ঢাকা, রোববার 22 April 2018, ৯ বৈশাখ ১৪২৫, ৫ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

ময়মনসিংহে যুবককে কুপিয়ে হত্যা

ময়মনসিংহ সংবাদদাতা : ময়মনসিংহে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মোহাম্মদ বাবু (২২) নামে এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষ। শুক্রবার  রাত ৮টার দিকে নগরের কলেজ রোড এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।স্থানীয়রা জানান, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে হত্যা মামলার আসামী বাবু ও তার লোকজন মোহাম্মদ বাবুকে (২২) কুপিয়ে আহত করেন। তাৎক্ষণিক স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে ভর্তি করেন। এর কিছুক্ষণ পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম  জানান, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এ হত্যাকা-ের ঘটনা ঘটেছে।

ডাকাত দলের সদস্য  নিহত : ময়মনসিংহের ফুলপুরে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত।  নিহত ব্যক্তি আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য ছিলো বলে দাবি করেছে পুলিশ। তবে নিহতের নাম-পরিচয় জানাতে পারেনি তারা। নিহত ব্যক্তি শেরপুর জেলার নকলা উপজেলার আলিম উদ্দিন (৪০) নামে এক অটোরিকশা চালকের খুনের ঘটনার সন্দেহভাজন আসামী বলেও জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তারা। গতকাল শনিবার  ভোর সাড়ে ৪টার দিকে ময়মনসিংহ- শেরপুর সড়কের শাহপুর আনোয়ারখিলা এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধ’ হয়। ময়মনসিংহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম) এস এ নেওয়াজী এসব তথ্য নিশ্চিত করেন। ফুলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মাহাবুব আলম  জানান, ২১ মার্চ শেরপুর জেলার নকলা উপজেলার বাসিন্দা অটোরিকশা চালক আলিম উদ্দিন (৪০) অটোরিকশা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন। এরপর তার কোনো হদিস না মেলায় তার বাবা আবু বক্কর সিদ্দিক সংশ্লিষ্ট নকলা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। পরে ২২ মার্চ ফুলপুর উপজেলার সাহাপুর এলাকার একটি মাদ্রাসা এলাকায় হাত-পা বাঁধা অবস্থায় নিখোঁজ আলিম উদ্দিনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ময়মনসিংহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম) এস এ নেওয়াজী দাবি করেন, মূলত ওই রাতেই আলিম উদ্দিনকে হত্যা করে অটোরিকশাটি ডাকাতি করে নিয়ে যায় বন্দুকযুদ্ধে নিহত অজ্ঞাত ওই ব্যক্তিসহ কয়েকজন ডাকাত। ফুলপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মাহাবুব আলম জানান, ওই ঘটনার জের ধরে শনিবার  ভোর সাড়ে ৪টার দিকে জেলার ফুলপুর উপজেলায় অটোরিকশা চালককে খুনের আসামীকে ধরতে অভিযান চালায় জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আসামী পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলী ছোড়েন। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলী ছোড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই অটোরিকশা ছিনতাইকারী ওই আসামী নিহত হন। এ ঘটনায় জেলা গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) জিন্নাহসহ আরেক কনস্টেবল আহত হন। তাদের স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়। নিহত ব্যক্তির লাশ ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে বলেও জানান ওসি মাহাবুব।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ