ঢাকা, শুক্রবার 25 May 2018, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫, ৮ রমযান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

প্রয়োজনীয় অস্ত্র বানাতে ইরান কারো অনুমতির তোয়াক্কা করবে না: রুহানি

জাতীয় সশস্ত্র বাহিনী দিবস উপলক্ষে কুচকাওয়াজে ভাষণ দিচ্ছেন প্রেসিডেন্ট রুহানি

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান আজ (বুধবার) জাতীয় সশস্ত্র বাহিনী দিবস পালন করছে। এ উপলক্ষে ইসলামি বিপ্লবের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম ইমাম খোমেনী (র)’র মাজারের কাছে বিশাল কুচকাওয়াজ ও সামরিক খাতে অর্জিত সাফল্য নিয়ে প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে।

সকালে অনুষ্ঠিত কুচকাওয়াজে অংশ নেন ইরানের সামরিক বাহিনীর বিভিন্ন শাখার সদস্যরা। এতে ইরানের অত্যাধুনিক অস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জাম প্রর্দশন করা হচ্ছে।

কুচকাওয়াজে অংশ নেয়া সেনা সদস্যরা

এরইমধ্যে সেনা সমাবেশ ও কুচকাওয়াজে ভাষণ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ড. হাসান রুহানি। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইরানের সেনা, বিমান, নৌ ও ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসি’র শীর্ষ পর্যায়ের কমান্ডাররা।    

 

সামরিক বাহিনীর কুচকাওয়াজ

অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তৃতায় প্রেসিডেন্ট রুহানি ইরানের শান্তিপূর্ণ সামরিক কর্মসূচির কথা তুলে ধরে বলেন, কোনো দেশে আগ্রাসন চালানোর ইচ্ছা তার দেশের নেই এবং কারো স্বার্থ ক্ষতিগ্রস্ত করার চিন্তা করে না ইরান। তিনি বলেন, প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে আন্তরিক ও ভাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক চায় তেহরান।  

বিশল কুচকাওয়াজের একাংশ

প্রেসিডেন্ট রুহানি জোর দিয়ে বলেন, প্রতিরক্ষা শক্তি গড়ে তোলার সমস্ত অধিকার ইরানের রয়েছে এবং নিজের নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজনীয় অস্ত্র বানানোর ক্ষেত্রে তেহরান কারো অনুমতির জন্য বসে থাকবে না। পাশাপাশি তিনি মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে অস্ত্রের বন্যা বইয়ে দেয়া এবং এ অঞ্চলের সম্পদ হাতিয়ে নেয়ার জন্য পশ্চিমা দেশগুলোকে হুঁশিয়ার করেন।-পার্স টুডে

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ