ঢাকা, বুধবার 25 April 2018, ১২ বৈশাখ ১৪২৫, ৮ শাবান ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition

জাতীয়তাবাদী-ইসলামপন্থীদের শিক্ষক সমিতি ডিন সিন্ডিকেট সিনেটে গুরুত্বপূর্ণ বিজয় অর্জন

সভাপতি ড. আমজাদ হোসেন ও সেক্রেটারি ড. মামুনুর রশিদ

রাবি রিপোর্টার : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক সমিতিসহ বিভিন্ন ক্যাটাগরির ৭০টি পদে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে জাতীয়তাবাদী-ইসলামপন্থী শিক্ষকদের সাদা দল গুরুত্বপূর্ণ বিজয় অর্জন করেছে। অন্যদিকে বেশিসংখ্যক পদ পেলেও এসব গুরুত্বপূর্ণ পদে সরকারপন্থী হলুদ দলের অভাবনীয় পরাজয় ঘটে।
গত সোমবার সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ শেষে এ তথ্য নিশ্চিত করেন নির্বাচনের প্রধান রিটার্নিং অফিসার ও বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. এম এ বারী। নির্বাচনে জাতীয়তাবাদ ও ইসলামী মূল্যবোধে বিশ^াসী শিক্ষক গ্রুপ (সাদা দল) সিন্ডিকেটের ৩টি ও ডিনের ৪টি পদে বিজয়ী হয়। আর শিক্ষক সমিতির সভাপতি, সহ-সভাপতি, কোষাধ্যক্ষ, সাধারণ সম্পাদক ও সদস্যসহ ৬টি পান এই গ্রুপের শিক্ষকগণ। সিনেটে শিক্ষক প্রতিনিধি পদের ৩৩টির মধ্যে ১৯টিতে বিজয়ী হয় সাদা দল। শিক্ষা পরিষদের ৬টি পদের কোনটিই পায়নি সাদা দল।
সিন্ডিকেট নির্বাচন : সিন্ডিকেটের ৫টি পদের মধ্যে সাদা প্যানেল ৩টি ও হলুদ প্যানেল পেয়েছে ২টি পদ পেয়েছেন। এর মধ্যে সাদা প্যানেল থেকে নির্বাচিতরা হলেন প্রাধ্যক্ষ থেকে অধ্যাপক ড. আব্দুল আলিম, অধ্যাপক পদে অধ্যাপক ড. হাবীবুর রহমান ও সহযোগী অধ্যাপক পদে ড. মনিরুল হক। হলুদ প্যানেল থেকে বিজয়ী হয়েছেন সহকারী অধ্যাপক থেকে ড. মোহাম্মাদ আব্দুল্লাহ আল মামুন, প্রভাষক থেকে মাসিদুল ইসলাম। মাসিদুল ইসলাম বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন।
ডিন নির্বাচন : ডিন নির্বাচনে সাদা প্যানেল থেকে কলা অনুষদে অধ্যাপক ড. ফজলুল হক, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদে অধ্যাপক ড. ফখরুল ইসলাম, কৃষি অনুষদে অধ্যাপক ড. সালেহা জেসমিন ও প্রকৌশল অনুষদে অধ্যাপক ড. একরামুল হামিদ নির্বাচিত হন। অপরদিকে হলুদ প্যানেল থেকে আইন অনুষদে অধ্যাপক ড. এম আহসান কবির, বিজ্ঞান অনুষদে অধ্যাপক ড. এম খলিলুর রহমান খান, বিজনেস স্টাডিজ অনুষদে অধ্যাপক ড. এম হুমায়ুন কবীর, জীব ও ভূ-বিজ্ঞান অনুষদে অধ্যাপক ড. এম নজরুল ইসলাম, চারুকলা অনুষদে অধ্যাপক ড. সিদ্ধার্থ শঙ্কর তালুকদার জয়ী হয়েছেন। আইন অনুষদে কোন প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় অধ্যাপক ড. এম আহসান কবির বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন।
শিক্ষক সমিতি : সাদা প্যানেল থেকে সভাপতি পদে ফাইন্যান্স বিভাগের ড. আমজাদ হোসেন, সহসভাপতি পদে সমাজকর্ম বিভাগের অধ্যাপক গোলাম কিবরিয়া ফেরদৌস, সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ফার্মেসী বিভাগের অধ্যাপক মামুনুর রশিদ, সদস্য পদে অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক কেবিএম মাহবুবুর রহমান ও ফলিত পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মামুন-উর-রশীদ খন্দকার নির্বাচিত হন। অন্যদিকে, হলুদ প্যানেল থেকে শুধুমাত্র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ভূগোল ও পরিবেশবিদ্যা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আবদুল্যাহ আল মারুফ এবং সদস্য পদে সুজা উদ দৌলা, মামুনুর রশীদ সরকার মাসুদ, মাহফুজুর রহমান মামুন, ইলিয়াস হোসেন, হাসনা হেনা, সোমলাল দাস, ফারজানা রহমান, হাশেম উদ্দিন সুখন সরকার নির্বাচিত হয়েছেন।
শিক্ষা পরিষদ : শিক্ষা পরিষদের দুইটি ক্যাটাগরিতে ছয়জনই নির্বাচিত হয়েছেন হলুদ প্যানেল থেকে। এরা হলেন সহযোগী অধ্যাপক ক্যাটাগরিতে উদ্ভিদবিজ্ঞানের নাসিরুদ্দিন, শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের রুবাইয়াৎ জাহান এবং সমাজবিজ্ঞান বিভাগের আবু রাসেল মুহা. রিপন। সহযোগী অধ্যাপক ব্যাতীত ক্যাটাগরিতে ইনফরমেশন সায়েন্স অ্যান্ড লাইব্রেরি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের আরমানুল হক, মার্কেটিং বিভাগের শেখ শামীমা সুলতানা এবং চিত্রকলা, প্রাচ্যকলা ও ছাপচিত্র বিভাগের সুজন সেন।
অন্যান্য পদ : বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাইনান্স এবং পরিকল্পনা ও উন্নয়ন কমিটিতে দুইটি পদেই বিজয়ী হয়েছেন হলুদ প্যানেলের শিক্ষকরা। তারা হলেন, ফাইনান্স ক্যাটগরিতে ম্যানেজমেন্ট বিভাগের অধ্যাপক জাফর সাদিক এবং পরিকল্পনা ও উন্নয়ন কমিটি ক্যাটাগরিতে অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক মাহমুদ হোসেন রিয়াজী। এছাড়া সিনেটে শিক্ষক প্রতিনিধি পদের ৩৩টির মধ্যে ১৯টিতে বিজয়ী হয় সাদা দল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ