ঢাকা, রোববার 22 April 2018, ৯ বৈশাখ ১৪২৫, ৫ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

দেশকে বন্দীদশা থেকে মুক্তির জন্য রাজপথে আন্দোলনের কোন বিকল্প নেই

চট্টগ্রাম ব্যুরো : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবের রহমান শামীম বলেছেন, দেশ আজ কঠিন ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া আজ জরাজীর্ণ কারাগারে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় দিন কাটাচ্ছে আর বর্তমান অবৈধ সরকার লুটপাটের মাধ্যমে দেশকে দেউলিয়া বানিয়ে গলাবাজি করে যাচ্ছে। এ অবস্থা থেকে মুক্তির জন্য বাংলাদেশের গণতন্ত্রমনা  জনগণকে আগামী দিনে এ ফ্যাসিস্ট সরকারের অগণতান্ত্রিক, সাংবিধানিক এবং মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রতিবাদের জন্য রাজপথে নেমে আসতে হবে। কারণ বাংলাদেশে গণতন্ত্র, সংবিধান এবং মানবাধিকার বর্তমান ফ্যাসিস্ট সরকারের সাজানো, নীল নকশার কারাগারে বন্দী। 

বন্দী দশায় শুধু বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের কর্মীরা নয়, সারা দেশের মানুষ এ বন্দীদশায়। তাই দেশকে বন্দী দশা থেকে মুক্তির জন্য রাজপথের আন্দোলনের কোন বিকল্প নেই বলে তিনি উল্লেখ করেন। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া সুচিকিৎসার জন্য আমাদের দল থেকে বার বার কারা কর্তৃপক্ষকে জানানোর সত্ত্বেও কর্ণপাত না করে বেগম জিয়ার জীবনকে ঝুঁকির দিকে বর্তমান সরকার  ঠেলে দিচ্ছে। অনতিবিলম্বে দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার স্বার্থে, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসার স্বার্থে এবং বাংলাদেশের রাজনৈতিক অবস্থা স্থিতিশীল রাখার স্বার্থে মাদার অব ডেমোক্রেসি দেশনেত্রী আপোষহীন নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া, দীর্ঘদিন কারারুদ্ধ বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ও চট্টগ্রাম উত্তর জেলা বিএনপির আহ্বায়ক অধ্যাপক মোঃ আসলাম চৌধুরী এফসিএ এবং উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক নুরুল আমিনের নিঃশর্ত মুক্তির জন্য রাজপথে সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে কাজ করার আহ্বান জানান।

তিনি গতকাল শনিবার বিকালে  চট্টগ্রাম উত্তর জেলা বিএনপি কর্তৃক আয়োজিত দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া, আসলাম চৌধুরী ও নুরুল আমিনের মুক্তির দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশে জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি, চাকসু ভিপি মোঃ নাজিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে একথা বলেন। সমাবেশে প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ভিপি মোঃ হারুন উর রশিদ।

 প্রধান বক্তার বক্তব্যে হারুন উর রশিদ বলেন, দেশকে গণতান্ত্রিক ধারায় ফিরিয়ে আনার জন্য বিএনপির নেতৃবৃন্দকে ত্যাগ স্বীকারের মাধ্যমে এ ফ্যাসিস্ট সরকারের বিদায় ঘণ্টা বাজাতে হবে। সভাপতির বক্তব্যে চাকসু ভিপি নাজিম উদ্দিন বলেন, দেশে অরাজকতার অবস্থার অবসানের জন্য রাজপথের আন্দোলনের মাধ্যমে বর্তমান অবৈধ সরকারের সকল অনৈতিক কর্মকান্ডের দাঁত ভাঙ্গা জবাব দিয়ে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া, আসলাম চৌধুরী ও নুরুল আমিন সহ সকল নেতৃবৃন্দের মুক্তিসহ সহায়ক নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে আগামী সংসদ নির্বাচনে সর্বাত্মক প্রস্তুতি গ্রহণের জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান। জেলার বিএনপির সহ-সভাপতি এম এ  হালিম বলেন, ফ্যাসিস্ট সরকারের পতনের জন্য সকলকে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। না হলে বর্তমান অবৈধ সরকার আবারো নীল নক্শার নির্বাচন করার সুযোগ পাবে। জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক এড. আবু তাহেরের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক ইউনুচ চৌধুরী, ইসহাক কাদের চৌধুরী,   ছালাহ উদ্দিন, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক নুর মোহাম্মদ, জসিম সিকদার, আলহাজ্ব সেকান্দর চৌধুরী, আব্দুল আউয়াল চৌধুরী, জসিম উদ্দিন চৌধুরী, ড্যাব নেতা ডা. খুরশিদ জামিল, মোঃ সেলিম চেয়ারম্যান, সৈয়দ নাসির উদ্দিন  সহ বিভিন্ন উপজেলা ও পৌরসভা বিএনপির ও অঙ্গ সংগঠনের প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। 

বক্তাগণ আরও বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার জন্য রাজপথে কঠিন আন্দোলনের মাধ্যমে এ সরকারের অপশাসনের দাঁত ভাঙ্গা জবাব দেওয়ার জন্য সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে ইস্পাত কঠিন দৃঢ় ঐক্যের মাধ্যমে গণআন্দোলনের প্রস্তুতি গ্রহণ করার জন্য মাঠ পর্যায়ে সকল নেতাকর্মীদের সাধারণ জনগণকে সম্পৃক্ত করে প্রস্তুতি গ্রহণ করার আহ্বান জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ