ঢাকা, বৃহস্পতিবার 19 April 2018, ৬ বৈশাখ ১৪২৫, ২ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

আগৈলঝাড়ায় ক্ষেতের ধান কেটে নিয়ে গেছে প্রতিপক্ষরা

আগৈলঝাড়া (বরিশাল) সংবাদদাতা: বরিশালের আগৈলঝাড়ায় আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে রাতের আধারে এক চাষির ক্ষেতের আধাপাকা ধান কেঁটে নিয়ে গেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এঘটনায় আগৈলঝাড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। সরেজমিনে গিয়ে জানা যায় উপজেলার বারপাইকা গ্রামের মৃত অসিমউদ্দিন শাহের পুত্র আঃ রহিম শাহ’র ক্রয়কৃত জমিতে তার রোপিত ইরি-বোরো ধান ক্ষেতের আধা পাকা ধান একই গ্রামের মৃত আদিলউদ্দিন শাহের পুত্র খলিল শাহ, খলিলের পুত্র রবিউল শাহ, ইব্রাহীম ফকিরের পুত্র কামরুল ফকির, শাহিন ফকির মোনাই ওরফে ইসমাইল ফকির, মোকলেছ মিয়া, মোকলেছের পুত্র হাদি, আল-আমিনসহ ১৫-২০জন লাঠিসোঠা ধারালো অস্ত্র নিয়ে মাঠের মধ্যে গিয়ে আধাপাকা ৪৪ শতাংশ জমির ধান তড়িঘড়ি করে কেটে নিয়ে যায়। জমির মালিক রহিম টের পেয়ে জমির কাছে গেলে তাকে হত্যার হুমকী দেওয়া হয়। জমির মালিকানা নিয়ে এলাকায় একাধিকবার শালিশ বৈঠক হয়। এঘটনায় রহিম শাহ বরিশাল আদালতে অভিযোগ দায়ের করলে আদালত ধান কাটার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। প্রতিপক্ষ খলিল শাহ জমি দখল নেয়ার জন্য সম্প্রতি রাতে তারা আদালতের নির্দেশ অমান্য করে ক্ষেতের আধাপাকা ধান কেটে নিয়ে যায়। এঘটনা রহিম আগৈলঝাড়া থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে বিষয়টি তদন্ত করেন। এব্যাপারে খলিলের কাছে জানতে চাইলে তিনি ঐ জমি তাদের পৈত্রিক বলে দাবী করলেও জমির সঠিক কাগজপত্র দেখাতে পারেননি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ