ঢাকা, শুক্রবার 20 April 2018, ৭ বৈশাখ ১৪২৫, ৩ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

কোন জঙ্গি সংগঠন বা সন্ত্রাসের সাথে  তাদের কোন ধরনের সম্পর্ক নেই - রফিকুল ইসলাম খান

রাজশাহীর গোদাগাড়ী থেকে জামায়াতে ইসলামীর সদস্য (রুকন) আবুল হাসান, তার স্ত্রী ও ২ কন্যা এবং তার ভাই রেজাউল করিমের ৩ কন্যাকে গত ১৮ এপ্রিল ভোর রাতে অন্যায়ভাবে গ্রেফতারের পর সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে প্রদত্ত রাজশাহীর পুলিশ সুপারের বক্তব্যের নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, জামায়াতের সদস্য (রুকন) আবুল হাসান, তার স্ত্রী, কন্যা ও ভাই রেজাউল করিমের কন্যাদেরকে গ্রেফতার করার পর রাজশাহীর পুলিশ সুপার সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে যে অসত্য ও রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত বক্তব্য দিয়েছেন তার নিন্দা জানানোর কোনো ভাষা আমাদের জানা নেই।

গতকাল বৃহস্পতিবার দেয়া বিবৃতিতে মাওলানা রফিকুল ইসলাম খান আরো বলেন, আবুল হাসান বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর একজন সদস্য (রুকন)। তিনি দেওপাড়া ইউনিয়ন শ্রমিক কল্যাণ ফেডারেশনের সভাপতি। তিনি এলাকায় অত্যন্ত সুপরিচিত একজন ব্যক্তি। ঐ এলাকার নাগরিক হিসাবে তিনি সেখানে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন। এলাকাবাসী সবাই তাকে জামায়াতের নেতা হিসাবে চিনে এবং জানে। তার ও তার ভাইয়ের মেয়েরা প্রত্যেকেই ধার্মিক ছাত্রী। কোনো জঙ্গি সংগঠন বা সন্ত্রাসের সাথে তাদের কোনো ধরনের সম্পর্ক নেই। থাকার প্রশ্নই আসে না। অথচ রাজশাহী পুলিশ সুপার তাদেরকে জঙ্গি বলে অভিহিত করে যে অযৌক্তিক বক্তব্য দিয়েছেন তাতে আমরা বিস্মিত হয়েছি। 

তিনি বলেন, তাদেরকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর হেফাজতে আটক রেখে তাদের ওপর চরম জুলুম করা হয়েছে। রাজশাহীর পুলিশ সুপার তাদের বিরুদ্ধে যে কাল্পনিক বক্তব্য দিয়েছেন তা অনাকাঙ্খিত। আমরা স্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই, আবুল হাসান জামায়াতে ইসলামীর একজন সদস্য (রুকন)। তাকে এলাকাবাসী খুব ভালভাবেই চিনেন। এলাকাবাসী সাক্ষী আবুল হাসান, তার স্ত্রী ও ২ কন্যা, তার ভাই রেজাউল করিমের ৩ কন্যা, তারা কেউই সন্ত্রাসের সাথে সম্পৃক্ত নয়। পুলিশ সুপার রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে তাদের বিরুদ্ধে যে, অসত্য বক্তব্য দিয়েছেন তা এলাকাবাসী বিশ্বাস করে না। 

তাদের অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে তাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রের আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর একজন কর্মকর্তা যে ভিত্তিহীন অসত্য বক্তব্য দিয়েছেন তিনি তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। সেই সাথে অবিলম্বে গ্রেফতারকৃতদের নিঃশর্তভাবে মুক্তি দাবি করেন। 

    

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ