এলাকার দলীয় কর্মীরা অংশ নেন।
গাজীপুর জেলা বিএনপির সভাপতি ফজলুল হক মিলনের সভাপতিত্বে সভায় দলীয় মেয়র প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার ছাড়াও জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক কাজী সাইয়েদুল আলম বাবুল, যুগ্ন সম্পাদক সোহরাব উদ্দিন, সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সুরুজ আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। বিএনপির নেতারা সকল হিংসা-বিদ্বেষ ভুলে ঐক্যবদ্ধভাবে নির্বাচনী মাঠে অবতীর্ণ হওয়ার জন্য কর্মীদের নির্দেশ দেন। সভায় তৃণমূল নেতারা, বর্তমান সরকারের জুলুম-নির্যাতন ও বুলেটের জবাব ব্যালটের মাধ্যমে দেয়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।
গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী নগর জামায়াতের আমীর কেন্দ্রীয় কর্মপরিষদ সদস্য অধ্যক্ষ এস এম সানাউল্লাহ বলেছেন, নিবন্ধন বাতিল করে জামায়াতের মতো আদর্শবাদী দলের অগ্রগতি রোধ করা যাবে না। আসন্ন গাজীপুর সিটি নির্বাচনে নগরবাসী ইসলাম ও মানবতার পক্ষে সমর্থনের মাধ্যমে নতুন ইতিহাস গড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছে। বৈরী মিডিয়ার অপপ্রচার সত্ত্বেও জনতা নীরব ব্যালট বিপ্লবের মাধ্যমে সকল জুলুম-নির্যাতনের জবাব দিবে।
গতকাল মঙ্গলবার বাদ যোহর গাজীপুর বারের আইনজীবীদের সাথে মতবিনিময়কালে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত না থাকায় জনগণ কোথাও ন্যায়বিচার পাচ্ছে না। তিনি ন্যায় ও ইনসাফভিত্তিক সমাজব্যবস্থা কায়েমের জন্য আইনজীবীদের ভুমিকা পালনের আহ্বান জানান।
গণসংযোগের অংশ হিসেবে একই দিন বিকেল ও সন্ধ্যায় তিনি নগরীর ৪০ নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করেন। এসময় তিনি মাজুখান বাজার এলাকায় জনে জনে গণসংযোগ করেন। গণসংযোগ শেষে তিনি এক স্বতঃস্ফূর্ত পথসভায় বক্তব্য প্রদান করেন। পুবাইল থানা জামায়াতের সেক্রেটারি এডভোকেট শামীম মৃধার পরিচালনায় অনুষ্ঠিত পথসভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মহানগর উন্নয়ন পরিষদ নেতা আবু সিনা নুরুল ইসলাম মামুন, মোঃ আশরাফ আলী কাজল, হাসান মোতালিব হোসেন মন্ডল প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।
সন্ধ্যায় তিনি জয়দেবপুরের একটি রেস্টুরেন্টে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেন। এসময় তিনি নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ তৈরিতে সাংবাদিকদের ভুমিকার প্রশংসা করে নির্বাচনের শেষ পর্যন্ত এ ভুমিকা অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান। এ সময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ২০ দলীয় জোট থেকে এখনো একক কোনো প্রার্থীর নাম ঘোষণা করা হয়নি। তবে আমি ২০ দলের সমর্থন পাবো বলে প্রত্যাশা করছি।
অপরদিকে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলমের গাজীপুরের ছয়দানার বাস ভবনে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে কয়েকটি নির্বাচনী প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে গাজীপুর সিটির ৫৭টি ওয়ার্ডের নেতাকর্মী ও শুভানুধায়ীদের নিয়ে দফায় দফায় কয়েকটি ঘরোয়া মিটিং হয়। দলীয় নেতাকর্মীসহ বিভিন্নস্তরের লোকদের সঙ্গে নির্বাচনী কৌশল নিয়ে মতবিনিময় করা হয়। দুপুরে নিজ বাসভবনে গাজীপুর সিটির ৫৭টি ওয়ার্ডের মাদ্রাসার ইমাম খতিবদের নিয়ে আলোচনা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। একই সময় সাবেক বাসন ইউনিয়নের নেতা কর্মীদের নিয়ে অপর এক নির্বাচনী সভায় জাহাঙ্গীর আলম ঐক্যবদ্ধভাবে সবাইকে নৌকার পক্ষে ভোট চাইতে ঘরে ঘরে যাওয়ার পরামর্শ দেন এবং আওয়ামী লীগের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরতে বলেন। বিকালে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম সাবেক কাউলতিয়া ইউনিয়নের সালনা এলাকায় নেতা কর্মীদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। মতবিনিময় সভাগুলোতে জাহাঙ্গীর আলম কারো কান কথায় কান না দেয়ার জন্য নেতাকর্মীদের পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, গাজীপুর সিটিতে আমার মার্কা হচ্ছে নৌকা। আর এই নৌকা নিয়েই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশ স্বাধীন করেছিলেন। আগামী নির্বাচনে আমরা গাজীপুর সিটিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নৌকার বিজয় উপহার দিব।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ