ঢাকা, শুক্রবার 20 April 2018, ৭ বৈশাখ ১৪২৫, ৩ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

রাজশাহীতে ঘুরে দাঁড়িয়েছে সাউথ জোন 

স্পোর্টস রিপোর্টার : প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৯১ রানে অলআউট প্রাইম ব্যাংক সাউথ জোন। দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটাও যে খুব দুর্দান্ত হয়েছে তা নয় মোটে। কিন্তু মোহাম্মদ মিঠুনের দারুণ এক সেঞ্চুরি ও তুষার ইমরানের ফিফটিতে ঘুরে দাঁড়ায় সাউথ জোন। ওই দুইয়ের ওপর ভর করে উল্টো বড় লিডের স্বপ্ন দেখছে দলটি। তৃতীয় দিন শেষে ৬ উইকেটে ৩৪৮ রান তুলেছে তারা। ফলে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোনের চেয়ে ২৩৭ রানে এগিয়ে আছে সাউথ জোন। আজ শেষদিনের জমজমাট লড়াইয়ের অপেক্ষায় বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের ম্যাচটি। গতকাল রাজশাহীর শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়ামে তৃতীয় দিনের ১ উইকেটে ৫০ রান নিয়ে ব্যাট করতে নামে সাউথ জোন। তবে দলের রান আর ৩৪ বাড়তেই আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যানকে হারিয়ে চাপে পড়ে যায় দলটি। তবে চতুর্থ উইকেট জুটিতে তুষার ইমরানের সঙ্গে দলের হাল ধরেন মিঠুন। স্কোরবোর্ডে ১৯৩ রান যোগ করেন এ দুই ব্যাটসম্যান। মূলত এ জুটিতে ভর করেই বড় লিডের স্বপ্ন দেখে দলটি। তবে এ জুটি ভাঙতেই ৩৩ রানের ব্যবধানে ৩টি উইকেট হারিয়ে আবার চাপে পড়ে সাঊথ জোন। সপ্তম উইকেটে জিয়াউর রহমানের সঙ্গে দলের হাল ধরেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। অবিচ্ছিন্ন ৩৮ রানের জুটি গড়ে অপরাজিত আছেন এ দুই ব্যাটসম্যান। জিয়া ১৭ ও মোসাদ্দেক ২২ রান নিয়ে শেষ দিনে ব্যাট করতে নামবেন। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১১৮ রানের ইনিংস খেলেন মিঠুন।

 এই ফার্স্ট ক্লাস ম্যাচে ওয়ানডে স্টাইলে ব্যাটিং করে ১২১ বলে ১৬টি চার ও ১টি ছক্কার সাহায্যে রানগুলো করেছেন তিনি। তুষারের ব্যাট থেকে আসে ৮৮ রানের ইনিংস। ১৪১ বল ১০টি চার ও ১টি ছক্কায় দারুণ ধারাবাহিক এই ব্যাটসম্যানের ইনিংস সাজানো। এছাড়া এনামুল হক বিজয় করেন ৪৫ রান। সেন্ট্রাল জোনের পক্ষে ৮০ রানের খরচায় ৩টি উইকেট পেয়েছেন মোশারফ হোসেন রুবেল। ৬১ রানের বিনিময়ে ২টি উইকেট নেন তানবীর হায়দার। ইবাদত হোসেন পেয়েছেন ১টি উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর : (তৃতীয় দিন শেষে) 

সাউথ জোন : প্রথম ইনিংস ১৯১

দ্বিতীয় ইনিংস ৩৪৮/৬ (৮৩ ওভার) : (বিজয় ৪৫, মাহমুদ ৯, ইমরুল ৩০, তুষার ৮৮, মিঠুন ১১৮, সোহান ১৪, জিয়া ১৭*, মোসাদ্দেক ২২; রনি ০/৩৯, সাকিল ০/৫৭, ইবাদত ১/৮৫, মোশাররাফ ৩/৮০, তানবির ২/৬১, মাহমুদউল্লাহ ০/২৩)।

 সেন্ট্রাল জোন : প্রথম ইনিংস ৩০২/১০

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ