ঢাকা, মঙ্গলবার 24 April 2018, ১১ বৈশাখ ১৪২৫, ৭ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

সাকিব-তামিম খেলবেন লর্ডসে বিশ্ব একাদশে 

 

স্পোর্টস রিপোর্টার : ঝড়ে লণ্ড ভণ্ড হয়ে গেছে ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জের দুই স্টেডিয়াম। দুটি  স্টেডিয়াম পুরোপুরি মেরামত করতে প্রয়োজন অনেক অর্থ। এর জোগান দিতেই অনুষ্ঠিত হচ্ছে একটি প্রীতি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ। আগামী ৩১ মে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে লর্ডসে হবে একমাত্র প্রীতি টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি।  এই ম্যাচে খেলবে বিশ্ব একাদশ। আর  বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলবেন বাংলাদেশ ওপেনার তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান। সাকিব, তামিমদের মতো বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলতে যাচ্ছেন আফগান স্পিনার রশিদ খান। বর্তমানে টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ বোলার রশিদ। ওয়েস্ট ইন্ডিজ জাতীয় দলের বিপক্ষে মাঠে নামতে যাওয়া বিশ্ব একাদশের হয়ে খেলবেন শহীদ আফ্রিদি, শোয়েব মালিক ও থিসেরা পেরেরা। আগেই ঘোষণা করা হয়েছিল এই ম্যাচে বিশ্ব একাদশকে নেতৃত্ব দেবেন ইংল্যান্ডের সীমিত ওভারের অধিনায়ক ওয়েন মরগান। লর্ডসে পুনরায় খেলতে পেরে গর্ববোধ করছেন তামিম ইকবাল। সেই আনন্দের কথা লুকিয়ে রাখেননি। এমন খেলায় অংশ নিতে পেরে উচ্ছ্বসিত তামিম আইসিসির বিবৃতিতে বলেছেন, ‘ক্রিকেট এমনই একটি খেলা, যা মানুষকে এক সূত্রে বাঁধে, একে অন্যকে সহায়তা করে।

এই ম্যাচ সেই সত্যতার সাক্ষ্য বহন করছে। আমি আবার বিশ্ব একাদশকে প্রতিনিধিত্ব করতে পারবো বলে উচ্ছ্বসিত।’ তিনি আরও যোগ করেন, ‘যদি ক্রিকেট বিশ্ব ক্ষতিগ্রস্ত ভেন্যুর নির্মাণে ছোট্ট ভূমিকা রাখতে পারে তাহলে এটা হবে খুবই ছোট প্রতিদান। বিপরীতে যার ফলাফল হবে সুদূরপ্রসারী।’ আইসিসির বিবৃতিতে তিনি আরও বলেছেন, ‘লর্ডসে খেলা মানে অনেক ক্রিকেটারের জন্যে গর্বের। আমার এখানে খেলার অভিজ্ঞতা হয়েছিল একবার ২০১০ সালে। তাই পুরনো স্মৃতি পুনরুজ্জীবিত করতে মুখিয়ে আছি।’ ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে এই ম্যাচের নেতৃত্ব  দেবেন কার্লোস ব্র্যাথওয়েট। খেলবেন ক্রিস গেইল, মারলন স্যামুয়েলস ও আন্দ্রে রাসেলের মতো তারকা। বিশ্ব একাদশের হয়ে পাকিস্তানেও খেলেছেন তামিম। প্রথমবার খেলতে নেমেই লর্ডের অনার্স বোর্ডে নিজের নাম তুলেছিলেন তামিম ইকবাল। ২০১০ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তামিমের সেই সেঞ্চুরি মহাকাব্য হয়ে আছে। আট বছর পর আবারো লর্ডসে খেলতে নামবেন তামিম।  সেটিও আবার বিশ্ব একাদশের হয়ে। হ্যারিকেনে ক্ষতিগ্রস্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্টেডিয়াম সংস্কারের জন্য তহবিল সংগ্রহে এই ম্যাচ আয়োজন করেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসি। বিশ্ব একাদশের হয়ে পাকিস্তানে খেলতে গিয়েছিলেন তামিম ইকবাল। ২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কা দলের টিম বাসে সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে দেশটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নির্বাসিত ছিল। আইসিসি বিশ্বএকাদশের বিপক্ষে তিন ম্যাচের সিরিজ আয়োজন করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট  ফেরায় পাকিস্তানে। হ্যারিকেন ইরমা ও মারিয়ার আঘাতে ক্ষতিগ্রস্ত ক্যারিবিয়ান স্টেডিয়াম সংস্কারের জন্য এই ম্যাচ আয়োজন, তামিম সেখানে এই প্রচেষ্টাকে মহৎ তো বটেই ক্ষুদ্র বলেই মনে করেন, ‘বিশ্বব্যাপী  খেলাকে জনপ্রিয় করতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের অবদান অবিশ্বাস্য ও অনন্য। শেষ বছরে হ্যারিকেনে ক্ষতিগ্রস্থ ভেন্যুর পূনঃনির্মাণে এই ক্রিকেট আয়োজন ক্ষুদ্র প্রচেষ্টা মাত্র।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ