ঢাকা, বৃহস্পতিবার 19 April 2018, ৬ বৈশাখ ১৪২৫, ২ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বেঙালুরুকে হারিয়ে জয়ে ফিরল মুম্বাই

 ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) প্রথম তিন ম্যাচ হারার পর চতুর্থ ম্যাচে এসে জয়ের দেখা পেয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। মঙ্গলবার নিজেদের ঘরের মাঠ ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে বিরাট কোহলির রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স বেঙালুরুকে ৪৬ রানে হারায় আইপিএলের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। তবে মুম্বাইয়ের জয়ে ফেরার দিনে বিবর্ণ ছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। এদিন টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ২১৩ রান সংগ্রহ করে মুম্বাই। শুরুটা ভালো না হলেও ইভিন লুইস ও সুরেশ রায়নার ব্যাটে রানের পাহাড়ে উঠে মুম্বাই। ২১৪ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে বিরাট কোহলি দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেন। তবে অন্যরা জ্বলে উঠতে না পারায় জয় তুলে নেয় মুম্বাই। ইনিংসের প্রথম দুই বলে দুই উইকেট হারিয়ে শুরু হয়েছিল মুম্বাইয়ের। ও রকম দুঃস্বপ্নের শুরুর পর বিস্ফোরক ব্যাটিং শুরুর করলেন রোহিত-লুইস জুটি। পাল্টা আক্রমণে তৃতীয় উইকেটে গড়লেন ১০৮ রানের জুটি। লুইস ৪২ বলে ৬টি চার ও ৫ ছক্কায় করেছেন ৬৫ রান। রোহিত শর্মা শেষ ওভারে গিয়ে আউট হয়েছেন। তার আগে খেলেছেন ৯৪ রানের ইনিংস। তার ৫২ বলের ইনিংসে ছিল ১০টি চার ও ৫টি ছক্কা। শেষ দিকে হার্দিক পান্ডিয়ার ৫ বলে অপরাজিত ১৭ রানের ইনিংসটিও ছিল দারুণ কার্যকরী। বেঙালুরুর পক্ষে উমেশ যাদব ও কোরি অ্যান্ডারসন সর্বোচ্চ ২টি করে উইকেট নেন। জবাব দিতে নেমে কোহলি ও ডি ককের ব্যাটে শুরুটা ভালোই করে বেঙালুরু। তবে দলীয় ৪০ রানের মাথায় বিদায় নেন ডি কক (১৯)। এরপর বেঙালুরুর ইনিংসটি ছিল ওয়ানম্যান শো। একা হাতে লড়লেন কোহলি। অন্যরা যাওয়া-আসা করেছেন। তবে কোহলি ৬২ বলে ৯২ রানের ইনিংস খেলেছেন ৪ ছক্কা ও ৭টি চারে। ম্যাচ শেষ লগ্নে যাওয়ার আগেই অবশ্য পরাজয় নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল বেঙালুরুর। শেষ ৩ ওভারে ৮০ রানের সমীকরণ শেষ এক ওভারে দাঁড়ায় ৫৯ রানের। মুম্বাইয়ের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩ উইকেটে নিয়েছেন হার্দিক পান্ডিয়া। জসপ্রিত বুমরাহ ও মিচেল ম্যাকক্লেনেঘান নিয়েছেন ২টি করে উইকেট। মোস্তাফিজুর রহমান ৪ ওভার বল করে ৫৫ রান খরচায় কোনো উইকেট পাননি। এই জয়ে ৪ খেলায় ২ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে উঠে এসেছে মুম্বাই। সমান খেলায় সমান সংখ্যক জয়-পরাজয় নিয়ে বেঙালুরুর অবস্থান সপ্তম। ইন্টারনেট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ