ঢাকা, বৃহস্পতিবার 19 April 2018, ৬ বৈশাখ ১৪২৫, ২ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে -খেলাফত মজলিস

খেলাফত মজলিসের আমীর অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক বলেছেন, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্যে খুলনা ও গাজীপুরসহ সকল সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে। আর আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে অংশগ্রহনমূলক ও গ্রহনযোগ্য করতে নির্বাচনকালীন নিরপেক্ষ  সরকার ও সেনা মোতায়েনের ব্যবস্থা করতে হবে। বিরোধী রাজনৈতিক নেতা-কর্মীদের মুক্তি দিয়ে সকল দলের জন্যে সমান সুযোগ তথা লেভেলপ্লেয়িং ফিল্ড নিশ্চিত করতে হবে। খেলাফত মজলিসের কেন্দ্রীয় নির্বাহী বৈঠকে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় সংগঠনের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আমীরে মজলিস মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাকের সভাপতিত্বে ও মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদেরের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের নায়েবে আমীর অধ্যাপক মাহাম্মদ খালেকুজ্জামান, যুগ্মমহাসচিব মাওরানা মুহাম্মদ শফিক উদ্দিন, এডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসাইন, শেখ গোলাম আসগর, মুহাম্মদ মুনতাসির আলী, সাংগঠনিক মাওলানা আহমদ আলী কাসেমী,  অধ্যাপক মুহাম্মদ আবদুল হালিম, এডভোকেট মোঃ মিজানুর রহমান, মাওলানা নোমান মাযহারী, অধ্যাপক মো: আবদুল জলিল, অধ্যাপক কে এম আলম, মাওলানা তোফাজ্জল হোসেন মিয়াজী প্রমুখ।
 বৈঠকে গৃহীত এক প্রস্তাবে সম্প্রতি কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক সাইদুল আল আমিন কর্র্তৃক ঐ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী তাসনিয়া আনিকাকে হিজাব পড়ার কারণে ক্লাস রুম থেকে বের করে দেয়ার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলা হয়, হিজাব পড়ার কারণে একজন ছাত্রীকে ক্লাস থেকে বের করে দেয়া সুস্পষ্টভাবে ইসলাম ধর্মের অবমাননা। প্রস্তাবে বলা হয়, ৯২ ভাগ মুসলমানে এ দেশে  ইসলাম অবমাননা কোনভাবেই সহ্য করা হবে না। হিজাববিরোধী কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক সাইদুল ্অলআমিনকে অবিলম্বে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে হবে। তা না হলে এদেশর ধর্মপ্রাণ জনতা সাইদুল আল আমিন ও তার দোসরদের বিরুদ্ধে তীব্র আন্দোলন গড়ে তুলবে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ