ঢাকা, রোববার 22 April 2018, ৯ বৈশাখ ১৪২৫, ৫ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম কেজিতে বেড়েছে ২ টাকা

 

স্টাফ রিপোর্টার: এক মাসের ব্যবধানে খুচরা বাজারে বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম প্রতি লিটারে বেড়েছে ২ টাকা। রমজানের আগে নিত্য পন্যের দাম বৃদ্ধির ঐতিহ্য যে পুনরাবৃত্তি হলো। যদিও সরকার এবং টিসিবি বলছে দাম বৃদ্ধির কোন কারণ নেই। তবে অপরিবর্তিত আছে খোলা তেলের দাম। খুচরা বাজারে বর্তমান খোলা সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ৮৮ টাকা প্রতি লিটার। পাম অয়েল বিক্রি হচ্ছে প্রতি লিটার ৭০ থেকে ৭২ টাকায়।

গতকাল শনিবার রাজধানীর বেশ কয়েকটি বাজার ঘুরে এসব তথ্য জানা গেছে।

সয়াবিন তেলের দাম বাড়ার বিষয়ে খুচারা ব্যবসায়ীরা জানান, আন্তর্জাতিক বাজারে দাম কম থাকার পরও দেশের বাজারে বোতলজাত সয়াবিন তেলের মূল্যবৃদ্ধির পেছনের কারণ হলো কোম্পানিগুলোর বিশেষ সুবিধা তুলে নেওয়া।

ব্যবসায়ীরা বলেন, আগে বোতলজাত সয়াবিন তেলের ক্ষেত্রে রূপচাঁদা, তীর, পুষ্টি প্রভৃতি ব্র্যান্ড বিশেষ ছাড় দিত। যেমন ৫ হাজার টাকার রূপচাঁদা ব্র্যান্ডের সয়াবিন তেল কিনলে ১ কেজি বাসমতি চাল বিনামূল্যে দেওয়া হতো। তীর ব্র্যান্ডের তেলের প্রতি কার্টনে ২০ টাকা ছাড় বা চার কার্টন তেল কিনলে ২ লিটার তেল ফ্রি দেওয়া হতো। ৫ হাজার টাকার পুষ্টি ব্র্যান্ডের বোতলজাত সয়াবিন তেল কিনলেই চার লিটার তেল বিনামূল্যে দেওয়া হতো। কিন্তু এখন এসব সুযোগ-সুবিধা তারা বন্ধ করে দিয়েছে। এজন্য আমাদেরকেও বাধ্য হয়ে বেশি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে রাজধানীর হাতিরপুল বাজারের মুদি দোকানি রহমত উল্লাহ্ জানান, বর্তমানে রূপচাঁদা ব্র্যান্ডের প্রতি ৫ লিটারের সয়াবিন তেলের বোতলের দাম ৫৫০ টাকা। যা গত মাসে ৫৪০ টাকায় বিক্রি হয়েছিল। সে হিসেবে রূপচাঁদা সয়াবিন তেলের দাম লিটারপ্রতি ২ টাকা বেড়েছে এবং তীর ব্র্যান্ডের প্রতি পাঁচ লিটার সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ৫৪০ টাকায়, যা গত মাসে বিক্রি হয়েছে ৫৩০ টাকায়।

পুষ্টি ও ফ্রেশ ব্র্যান্ডের বোতলজাত সয়াবিন তেলের ক্ষেত্রেও একইভাবে ১০ টাকা বেড়েছে প্রতি ৫ লিটারের বোতলে। গত মাসে এসব ব্র্যান্ডের বোতলজাত সয়াবিন তেল (৫ লিটার) বিক্রি হতো ৫২০ ও ৫৩০ টাকায়। বর্তমানে এর দাম বোতল প্রতি ১০ টাকা বেড়ে ৫৩০ ও ৫৪০ টাকায় দাঁড়িয়েছে। একই হারে বাড়ানো হয়েছে সয়াবিন তেলের এক, দুই ও আট লিটারের বোতলের দামও।

রহমত উল্লাহ্ বলেন, এর পরেও আমরা ৫৫০ টাকার (৫ লিটার) রূপচাঁদার বোতলে ক্রেতাদের কাছ থেকে সামান্য লাভে বিক্রি করি। যেমন, বোতলে ৫৫০ টাকা লেখা থাকলেও পাইকারি কেনা ৫৩০ অথবা ৫৩৫ টাকা আমরা ৫ টাকা লাভে তা ৫৩৫ বা ৫৪০ টাকায় বিক্রি করে দেই। তীর, পুষ্টি ও ফ্রেস ব্র্যান্ডের তেলের ক্ষেত্রেও আমরা একই কাজ করে থাকি।  

তবে এসব কোম্পানির পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম বাড়ানো হয়নি। মিলগেটে এসব প্রতিষ্ঠান আগের দামেই ভোজ্যতেল বিক্রি করছে। তবে এতদিন পরিবেশকদের বাড়তি যে সুবিধাগুলো দেওয়া হতো তা আর দেওয়া হচ্ছে না। আর বাড়তি সুবিধা তুলে নেওয়ার কারণেই পরিবেশক ও পাইকারি ব্যবসায়ীরা বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম বাড়িয়ে থাকতে পারেন। এই দাম বৃদ্ধির সাথে মিল মালিকদের কোন ধরনের সম্পর্ক নেই।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ